Skip to main content

Full text of "Ajatashatru"

See other formats


নাটক 


বন্থুমতী প্রশংসিত 
সর্ববজনপ্পিয় 


ম্বাস্চন্ত্ি 
শৌল্লানশিক্চ নাউন্চ 

নব ভাবে নানারূপে 
রূপায়িত-পস্থকল্িত 
ঘটনার ইন্দ্রজাল ! 
অঙ্কে অঙ্কে তারপর কি ? 
ব্যাকুল আগ্রহে পড়িবেন, 
অভিনয়েও অতুলনীয় । 

মিনার্ভ। থিয়েটারে 

অভিনীত। 
মূল্য ১১ 


অজাতশক্র 


নাটক 


“1বাহশাত্রা-__ 


আবীভোালানাথ রায় প্রণীত 





গণেশ অপেরা পাটি কর্তৃক অভিনাত 


প্রথম অভিনয় স্তঞান-_ 
মনোমোহভন রঙ্গমঞ্চ ৷ 


গত্ন্প্প ব্বত্স্পন্ভ৭ 
কটিকাত' 
১০নং নাধের বাগান সীট 


১৩৩০৯ 


গ্রস্থকারের অন্যান্য নাটক। 


শুভব্তাস্ 
পিিস্মব্ররক 
বআভভাক্ঞাঞ্তি 
ববগালচত্রু 
গ্র্থিত্ী 
সহ৪ম্নচ্ 
তগাহকী 
হ্িল্দ্যান্বতিল 
আছিম্পুক 


৯০ 
চা 
১] ০ 
১৪৭ 
১115 
১5 
১০ 
১11০ 


১০ 


জান্লাহলক্দ 
যন্তুস্ 


15111506005 1, 5 জা এনা 
20৭ ১৯211010202 50650 0710066 
1১1171050 0৮7-15 ১ 7০554৮100৮৩ 
1106, উ71110]0017 ১0০60, (০71011065, 


1932, 


[ গ্রন্থকারের সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | 


পাগুস্থান £-- 

পাল ব্রাদাস এগু কোং 
৭নং শিবকুষ্ণ টা লেন 
জোডাস ?কো কলিকাতা ৷ 


সন্্রশ্চ'স্তল্র 

এ্বন্নু ভি 
ান্ষিপাত্য 
ছিহ্-্ষভনঙন 

প্রাণে প্রানে 
ৈক্ম্ত্রী 
জগচ্জাত্রী 
জজ-ত্হন্ভিই [ নাটাকাব্য ] 


১।। ০ 


১1: 


১15 


| € 


11? 


চি 


১০ 


১০ 


উৎনগ 


জ্ঞানময্ মিজ্রের 


প্রতি-__ 


প্রি মিত্র । 

তুমি এই অজাতশক্রর একমাত্র, অপ্রাতিদন্দী এভিনেত।  অভিনয 
কালে অস্তস্থতাঁনিবন্ধন মনিচ্ছাসত্তে অনুরুদ্ধ হইলে ভুমি আমাকে তোমাঝ 
জীবনের দারী করিয়াছিলে, স্বার্থীন্ধ আমি _ন্বীরুত ভইখাভিলাম ; পরে 
চমক-ডঙ্গে সে প্রতিশ্রুতি রক্ষার জন্ত- _কন্মাগ্ক আমি--স্থল স্তক্ষ। উভ্ববিণ 
প্রকারে চেষ্টা করিতেছিলাঁম , এখন বঝিতিটি--দ্রমা্ধ আমি -গামিই 
ঘাঁকিব না, তোমায় রাখিব কি” 

তুমি এই অজাতশক্রর অভিনয়ে দে5 পা কণরিরাড, এই শঙ্গাতণ বর 
মধুর সহিত স্মতির জগতে সপ্তীবিত পাঁক , মামংব যা পানভা ) আইজি 
“হামার দারশমক্ত ! 


অস্ভব্য 


হজাতএকূর শ্ষ্টিকাণ হইতে প্রকাশকাল দীঘ দূরবর্তী এই 
বিস্তুভ বাবধানের মধ্যে পরিবপ্তনশাল জগতের শতিত নিজেরও 'অবস্টান্মণ 
পূর্বের সে ভাষা রসনা! হইতে অপহ্ষত-প্রার়; অতীতের সে ভাব-ধারার 
ভিত বর্তমান ভাবেরও অসামঞ্জন্ত , এরপ ক্ষেত্রে গ্রন্থকারের পক্ষ হইতে 
বিগত কার্যাবলীর তালিকা স্বরূপ ভূমিক1 দেওয়া কষ্ট-কল্পন] : 

তবে পাঠক হিসাবে আমার এক পূর্ণচ্ছেদ মন্তবা---এই নাটা গ্রন্থথানি 
এঁতিভাঁসিক স্তর অবলম্বনে ধর্মচিন্তা! -প্রন্থুত ; উদ্দেশ্য--কতিপয় বিভিন্ন 
“ম্মের সারাংশ উদঘাটনে ঘথার্থ সত্য একমাত্র মানব-ধন্মের অনুসন্ধান: 

কতদুর সফলকাম--সে বিচাধ্য আর আমার শর, অন্ত পাকের ; 
কেন না- পূর্বের সে গ্রন্থকার ও বর্তমানের এহ পাঠক যে এক 
বাক্তি, এখনও আমি সে গণ্ভীর এ পারেই । 

গ্রন্থের মধো মুদ্রীঙ্গন বা অন্ত যে কিছু ভ্রম-প্রমাদ-_তাভাগ হার 
উপায় কি? জগৎ ন্রমাত্মক 


জন্মাষ্টমী-_-১৩৩৭ সাল ) 


ভোলানাথ 
বাযান__বদ্ধমান । ১ 


বুচল্গীতন স্ব গঞ্ 


পুরুষগণ 
অজা তশক্র -** মগধেশ্বর বিশ্বাসারের পুল্ল 
উদয় -*. এঁ পুজ্র। 
অন্রনীল এঁ সেনাপতি ৷ 
শিঞ্জন --1 এঁ চর 
উত্থান রি এঁ ভৃত্য 
টঙ্কার -. বিশ্বাসারের দূত । 
প্রসেনজিৎ ২. কোশলরাজ, বিশ্বাসারের শ্যালক 
অজাতশক্রর শ্বশুর! 
বীর্ধযশ্থেত টা এ সেনাপভি । 
কাশ্তপ ৪ বাহ্গণ, বুদ্ধদেবের প্রধান শা 
মদগালি র্‌ এ শিষ্য । 
আজীবক -*. বৈদিক ব্রাহ্মণ | 
সবানন্দ ্ . ভাগবত-ধন্দ্মী। 
রি রঃ দল্সা-সর্ার ' 
কলম্ব এ পুত্র 


সংসার-ধন্্ী, রাজ-পুরোহিত, মন্ত্রী, তৃষ্য, ভিক্ষুগণ, রাঙ্গণগণ, দশ্সাগণ, 
সৈম্ভগণ, প্রহরী, যগধ দূত ও কোশল দূত 


স্ত্রাগণ 


ক্ষেমাদ্বৌ_ বিশ্বাসার মহিষী, প্রসেনজিতের ভগ্ী, অজাতশক্রর বিমাতা। 
বেণুদেবী__শজাতশব্রর স্ত্রী, প্রসেনজিতের কন্!, উদয়ের বিমাতা | 


উষাদেবা ১" প্রসেনজিতের পত্রী । 
ওল্কা এত ধঙ্গর কন্তা! | 
সনাতনা সেবানন্দের শিষা। ! 


"ঃসার-পন্মী, নর্তকীগণ, চিন সখিগণ, পরিচারিকাঁগণ, ভিক্ষুণীগণ. 


অজাতশক্র। 
প্রথম অঙ্ক 


প্রথন্মন গভ্ডাক্ক। 
দস্থ্য-কুটার । 
কলম্ব ও উল্া মুখোমুখী দ্াড়াইয়াছিল । 

কলম্ব। বাবাকে ধরিষে দিয়েছিস__তুই । 

উদ্ধকা। বা রে। 

কলগ্ধ। স্তাকামি রেখে দে; বাবাকে ধরিয়ে দিয়েছিস-_তুই 

উদ্কা। মন্দ নয়; ডাকাত ধরলে রাজার ছেলে অজাত শক্র-_ 

কলম্ব। রাজার ছেলের চৌন্দপুরুষ এলেও ধন্ু ডাকাতকে ধর্তে 

পার্তে। না__ঘরের গোয়েন্দা না পেলে! বাবাকে ধরিয়ে দিয়েছিস__ 
তুই | 

উক্কা। [ঈষৎ চিন্তা করিয়া] তুল হ+য়ে গেছে ভাই, ভুল হঃয়ে 
£গছে,-রাগ করো না, এ রকম ভুল মানুষের হয়। 

কলম্ব। এ রকম ভুল মানুষের হয়। 

উক্কা। হর না? বাবা নালন্দার মাঠে আমার স্বামীকে-_নিজের 
জামাইকে লাঠিয়ে মারে কি কণ্রে, দাদ? ? 


৯ 


অনতাা জিত [১মঅন্ক; 


কলম্ব। সেটা তার তুল হয়েছিল-_ঠাঁওর হয় নাই, অন্তালোক মনে 
ক'রে। 

উদ্ধা। এটাও আমার ভূল হয়ে গেছে, ধরিয়ে দিয়েছি-_খেয়াল 
করতে পারিনি বাবা বলে! আমিও ত এ ভূলকরা ডাকাঁতের বেটা । 

কলম্ব। ৩$_-উক্কা! এই একদিনের একটা তুল আর আমাদের 
মেখে নিতে পার্লি না? 

উহ্কা। তোমাদের এই একদিনের একটা ভুল ;_আমাঁর একটা 
জন্ম গেল যে দাদ! 

কলম্ব। জন্ম ত গেছেই; বাবাকে ধরিয়ে দিয়েই কি জন্মটা তোর 
ফিরলো, বোন্‌ ! 

উন্কা। তা হ”লে তুমিই বা আর বকৃতে এলে কেন মিছে ; ধরিয়ে ত 
দিয়েইছি_-বকাবকি করলে কি আর সে ধরিয়ে দেওয়া ফিরবে, ভাই! 
বাবাও ভুল করেছে-_আমিও ভুল করেছি ; মিটে গেছে _যাঁও | 

কলম্ব। আরে তা কি হয়! মিটে বাবে কি এরই মধ্যে! এখনও 
বাকি রয়েছে ষে। বাবা ভূল করেছে, বাবার বেটা-__তুই ভুল কর্লি, 
বাপের বেটা_আমিও একটা ভুল করি__[ উদ্ধার মন্তকে লাঠি তুলিল ] 

উক্কা। [ ছুরি ধরিয়া] হ'সিয়ার__ আরও ভুল হয়ে যাবে আমার 
তা হ'লে। 


ধন্থ উপস্থিত *'ল। 


ধন্থু। [ উভয়ের মধাস্থলে দাড়াইরা ] হিংসা পরমো ধর্ম । 

কলথ। বাবা! 

ধনু । মহারাজ বিশ্বাসার আমায় খা-'ন দিয়েছে কলম ; বে কন্তুর। 
কলম্ব। প্রমাণ পায় নি বুঝি? 


১ম গঞ্ভাঙ্ক |] তবজািস্ণতত 


ধন! না রে বেটা, প্রমাণ করে দিতে রাজার ছেলে অজাতশক্র 
চুল ভোর গলি রাখে নাই ; তবু রাজ! আমায় ছেড়ে দিয়েছে । 

উন্কা। | সাশ্চর্যো ] তব রাজ ছেড়ে দিয়েছে ! প্রমাণ পেয়েও । 

ধনু | অহিংসা পরমে! ধশ্ম | 

উদ্ধা। সে রাজা এখনও সিংহাসনে আছে ? 

ধন্নু। সিংহাসন আলো! ক”রে__সতোর ছাতা মাথার | 

উ্ধা। গাঁকবে না, থাকবে না__সে রাজা সিংহাসনে থাকবে না। 
আমি শাপ দিচ্ছি-ভাঁর সিংহীসন সরে বাবে, ভার ছাতা আগুন 
লাঁগ বে, তার মাথার আকাশ ভেঙ্গে পড়বে । 


| প্রস্থান । 


কলম্ব। চল বাঁবাঁ_আমরা পুজে! দিই, বর চাই-__এ রাজার গায়ে 
যেন কাটার আচড় না লাগে, এ রাজার পায়ে যেন সব মাথ! লুটিয়ে 
পড়ে । | 

ধন্থ। নারে কলম! এ রাজার জন্তে আর কারও কাছে কিছু চাইতে 
হবে না; এ আর মানুষ নাই_ দেবতা হয়ে গেছে । আমি ধন্থু ডাকাত 
-কত লুট করেছি, কত জখম করেছি, লোভে প*ড়ে নিজের জামাইকে 
পর্যন্ত লাঠিয়ে মেরেছি,_+কিছুতেই দমি নাই, কাল পর্যন্ত সমান লাঠি 
চালিয়ে এসেছি; কিন্তু আমার একি হলো ! রাজা আমার আজ একি 
কর্লে__"অহিংসা। পরমো ধর্ম 1” চ” কলম, লাঠি সড়কিগুলেো৷ আগুন 
জেলে পুড়িয়ে ফেলি, তীর ভল্লগুলো গুঁড়ো ক'রে হাওয়ায় উড়িয়ে দিই, 
মান্ুষ-ঠেঙ্গীনো ডাকাত-জন্মটা! চোখের জলে ভাসাই। 

কলম্ব। আমিও তাই ব্ল্বো তোমায় কদিন হ'তে মনে ক'রে 
আস্ছিলুম, বাবা! আমরা! ত অন্তজ জাত নই, আমরা শক-ক্ষত্রিয় ; আমরা 


৩ 


ত্বক ভস্ণত [ ১ম অঙ্ক; 


কেন এ চুরি, ডাকাতি, লাঠিয়ালি করে মরি। এস বাবা আমরা 
ক্ষত্রিয় হই । 
ধন্গু। অহিংসা পরমে! পর্শ_অহিংসাঁ পরমো ধর্ম ! 
[ কলম্বের হস্ত ধরিয়! প্রস্থান । 


শিল্রত্ভীম্ম লর্ডাক্ | 


পথ । 
মদগালি উচ্চকঠে গাহিয়! যাইতেছিল । 
মদগালি ।-__ 


গীত | 
অভিংসা পরমে| ধশ্ম । 
জান্তিভেদ বর্জন _জাবে দয় কম 
জমাট যজ্ধূমে-_ ভারত অন্ধকার 
মুক্তির পথ হ্ায -রক্তেব পাবাবার : 
প্রেমের প্রতিষ্ঠাতা-জলাদ ছুরাচাঁব, 
কামনার কপ(ল|ভ-সাধনার মন্ম | 


আজীবনক উপব্রিত হইলেন। 


আজী। বলি হা হে-_আমরা আর দেশে থাকৃবো, না দেশ ছেড়ে 
যাব বল দেখি ? 

মদগালি। কেন ভদ্র? কি করেছি আমরা? দেশ ত্যাগ কর্বে 
কেন? 

আজী। কি আর রাখছে বাপু দেশে তোমর! ? যাঁগ নাই, বজ্ঞ 


৪ 


বয় গভাঙ্ক | ] জা তিস্ণ্র 


নাই, ঠাকুর নাই, দেবতা নাই, জাত নাই, কুল নাই,_-ত্রাঙ্গণ আমরাঁ_ 
কি নিয়ে থাকি বল? 
কাশ্যপ উপস্থিত হইলেন । 

কাঠপ | কেন-মানবের ঘেবা শিরে, অব্বজীবে দরা নিয়ে, অহিংসা 
বন্ম নিয়ে | 

'শাজী। আশ্চষ্য হচ্ছি বাপু-তোমার এ মতি ভ্রম কেন! ব্রাঙ্গণ- 
শন্তান তুমি, সমাজের মাা_-এ একাকার শ্লেচ্ছকাণ্ডের ভিতর তুমি ? 

কাঠ্যপ । বুদ্ধ! ত্রাঙ্দণত্বের অভিমান হাড়? 'অসিংসা ধন্ম নাও । 

আজী। ফের হে ফেক) অন্তে বেবা কেক? ব্রা্ণনন্তাণ 
তুমি--ডুঁমি ফের। 

কাগ্ঠপ ! জঁলাশখের মীন সমুদ্রে পড়েছে ব্রাঙ্ছণ । তার ফেরবার 
আমার আশা নাই) তুমি উঠে এপ---ক্ুপর ও কুপ তে মনন এ শিশ্বর্রেমে | 

আজী! দেখ বাপু? একটা মোগাখুট বাল তোমার-হোমার 
বুদ্ধদেবের মত বিশ্বপ্রেঘিক এ দেশটার অনেক এলে! অনেক গেল। 
বৈদিক ধর্মমটাকে তুমি ক্ষুদ্র দল্‌। এর গানে কাটাপ মাচড দিতে কেউ 
পার্লে না, পার্বে না) এ স্ষ্টির আপি ধন্ম- স্থ্টির সঙ্গে উঠেছে, প্রলয় 
পর্যন্ত এর পরমাযু; হোমাদেপ মাঝখানটার দিনকতক লাফালাফি কর! 
নাত্র | কেন ভূতের বেগাঁওর গাটুছো» বাবা! ব্রাহ্মণের ছেলে_ ক্ষত্রিয়ের 
শিষ্য--হি-হি-ছি | 

কাগ্ুপ। প্রমাণ কঠরে দিতে পার--মামি রাঙগণ সন্তান 2 প্রমাণ 
করে দিতে পার বুদ্ধদেব ক্ষত্রির ? প্রমাণ করে দিতে পার- ক্ষত্রিয় 
ব্রাঙ্গণের নীচে? তোমার মন্ুসংহিতা বল্ছে বললে শুনবো না, মানব- 
সংহিতা খোল, প্রকৃতির বৈষম্য দেখাও ) বুঝিয়ে দাঁও--আলোক আর 
চক্ষু দুয়ের কে বড় কে ছোট, কাঁর অভাবে কার স্ফৃষ্ভি। পার্বে? 
৫ 


ততঙ্াভ্িস্ণত [১মঅঙ্ক; 


আজী। জানি বাবা জানি, পায়ে মাথায় সমান ক*রে দেবে বই কি 
তোমরা) তা নইলে আর এ কলির একাকারটা হয় কোথা হ'তে ! আমি 
বাবা তর্ক কর্তে চাইনা তোমরা সঙ্গে-_কাঁলকের ছেলে তুমি ) পরামর্শ 
দিচ্ছি-_আমাদের প্রাচীন ধঙ্ুটার ওপর ব্যাভিচার এনো না ব্রহ্ষশাপ 
হবে । 

কাশ্ঠপ | ভয় দেখাচ্ছ বৃদ্ধ? সত্যের অভয় ছত্রতলে আমরা-_ 
বস্তরপাতেও ভ্রক্ষেপ করি না। বৈদিক-ধন্ম রক্ষা করতে চাও__তর্ক 
তোমায় কর্তেই হবে। তুমিও প্রতিপন্ন কর-_তোমার ধুমাচ্ছন্ন, রক্ত- 
প্লীবিত কর্মকাণ্ডের শ্রেষ্ঠত্ব, আমিও দেখাই__-আমার নিন্মল, নিংস্বা্থ 
অহিংসাঁ-ধর্ম্নের উজ্জ্বলতা ; পার--কর আমার নির্বাক ; দেখি_-তোমার 
বৈদিক ধর্ম, বুঝি_-তৃমি বিপ্র। 


শিঞ্জন উপস্থিত হইল । 


শিঞ্জন। আমি একটা কথা বল্‌তে এলুম মশারদের ; একটু অপ্রিয় 
হবে-_ক্রুটী নেবেন না। আর ধর্ম নিয়ে কেউ তর্ক বিতর্ক করবেন না, 
সরে পড়ুন__গ] ঢাকা দেন। 

সকলে । | বিদ্বয়ে নির্বাক ] 

শিঞ্জন। বুঝতে পেরেছেন? আমি যুবরাজ অজাতশক্রর পাঁর্াদ, 
তাঁর আদেশ বড় ভয়ানক, _ধর্্ম সম্বন্ধে যে কেউ একটা কথা! কইবে, 
যে ধর্ম নিয়েই হোক, আর যেই হোক সে--যাক, আমি উপস্থিত ততটা 
কর্তে চাইনা ; বন্ধুভাঁবে আপনাদের সাবধান ক”রে যাচ্ছি _-য! করেছেন-_ 
করেছেন, আর ধর্মের নাম পর্যাস্ত কেউ মুখে আন্বেন না, সাবধান। 
[ গমনোগ্ভত ] 


২য় গর্ভাঙ্ক। ] অবজাতিস্পক্রু 


টঙ্কার উপস্থিত হইল । 


টক্কার। আমার এক নিবেদন মহাপ্রভুদের চরণে ;-_মহারাজ 
বিশ্বাসারের ইচ্ছা_ধিনি যে ধশ্মীই হোন্‌, নির্ভয়ে ধর্মচচ্চা কর্তে পারেন । 
বিভিন্ন-ধন্দ্ী পরস্পর তর্কযুক্তির দ্বারা আপন আপন ধন্মের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ 
করুন--এটা আবার তাঁর একান্ত অন্কুরোধ ! মোট কথা-___ধর্ম সম্বন্ধে 
মগদ-রাজোর বিন্দ্মাত্র বাধা-প্রতিবন্ধকতা নাই, নির্ভয় । [ গমনোগ্যত ] 

শিপ্পন। ওহে, শোন শোন, একটা কথ! জিজ্ঞাসা করি,_তোমাদের 
মহারাজ যে ধর্ম সম্বন্ধে কল্পতর হয়ে পড়েছেন__নিজের ঘর বুঝেছেন ? 

টক্কার। মহারাজ ঘর বুঝতে যাবেন কেন, ভাই ! তিনি ত অন্তায় 
আদেশ দেন নি_যে কারও মতামতের অপেক্ষা করতে হবে! তিনি 
বৌদ্ধধন্মী হলেও) সকল ধন্মেই তার সমান সহান্ৃভৃতি ; তিনি নিষ্ষলঙ্ব, 
নিষ্পাপ, নির্ভীক। বুঝতে বলগে তোমাদের যুবরাজকে-_ধর্ম্ের ওপর 
ধাঁর চক্ষু রক্তবর্ণ, ঘুণিত। 

[ প্রস্থান । 

শিগ্জন। আচ্ছা যহাশয়রা প্রণাম হই | ককন তাহ'লে এ মতই 7 

মামি তবে ক্লে খালাস। 
| প্রস্থান! 

মাজী। বাপু হে, কোথাকার একটা ছেঁড়া লেটা নিয়ে এসে 
রাজাটায় আগুন লাগালে বটে। নাও, কর এইবার অহিংসা-ধন্ম 
প্রচার? 

কাশ্তপ। করবো বই কি মানব! তুমি কি বুঝে নিলে তোমাদের 
যুবরাজের কুদ্ধ-গর্জনে অহিংসা-ধর্ম স্তস্ভিত, মুক হয়ে থাকবে ? যুবরাজ 
শীঠ্কে শীসন কর্তে পারেন, কুসংস্কারকে শৃঙ্খলিত কর্তে পারেন, 


জা জ্তম্ণপত | ১ম অঙ্ক; 


মিথ্যার প্রাণদণ্ড দিতে পারেন-_-সতোর মুখে হাত চাপা দেবার কি সাধ্য 
তার? আগুন লাগলো দেশে? লাগুক-_একটা অগ্নিদাহেরই বিশ্ব 
প্রয়োজন আজ এ দেশে; এই অগ্নিকাগডই মহাপ্লাবন নিয়ে আসবে! 
যুবরাজের এই বিভীষিকা _-অজঠিংসাধম্মের ওপর অশ্রদ্ধা নয়__অশ্রদ্ধার 
আকারে সাদর 'আহ্বান, পরম অভার্থনা। কর তুমি প্রশ্ন ইচ্ছামত, 
দেখাই তোমার অহিংসা-ধন্মের স্বরূপমূর্ি, দেখাই__-ভগবান বুদ্ধদেবের 
অনস্ত করুণা । 

'আজী। রগ্ষা কর বাঁবা, ও আর আমার দেখাতে হবে না, তুমি 
দেখ ছে1 তৃমিই দেখ। প্রশ্নের জন্য পাচ্ছ, আমি আর প্রশ্ন করবো না: 
প্রশ্নটা যুবরাজ আমাদের করলেন ঝলে। জয় হোক্‌ যুবরাজের | 

| প্রস্তান। 

কাশ্রুপ। [ আপন ভাবে ] দস্তা পো মানলে, ব্রাঙ্গণ বশে এলোনা । 

পাণ্ডিত)াভিমানটা দেখছি নর-হত্যার চেয়েও ! প্রচার কর মদগালি, 
অহিংসা-ধন্ম | 


€26 
ঙ্ 





[ প্রস্থান ' 
মদগাঁলি 1 [ পুর্ব গীতাঁংশ ] 
মিথায় কেন জীব প্রঠাবিত রুদ্ধ, 
এস রে আদরে ডাকে দয়াময় খুদ্ধ ; 
ভীষণ এ রণ ভূমি-_জীবন যুদ্ধ 
পর [ন স্বার্থহীন সতোর বর্শা । 
[ প্রস্থান । 


ততীম্ত্র গর্ডাক্ক। 


প্রমোদ ভবন। 


অজা'তশক্র একাকী পাদচারণ1 করাতেছিলেন । 

অজাত | বন্ম_ পর্ম--বম্ম+_এ ছাঁডা আর ভাপগতবর্ষটাস্গ নখে 
কগা নাই। বেদ, পিজ্ঞান, গণিত, কোতিষ, কল কগেই তালে 
বিভিন্ন ত| মা্--বরাঁগিণী সেই এক ধশ্ম। প্রথম প্রভাতেই দেখি -দ্বাণে 
অগস্তা, বশিষ্ট_ধন্মের একতারা, খঞ্জনী নিয়ে; অবাক শ্রীরষ্জ -তাণ 
করে পন্মের পাঞ্চচন্য : এাাঙ্ছে কুষ্-দ্বেপ।দন _্টীবক জীবনের চরম 
শিল্প এ ধন্মের প্রেমষচিত্র; আজ মাবার পর্শাবিপ্লবের শিখাগ-অন্ধকারে 
ধন্মের আঁকাঁশ-প্রদীপ নিয়ে শাকাসিংহ । বা-ভাবতবর্ষটা পন্য 
স্থন্দর পণ্যশালা। মারে মলোধন্ম কেন। মনম্থ উদার জীবনমথ 
জন্মটাকে গণ্ডীর মধো ফেলে ছেখট করা! পরকালের জন্য £ কি প্রমাণ 
পরকালের? কে জোর গলায় বল্তে পাঁরে পুনজন্মি আছেই 'আঁছে ! 
ধন ন্ম নাই | পর্শামাবার কি? জালিরাতি ; কতকগুলো ফন্দীবাজ 
লোকের নিজেদের জাহির করবার মতলব ! ন্তা নইলে এত মাথাব্যথা 
তাদের কিসের ! জগতের উদ্ধারে ? কেন, জগতে হুর্য ওঠে না? জগতে 
বাধু বয় না? জগতে সে জল আর নাই ? কি পতনট! ঘটেছে জগতের-- 
স্থখের উচ্চ শঙ্গ হতে চূঃখের নিম্ন কুপে- যার জন্য তাঁদের এমন "আভখ্র 
নিদ্রা তাগ! লালসা! কামনার উপদ্রব নিবারণ ? মূর্খতা! কি এসে 
গেছে তাতে ? লালপা] কামনার অধীন হরেই বা কি--মআর লালসা-জয়ী 
নিফাম হয়েই বা কি? ফুল পূজার জন্যই ফুটুক, আর প্রমোদের ন্যাট 


০৯ 


অবভজা ভি শতহ [১ম অঙ্ক; 


ফুট্রক, _শৌন্দর্যা একই, সৌগন্ধ একই, শুকোবেও সেই এক নির্দিষ্ট 
সময়েই,__তার "আবার উপদ্রব ? আর তাই যদি হয়__সে উপদ্রব নিবারণ 
করবে কে? ধর্ম? ধর্মের বন্ধনে শৃঙ্খলিত হবে অনন্ত লালপা-মুখী 
মানুষ জাত । কি প্রতারণা 1 আগ্নেয়-পর্বতের মুখ রুদ্ধ রাখতে গেলে__ 
থাকে ? উদগীরণ সে করবেই, অধিকস্ত ভূমিকম্প আন্বে। মূর্খ এই 
ভারতবর্ষ, পর্মের নামে নেচেই আছে ; বিচার নাই, বিবেচনা নাই, র্ধম 
_ধন্্ম। পর্শাই তো অপম্মকে জাগিয়ে দেয়! যুধিষ্িরকে স্মরণ 
করতে গেলে হর্য্যোধন 'মাসবে নী? না_আমি এর পা ভেঙ্গে দেব; 
একে হাঁডে ভাডে বুঝিয়ে দেব_ধশ্ম অধন্মের হন্তা নর, পাপের বীজ; 
শান্তি শরঙ্খলার জন্মদাতা নধ__হিংসাঁ, বিদ্বেষ, কলহ, অশান্তির পোষ্য- 
পুত্র, জীহ্বী-প্রবাহের ব্রহ্গ-কমণ্ডল নয় : রক্ত-গঙ্গীর গোমুখা ' [ আসন 
গণ করিলেন | ] 


গীতক্ঠে নর্তকীগণ উপস্থিত হইল। 
নর্ভকীগণ__ 


গীত । 
ভোগ কর বধু ভোগ কর। 
কেন আকা-বাক! আন্পথে ধাও - প্রাণে প্রাণে প্রেম যোগ কর। 
বধূ, যৌবন তপোবন, 
বধু, বক্ষিম আখি যোগের তন্ম প্রকৃতির প্রণয়ন : 
শিহরণ কুচ-কমল পরশ, 
চুম্বন বধু মহাসমাধি, অধর ুধ। ত্রক্ম।নন্দ রস; 
বধূ নির্বাণ রতি রঙ্গ 
তথা বিলীন সব তরঙ্গ ; 
বধু, জাগ্রত দেব অনঙ্গ -- 
তাঁর আরতির উদ্ভোগ কর। 


2য় গভাঙ্ক। ] অজাতস্পভ্রুস 


অজাত ) মন্দ নয়!" ভাব আছে তোদের গানে । আর একখানা গা। 
নর্তকীগণ [লি গীত ! 
মধু হতে মধুরের তালিক!। 
কে আছ রে মধুকব, কব রস সন্ধান 
ফুটে অ।ছে থরে গবে বুন্দ শেফালিকা। 
সুমধুর পরকায! ' প্রম 
ল(জে অনুরাগে মাথা, চকিতে চুরীর (দেখ। 
লে পিরীন্তি নিকষ হেম ; 
অভিসার-গমন মধুর অতি মন্থর 
মধুর সে তামসী রাতি, 
মধুব মিলিত-বৃকে মানিনীর গণ্জন। 
ছিছি যাও- লম্পট নাগব জাতি $-- 
মধুর শিলয় শুধু নারী-মুখ-পক্কজ 
যুবন্তী যতেক মধুর মালিক, 
সব সে মধুরতম, কহে কবি কাঁম-দাস 
অজ্ঞাত-যৌবনা-বাঁলিক1। 
অজাত | আচ্ছা, তোরা ধন্দ্ম মানিস ? বোধ হয়না ? 
নর্তকী । সেকি যুবরাজ! আমরা র্্ম মানি না? দিন রাত্রি যার 
ধবজা ওড়াচ্ছি-_ 
আজাত 1) আচ্ডাঁ[ তুষ্টির হাঁসি হাসিয়া গাত্রোরান করিলেন ] 
নর্ভকীগণ অভিবাদন করিরা চলিয়া! গেল । 
সাবধান ধন্ম ! সাবধান ধন্পাগল ভারতবর্ষ । সাবধান ধর্মসষ্টা, ধন 
প্রচারক ! | গমনোগ্যত ] 


শিগ্ুন আসিয়! অভিবাদন করিল । 
কি? 


৯১ 


অভজাক্তস্ণত্রও [১ম অঙ্ক; 


শিঞ্জন। মহারাজ বিম্বাসাঁর গ্রাতিবাদী | 

'অজাত। শুনি? 

শিক্জন। স্বাদীনভাবে সকলেই ধর্পুচ্চা করতে পাবে, তর্ক যুক্তির 
দ্বারা এক ধর্মী অন্য পম্মীকে নিজের মতে দীক্ষিত কর্তে পাবে, ধন্ম- 
সম্বন্ধে রাঁজ-শক্ক্ির বিন্দুমাত্র দীবী নাই-_-এই আজকার ঘোষণ! । 

'আঙাত | [ম্বগভ] পিতা কন্মীবনের প্রথম ঝাঁপেই পিতা । [ক্ষণেক 
চিন্তা করিয়া]! দঢ়ভাবে ] দেব ঝাঁপ। কর্ম রাজো পিতার যে অধিকার, 
'আামারও তাই। মামার জন্ম দিয়েছেন__এর তিনি প্রতিদান চান নাকি ? 
চাইলে পান না, জগতে শিক্ষাম তত্ব সদি কিছু থাকেত স্থঙটি তত্ব। 
আর যদিই পান--সে কত দূর 2 তার দেওয়া এই জন্মটা পর্য্যন্ত; আমার 
কশ্ধে হাত দেবার তিনি কে? প্রহলাঁদকে ভিরণ্যকশ্িপু হস্তী-পদতলে 
দিয়েছিল-_-কথা কর নাই, কিন্তু হরিনাম ছাঁডতে বলেছিল_ ছাড়ে নাই । 
তিনি আমার জীবন চান-_-দেব; কিন্তু আমায় আওতায় ফেলে রাখতে 
গেলে মানবো না। শিঞ্জন। তুমিও বাঁও, ঘোষণা ক+রে দাঁও__ঠিক এ 
ঘোষণার বিপরীত--বন্ম সম্বন্ধে রাজ-শক্তির প্রধান দাবী; ধর্শোর নাম 
থে মুখে আনবে--রাজীদেশে তার__ তার কঠিন দণ্ড । 

শিঞ্জন | কিস্তব_ 

'আজীত। বল-_ 

শিঞ্জন। রাজা ত আপনার এ পিতা ? 

অজাত | রাজা আমি_ রাজা আমি, মগধের রাজ! বিশ্বাসার নন__ 
মগপেব রাজা অজাতশক্র | 

| প্রস্কান। 
শিঞ্জন। ছিলাম যুবরাজের গুপ্ুচর, হলাম মহারাজের প্রকাশ্য দূত। 
| প্রস্থান 


১৩. 


চতুর্থ গর্ভাক্ক। 
আশ্রম । 
পেবানন্দ ও সনাতনা দাঁড়াইয়াছিল। 

সেবানন্দ। শ্রীমস্ভাগবতের শ্যষ্ঠি কি প্রকারে হলো জান সনাতনী? 
অন্তুদ ভাব! শোন। একদা-কিনা একসময়ে, মহধি কষ্ক-দ্বৈপায়ন__ 
কিনী বেদব্যাস, সরস্বতী তীরে অর্থাৎ সরস্বতী নদীর ধারে__একাকী 
গভীর চিন্তার শিমগ্ন আছেন__ডুবে আচ্ছেন ? চিন্তার কি? চিন্তাটা ভচ্ছে 
এই-_আজীবন এত শাস্ত্র আলোচনা কর্লাম, এত গ্রন্থ রচন] কর্লাখ-- 
_অর্থাৎ বেদাস্থাদি,_কিন্তু করলাম কি? শান্তি পেলাম কই? জীবের 
গতি ত হলো না__এই চিন্তা | ইতাবপরে-_ঠিক্‌ এই সময়ে, দেবর্ষি নারদ-_ 
আ হাহ [| ভাবাবিষ্ট হইল | 

সনাতনী । [ অশ্র-সিক্ত প্রেম গদ-গদ দার্ঘখ্বাসে |] জয় রাধে 

পেবানন্দ । শ্রীভগবাশের প্রির শিষ্য দেবর্ধি নারদ, স্বমং-_নিজে, 
সখরীরে-মুভিমীন হয়ে সম্মুখে সমুপন্থিত । ভো মহর্ষে ! বল্লেন__ে 
খাঁববর! শাস্তি পাবেন কোথায়? জীবন তবৃথা অপব্যর করেছেন-__ 
অর্থাৎ বাজে নষ্ট করেছেন- অর্থাৎ কর্ম-পথে, জ্ঞান-পথে শান্তি নাই। 
ণান্তি চান-_ভক্তি গ্রন্থ রচনা করুন; জীবের গতি হবে-_জীবকে প্রেম- 
তত্ব শিক্ষা দ্েনে। হরি হরি_হরি। 

সনাতনী । [ পুর্ব্ভাবে ] প্রেমময়ী ব্রজেশ্বরী__ 

সেবানন্দ। এই কথা শ্রবণ করেই ভগবান ব্যাসদেব__এই সুমধুর 


উন 


আজা ভপ্পত্ত | ১ম অঙ্ক; 


ভক্তিগ্রন্থ_এই ভব-ব্যাধির মহৌষধি দ্বাদশস্কপ্ধ শ্রীমন্তাগকত পচনা 
কর্লেন। একি যাঁতা কথা, সনাতনী ! 

সনাতনী | [ পুর্বভাবে ] রাধ শ্তাম__ 

সেবানন্দ। কিন্ত সনাতনী, এমন যে গ্রন্থ শ্রীমন্তাগবত-_তার রসা- 
স্বাদন করছে না পাতকী জীব! বাদের জন্ত স্ট্টি--তারাই রইলো বঞ্চিত, 
_-একি কম ছুঃখ, কম পরিতাপ ! ও হো_হো 

সনাতনী । [ পূর্ববভাবে ] গোবিন্দ হে প্রাণবল্লভ-_ 

সেবানন্দ। সনাতনী! তৃমি এ যুগের নও! এত প্রেম, এমন 
কষ্ণান্ুরাগ, এরূপ ভগবন্মাহাত্ম্য উপলব্ধি এ যুগে কখনও সম্ভব । তুমি 
শীপত্রষ্টী। গাঁও সনাতনী ভাগবত গীত,_তোমাঁর মধুর কণ্ঠে কৃষ্ণ-প্রাম- 
তত্ব শুনি, তোমার অঙ্গ ভঙ্গিমার রাসলীলা! প্রত্যক্ষ করি) তোমার মধুর 
হাস্যে, মধুর কটাক্ষে, সেবানন্দ আমি__প্রেমানন্দে মেতে চাই । 

সনাতনী |-_ 

গীত। 


বিহরে ওরে রসিক রাজ  গোকুলচন্দ বিপিন মাঝ 

কুপ্র কেশর পু উজর জলদ রুচির কাতিয়া। 
কোঁটীকাম রূপ ধাম ভূবন মোহন লাবণি ঠাম 

হেরত জগত যুবতী উমতি বৈঠে হৃদয় পাতিয়া। 
বিশ্ব অধরে মধুর হাসি, বমই কতই অমিয় রাশি, 

সুধই সিষ্কু শিকর নিঝর বচন রচন ভাতিয়।__ 
মধুর বরজ নীলিম কুপ্ত, মধুর গোপিনী পিরীতি পুষ্ 

মসোঙরি সোঙরি আধক অবশ, মুগ্ধ দিবস রাতিয়! | 
ভাবে অবশ অলস ধন্ধ চলত নটত খলত মন্দ 

পতিত কোর পড়ত ভোর নিবিড় আনন্দে মাতিয়া-_ 
ব।কা নয়নে কুটাল চাই সঘনে জপয়ে রাই রাই 

নটত উন্মত লুটই ভ্রম ফুটই মরত ছাতিয়া!। 

১৪ 


৪র্থ গর্ভাঙ্ক | ] অভ্গাভশত্র 


সেবানন্দ। [ তদগতচিত্তে] রুষ্চ হে-_করুণাসিন্ধু! সনাতনী । 
'আজ আমি তোমাদের এই শ্রীমন্তাগবতের দশমস্কন্ধের সারাংশ রাস 
লীলাটী বিশদ ভাবে বোঝাঁব। শ্রীকৃষ্ণের বংশীধ্বনি কি__কোথা হতে 
উঠছে--কেমন করে গোপিনীরা তাদের পতি-পিতাদের বঞ্চনা করে 
রাঁসস্থলে উপস্থিত হচ্ছে__-আজ তার প্রকৃত তথ্য, যথার্থ ভাব, তোমাদের 
প্রাণে প্রাণে উপলব্ধি করাব। তোমার সখীদের সকলকে মাহ্বান ক”রে 
এসেছ ত ? 

সনাতনী । হা প্রভু! এ বুঝি আস্ছে সব। 

জনৈক] নাগরিকা উপস্থিত হইল । 

নাগরিক! । প্রভু গো! পেন্নাম হই। 

সেবানন্দ। এস-_এস, আর সব কই? 

নাগরিকা। আর সব আসবে কি প্রভূ! রাজা নাকি টেডপা 
দিরেছে__যে ধন্ম কম্ম কর্বে, তাঁকে শূলে দেওয়! হবে | 

সেবানন্দ। বটে! রাঁজা এরূপ ঘোষণা করেছেন! কেউ ধন্ম 
চঙ্চা কর্তে পাবেনা! সম্ভব ভাগবত-ধর্ম ছাঁড়া-কি বল সনীতনী ? 
আর তাই যদি না ই হয়__-তাতে এদের ভয়? গোঁপিনীদের কিরূপ ভর 
প্রদর্শন কর! হয়েছিল, তাদের প্রতি কত অবৈধ অত্যাচার পর্য্যন্ত 5+য়েছিল 
_তাতেও তারা কিরূপ দৃঢ়, তাকি এর! জানে না? এঃ লজ্জা 
ভয় থাকৃতে যে কৃষ্ণ ভজনা হবার নয়! তুমি যাও সখি, ডাঁক সকলকে 
সাহস দিয়ে-_আমি আজ দশমস্কন্ধের সারাংশটী বেশ কঃরে বুঝিয়ে দিই-_ 
'আর কোন ভয় থাকবে না। 


কাশ্যপ উপস্থিত হইলেন। 


কাশ্তপ। তোমার দশমক্ন্ধ আমি একটু বুঝ.তে চাই, ভাগবত-ধর্মী ! 
১৫ 


অজক্কীোভিস্ণঅত ]১মআঅন্ক; 


সেবানন্দ। [উল্লাসে ] কৃষ্ণ হে-_করুণাময় ! কে তুমি ভক্ত? কি 
নাম তোমার ? 
কাশ্তপ | আমি অহিংসা-ধন্মী, নাম__কাগ্রপ | 


শিপন উপস্থিত হইলেন । 


শিঞ্জন। মহাশর বে দেখছি সকল ঘটেই? 

কাশ্যশ | ই রাজপুরুষ । জর্ধ-ঘটেই আমি। বৈদিকের যজ্জ্-কুণ্ড. 
ভাগবতের প্রেম-বাসর- দস্ুর হত্যাক্ষেত্র, লম্পটের কেলি-কুটার, সর্বত্রই 
আজ নিফাম অহিংসা-ধর্ম | 

শিঞ্জন। বুঝেছি; মহাশয়ের এতদূর ছুঃসাহসের কারণ-মগধের 
রাজ। বিঘবাসার ; বোধ হয় জানেন না বিম্বাপার আর মগধের রাজা নন, 
মগধের রাজা বর্তমানে অজাতশক্র ? 

কাম্তপ | দীর্ঘাঘু হো”ন অজাতশক্র | তাতে আমার কি ক্ষতি বৃদ্ধি, 
রা্গপুরুষ ? 

শিঞ্পন। তার আদেশ ত জানেন-ধন্ম নিয়ে কেউ চর্চা করতে 
পাবে না? 

কাশ্তপ। এটা তার নিতান্ত অনধিকাঁর চচ্চা হচ্ছে যে, রাজপুরুষ। 

শিঞ্জন। অনধিকার চর্চা ! 

কাশ্তপ। অন্য সর্ব বিষয়ে শীসন- রাজা তিনি-_তার ক্ষমতাধীন ; 
কিন্তু ধর্মের ওপর হস্তার্পণ_-তীর অধিকারের বহিভূর্ত | 

শিপন । অধিকার অনধিকাঁর পরের কথা; এখন আপনি রাজাজ্ঞা 
মান্তে চাঁন কি না? 

কাশ্তপ। আমি খবির আজ্ঞা মাথায় নিয়ে এসেছি, রাজপুরুষ ! 

শিঞ্জন। খধি রক্ষা! করতে আস্বে ত? 


১৬ 


নর্থ গর্ভাঙ্ক |] আম ভাতার 


কাশ্প ৷ খধি-আজ্ঞা প্রতিপালনে মানবের এমন কোন হিপ 
মাস্তে পারে না-_যার উদ্ধারে খাষিকে স্বয়ং উপস্থিত হতে হবে । 
শিঞ্জন। যদি এই মুহুর্তে বন্দী করি? 


টক্কার উপস্থিত হইল । 


টক্কার। কি সাধ্য তোমার- ছায়া স্পর্শ কর। 
শিঞ্জন। হাহাহা) ঘুম থেকে উঠে এলে বুঝি ? সংবাদ বোঁধ 
হয় রাখ না কিছু? 
টক্কার। সংবাদ স্বাবার কি? 
শিঞ্জন। যাক্‌--তোমার বাহাছ্ুরীই থাক, উপস্থিত আমার প্রন্তি 
স্রেপ কোন আদেশ নাই । [কাশ্তপের প্রতি ] মহাশয়! ধর্ম মিয়ে 
গণ্ডগোল কর্বেন না, আপনাকে পুনরার সতর্ক করে যাচ্ছি ; এই দ্বিতীয়, 
বার__আর এই শেষবার । 
| গমনোছাত |] 
টক্কার। [ বাঁধা দিয় ] সংবাঁদটা কি বলে যাও। 
শিঞজন। সংবাদ আর কি-_যার তাপে তপ্ত হ/য়ে-_বালুকণা তুমি__ 
পৃথিবী-খানায় বিনা আগুনে পোড়াব মনে করেছ, সে হ্র্য্য তোমার, 
মেঘাবৃত; ঠাণ্ডা হও । 
| গমনোদ্যত ] 
টঙ্কার। [ সবিম্মরে ] সূর্য্য মেঘাবৃত ! 
শিঞ্জন। ঠাণ্ডা হও | 
[গুস্ান।। 
টঙ্সার। [ উদ্দেশে ] তাহলে তুমিও বুঝে চল, শিঞ্চন ! সুর্য মেল, 
১৭ 
অ-_-২ 


তনজাতিস্শপ্র [ ১ম অঙ্ক; 


ঢাকা কখনই থাকে না, থাকবে না) আর মেঘমুস্ত রবি--আরও 
প্রখর | 
[ প্রস্থান । 
কাশপ। তোমার দশমস্কন্ধ খোল, ভাগবত-ধর্মী ! দেখি--তোমাদের 
ভগবান ব্যাসদেবের গবেবণা ; বুঝি-_রাধাকৃষ্কের প্রেমতত্ব | 
সেবানন্দ। বুঝতে পার্বে না বৌদ্ধ, কিছু বুঝতে পার্ৰে না 
তুমি ; এ তত্ব-_জটিল, হাস্যাম্পদ, লাম্পট্য বোধ হবে তোমার। তুমিত 
তর্ক করতে এসেছ ধন্ম নিয়ে? এ ধন্মশ তর্কের নয়; তর্কের লেশ 
থাকৃতে ভগবান ব্যাসদেবের ভাব রাজ্যে প্রবেশীধিকার নাই। যাও 
জ্ঞানী, আরও কিছুদিন তর্ক করগে ধর্ম সম্বন্ধে জ্ঞানের বিচার দ্বারা” 
বিশ্বাস গাঢ় হয়ে এলে__-তার পর এস আমাদের দশমস্কন্ধ দেখতে 
এস সনাতনী, এস সখি কুটারে। ভগবান- প্রেমময়-_ 
[ উভয়কে লইয়। গ্রস্থান। 
কাশ্তপ। কি অমূলক কল্পনাই চলেছে জগতটায়! তর্ক নাই, 
বিচার নাই__কেবল অন্ধ-বিশ্বাস! প্রত্যক্ষে পদাঘাত করে অনিদ্দিষ্টের 
পশ্চান্ধাবন! সেবানন্দ! দেখালে না দশমস্কদ্ধ? দেখাবে কি? 
তোমার দশমস্কন্ধের সারাংশ ত- কৃষ্ণসেবা ? মানি-_-ডাতে আত্ম-প্রসাদ 
আছে? কিন্ত জশতের কি উপকার সে আত্ম-প্রসাদে? কি হবে 
জগতের-_ কৃষ্ণের কল্পিত পদে উদ্দেশে অশ্রু ঢেলে? তোমার কুষ্-সেবা 
ত দেখছি--প্রকারান্তরে নিজের সেবা, নিজের বিলাসিতা, নিজের 
স্বার্থ। জীবের সেবায় এস, সেবানন্দ! জগতের কাজ হবে, ম্মাত্ম- 
প্রসাদ ও অনন্ত। তোমার কৃষ্ণ-সেবায় কতটুকু আত্মগ্রসাদ ? পরার্থে 
প্রাণ উৎসর্গ-_সকল আত্মপ্রসাদ এ আত্মপ্রসাদের নিম্নে, এর তুলনায় 
নিষ্ধাম এ জগতে নাই; আর এই মানবের প্রকৃত ধম | [ প্রস্থান । 
৯১৮ 


১৪৯ 


উভয়ে । 


নারা। 


পুরুষ। 


নাখা। 


পুরুষ । 
নারী। 
পুকষ | 
নারী । 
পুরুষ । 
নারী। 
পুরুব। 
উভয়ে । 


স্পহওস্ম গঙ্ভাক্ | 


গৃহাশ্রম ৷ 
সংসার দম্পতী। 


ংসার-ধর্মী আমরা পুরুষ নারী। 
আমদের ধশ্মকথা আমরাও কেন পাড়ত্েে ছাড়ি । 
প্রথমে প্রভাত লাল। ;-- 
আমি হাই তুলি আর গোবর গুলি 
ট'লে ট'লে লাগ'উ ছড়া ঝট, 
আম ভাবি প'ড়ে পডে-ফক্কা ষে আজ গাঁট; 
তারপর আমার বাসন ধোওয়া 
ম্মামারও ফের পাল্টে শোওয়। 
তারপরে দিই প্রাণেশ্বরে মুন তেলের খবর 
অমনি আমার গায়ে আসেজ্বরের ওপরজ্বর; 
বলি--যাঁও গে। বাজার যাও. 
ওগেো--আজ বাজারে ঘোর হরতাল আমার মাথ। থাও ; 
ছি-_ছি লক্ষী ছাড়ার হাতে প'ড়ে লেগে গেল দিকদারি,_ 
ধনি, আমারও 'তাই-বিয়ের হীপায় করেছি কি ঝকমারি। 
ইতি -সংসার ধশ্মে আমাদের প্রভাত গাথা 


| প্রস্থান 


আষ্ট গভ্ডান্ক। 
মগধ-রাজসভা ! 
মন্ত্রী ও অভ্রনীল দ্বাড়াইয়াছিলেন। 

অভ্র। মন্ত্রী মহাশয়, এ কি? 

মন্ত্রী। কি সেনাপতি ? 

অভ্র। যুবরাজ আজ রাজ-সভার আহ্বান করেন--এর কারণ? 

মন্ত্রী! এর কারণ জানবার আমাদের আবশ্তক কি অভ্র? সভার 
আহ্বান কর্তেন মহারাজ-_না হয় করেছেন যুবরাজ ; আজ্ঞাবাহী ছিলাম 
িতার-_-হব পুভ্রের। 

অত্র। মন্ত্রী মহাশয়, আমি ম্পষ্ট জানতে চাই__আপনার মুখ দিয়ে-_ 
মহারাজ বিশ্বাসার কি আজ রাজাচ্যুত? 

মন্ত্রী। না--রাজ্যচ্যুত ঠিক নন__-তবে তাঁকে রাজকার্ধ্য হ'তে অবসর 
দেওয়। হচ্ছে। 

অভ্র। অবসর দেওয়া হচ্ছে? তিনি অবসর চান নি? তা”হ”লে 
আজকের এ সভ। সমাবেশের উদ্দেশ্ত--এই অবসর দেওয়াটা সর্বসম্মত, 
পাকা করা? মন্ত্রী হাশর ! আপনিও তা*হ+পে এর মধ্যে? 

মন্ত্রী। দোষ কি? 

অভ্র। যুববাজকে আমার অভিবাদন জানিয়ে বল্বেন- আমি এ 
ব্যাপারে নাই। 


[ গমনোগ্ত ] 
সক 


৬ষ্ঠ গ্াঙ্ক। [| অজাতশস্রু 
মন্ত্রী। শোন। 


[ অভ্রনীল ফিরিলেন | 

ন্ত্রী। তুমি কোন ব্যক্তি বিশেষের সেনাপতি-_না মগধ-সাম্রাজোর 
সেনাপতি? 

অভ্র। মগধ-সাআাজ্যেরই সেনাপতি ; তাতে কি? 

মন্ত্রী। সাম্রাজ্য ত সেই আছে-_ 

অভ্র। সাম্রাজ্য দেই আছে ঝলে-__ফিংহাসন যে অধিকার কর্বে-_ 
সাআ্াজ্যের সেনাপতি আমি-_অমনি তার পোষ! হব ? 

মন্ত্রী। হতে হবে সেনাপতি, এ ক্ষেত্রে। সিংহাঁসনট। অধিকার 
করেছেন কে--দেখ? রাজ্যভার গ্রহণ করতে আস্ছেন- রাজার একমাত্র 
পুত্র, ভাবী রাজ্যেশ্বর; ছৃদিন পরে আসতেন-_-ন। হয় আজই আসছেন; 
আনুন না_আপত্যি কি? অভ্র! এটা হচ্ছে এদের পিতা পুত্রের 
কথ! ; আমরা কেন পক্ষ অবলম্বন ক”রে কলঙ্কিত হই, আগুন জালাই ? 
ও পিতা পুত্রের যিনিই আসেন-_এস, আমরা সাদর অভ্যর্থনা! করি। 


টঙ্কার উপস্থিত হইল । 


টক্কার। তা কর্বেন বই কি, মন্ত্রী মহাশর ! আজ যুবরাজ আস্ছেন 
তাঁর অভার্থন করছেন, কাল তীর পুত্র আসবেন-__করপুটে অভ্যর্থনা 
কর্বেন ; দুদিন পরে আমি আস্ব__ আমিও পাব আপনার কাছে বিনা 
প্রতিবাদে সেই নতশির, সেই সাদর অভ্যর্থনা ;--সামাজ্যের মস্ত 
আপনি। সত্যই ত, মগধ-সাম্্রাজ্যের মন্্রীত্বট ত অভ্যর্থনারই যন্ত্র। 

মন্ত্রী। টহ্কার__ ৃ 

টঙ্কীর। থাক, কথা কইবেন ন! আর, মন্ত্রীত্ব করতে এসেছেন 
জগতে _ মন্ত্রীত্বই করুন। সেনাপতি! তুমি ত রাজনীতির ধার ধার' না, 
২১ 


তব তাজ্ঞ্শত্র [ ১ম অঙ্ক; 
তুমি সমর-ীতির উপাসক, _সরল, অবাধ, উনুস্ত তোমার জীবনের পথ । 
| তীত্রকণ্ঠে |] মহারাজ বিশ্বাপার অবরুদ্ধ ;_এখন তুমি কি কর্বে? 
মগধ-সাআজ্যের সেনাপতিত্বই করবে-_-না একবার ধর্মমরাজ্যের ভগ্র-তোরণে 
দু হ”য়ে দাড়াবে ? 

অন্র। মন্ত্রী মহাশয়। আপনি দুরদর্শী, মগধ-সামীজ্যের চির- 
ভিতাকাজ্জী, আমার স্বর্গীয় পিতা আপনার পরামর্শে এই রাজ্যে 
সেনাপতিত্বে স্থনাম নিয়ে গেছেন, __আপনার পরামর্শ ভুরভিসন্ধি বল্তে 
সাহস হয় না,_তবে আমি তার মধ্যে প্রবেশ অধিকার পেলুম না 
মার্জনা করবেন | মহারাজ বিশ্বাসার বন্দী-হোকৃু মগধের যুবরাজ, 
হোক্‌ আমার পক্ষপাত, আমি সেনাপতিত্ব করবো না বিদ্রোহ 
করবো ! 

ক্ষেমাদেবী উপস্থিত হইলেন। 


ক্ষেম। [ কণ্ঠহার খুলিয়] ] পুরস্কার নাও, সেনাপতি । 

অভ্র। পুরস্কার কি মা! আশীর্বাদ দাও। [প্রণাম করিলেন | 

ক্ষেমো। কি আশীর্বাদ চাও পুত্র? ব্রহ্মার পরমায়ু? স্বর্গের 
সম্পদ ? ইন্দ্র_পুত্র? 

অভ্র। না ম'! আশীর্বাদ কর--অবরুদ্ধ মহারাজকে মাথায় ক'রে 
এনে আবার যেন এই মগধসভায় বসাতে পাৰি ; আর কিছু না। 

ক্ষেমা। তা*হ*লে শুধু তাই নয়, অবরুদ্ধ মহারাজকে মুক্ত ক'রে 
মগধ-সিংহাসনে বসাঁও, আর পিতৃদ্রোহী অজাতশক্রর মুণ্ড এনে রাজপদে 
পূজা দাও । 

বেণুদেবী উপস্থিত হইলেন । 


বেধু। মা! 
২২ 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক | ] তজাতভিস্শতহ 


ক্ষেমী। এসে পড়েছ ? বেশী কিছু বলি নাই মা! 
তুমি না মহারাজের আদেশ জানাতে এলে সভায় ? 

ক্ষেমা। [ চমকিতা হইয়া] ও--সেনাপতি ! আশীর্ষাদ ফিরিয়ে 
নিলুম, বিদ্রোহ হবে না_মহাঁরাজের নিষেধ | তাঁর আদেশ- তার আজ্ঞা 
যেরূপ সম্মীনে প্রতিপালিত হয়েছে, শত্রুর ইচ্ছা! যেন সেইভাবেই পূর্ণ কর! 
হয়; তাঁকে যেমন অকপটে ভক্তি করে এসেছ তোমরা-_একে ঠিক সেই 
ওজনেই স্নেহের চক্ষে দেখো; তিনি যা পেয়ে এসেছেন এতদিন এই মগধ- 
রাঁজো-_-সমস্তই আজ এর প্রীপ্য। | বেণুর প্রতি | কেযন- হয়েছে ত 
বাছা? ভূল হয়ে গিয়েছিল আমার। 

বেগু। উচিত হয় নি মা! পাছে অপরের এই ভুল হয় 
বলে মহারাজ তোমায় পাঠালেন; সহধন্ষিণী তুমি-__-তোমারও 
ভুল? 

ক্ষেমা। হয় বাছা-হয়; উদয় যদি কখনও তোমার স্বাধীকে এই 
রকম অবরোধ করে, আর তোমার স্বামী তোমার দিয়ে বাজসভায় পুত্রকে 
এই রকম ক্ষমা ক'রে পাঠায়, দেখ বে__স্বামী-আজ্ঞা পালনে তোমারও 
ভল হুঃয়ে দাড়ায় কিনা। এর জন্ত আমি পাতিব্রতো পতিতা নই বেণু! 
এ পাপ--আমার মনের অগোচর । 

বেণু। অন্তঃপুরে চল। 

ক্ষেমা | [ ইতস্তত; করিতে করিতে | হা-এই যাই, তা যেতে হবে 
বইকি! চল, চল--যাচ্ছি আমি 

বেণু। সঙ্গেই এস নামা! এখানে আর অনর্থক দীড়িয়ে থেকে 
কি করবে? এস--[ হস্ত ধারণ ] 

ক্ষেমী। আ:-তা এত ব্যস্ত কেন? এলাম--একটু দাড়াই না! 
অস্তঃপুর হ'তে এখানটা আমার্র বেশ ঠাণ্ডা লাগছে । তুমি একটু আগেই 


৩ 


গবভীশষ্প [১ম অঙ্ক) 


বা গেলে। ভয় নাই, যাঁও-_ স্বামী নিয়ে সুখে রাজা কর গে; আমার 
আর ভুল হবে ন|। 

বেণু। খা! তোমার কি ধারণাঁ তুমি ভুল ক'রে আমার স্বামী 
নিয়ে রাজ্য করার সুখে কাটা দেবে__সেই ভয়ে আমি ছুটে এসেছি ? 
তোমায় সরিয়ে নিরে যাবার জন্য টানাটানি কর্ছি ? 

ক্ষেমা। না_তা কেন করবে? আমি স্বামীর আদেশ অমান্ত 
করে নারী-ধন্ম কলঙ্কিত কর্ছি-_তুমি একদিকে আমার ভ্রাতুপ্পুত্রী 
অন্যদিকে পুত্রবধু--তোমায় আমি হাতে করে বেণুদেবী করেছি-_-তোমার 
কাছে আজ আমার নারীর কর্তব্য শিখতে হবে--তাই ছুটে এসেছ 
আমার খড়ি-হ'তে দিতে । 

বেণু। সত্যই তাই; তা নাহলে তোমার বিদ্রোহে আমার ভ 
কর্বার কারণ ছিল না, মা! আমি শুধু তোমার পুত্রবধূ নই__ তোমার 
ভাই-বি-_একই বংশের । 

ক্ষেমা | [ উত্তেজিত হুইরা! অভ্রের পতি ] বিদ্রোহ কর, সেনাপতি ! 
আমি ভুল কর্বো নরকে যাব, এই ভাই-ঝিকে একবার দেখ বো তাহলে ! 

অভ্র। [ উত্তেজিত হইল ] 

বেু। সাবধান সেনাপতি ! বিদ্রোহের নাম মুখে এনো না। এ 
বিদ্রোহে--মহারাণীর আদেশ পালন ক”রে তাঁকে উচ্চে তোল হবে নী, 
ত্বার ম্বামী-আজ্ঞালজ্বন-পীপে প্রশ্রয় দিয়ে তাঁকে অধ:পতিতা করা 
হবে । 

অত্র। [ সঙ্কুচিত হইল] 

ক্ষেমা। [ঈষৎ চিন্তা করিয়া অদ্রের প্রতি ] মহারাজের আজ্ঞ 
পালনই সঙ্গত, সে নাপতি ! অজাতশত্রর অপরাধ নাই ; সে ভর্তী__সাক্ষাৎ 
টুরাঁধা-রূপির্ণী রাক্ষপী আমার এই ভা | ওঃ-_সপত্ধী পুত্রের সঙ্গে 


ন্‌ 


এষ্টঠ গর্ভাঙ্ক | ] অজা স্পঞ্জ 


ভবিষ্যতে আমার না হয় বলে, মহারাজের অসম্মতি সত্বেও আমি জোর 
ক'রে এই পাপকে এসংসারে ঢুকিয়ে ছিলাম | 
| কপালে করাঘাত ও প্রস্থান 
বেণু। ভাল কর নাই মা! কপালে ঘা মার্লে কি হবে? সপত্বী- 
পুত্রকে স্নেহের পাশে বাঁধতে না পেরে ভাইঝির ফাসে গেরো দিতে 
গেলে; সে গেরো টেকে? টেকে না) টেক! উচিতও নয় । 
প্রস্থান! 
অদূরে অক্কাতশত্র আসিতেছিলেন । 
টক্কার। মহারাজ আসছেন-_ মন্ত্রী মহাশয়-__মহারাজ আসছেন 
আপনাদের ১ অভ্যর্থনা করুন, সাম্রাজ্যের মন্ত্রী আপনি । 
অজাতশক্র উপস্থিত হইলেন। 
অজাত | আমি আজ মগধ্ের সিংহাসন গ্রহণ করতে এসেছি, 
রাজকর্শ্চারীগণ ! 
মন্ত্রী। আম্থন__আন্গুন, মগধের আনন্দের দিন আজ; দিংহাসন 
সঙ্জিত। 
অজাত। আপত্তি আছে কারও ? 
ম্ত্রী। কিছু ন।। কিসের আপত্তি? যুবরাজগণই চিরদিন মহারাজ 
হ'য়ে আসছেন,_শুধু মগধে নর-_সমস্ত জগতে । আমি আপনার সিংহাসন 
গ্রহণ-প্রস্তাব সম্পূর্ণ সমর্থন করি! 
অজাত। সেনাপতি ? 
অভ্র। আপত্তি নাই; আপত্তি উত্থাপন কর! মহারাজ বিশ্বাসারের 
নিষেধ । 
অজাত। উত্তম। [সিংহাসনে উপবেশনোগ্ভত হইলেন ] 


টক্কার। আমার আছে। 
২৫ 


তনভাাভিস্তত | ১ম অঙ্ক; 


অজাত। তুমিকে? 

টঙ্কার। আমি মহারাজ বিদ্বাসারের দাস। 

অজাভ। [ ঈবৎ চিন্তা করিয়া] কি তোমার আপত্তি? তুমি ত 
বল্বে-_পিতা৷ বর্তমানে, পিতায় অবরোধ করে রাজসিংহাঁসন গ্রহণ ? 
ধন্মের জন্য | 

টক্গার | ধন্বের জন্য ? 

অজাত। ধর্থ্ের জন্য অর্থে -ধন্ম সঞ্চয়ের জন্য নর, ধন্মে প্রশ্রর 
দেওয়ার জন্য ; মগধের গণ্তী হ”তে ধর্মের গলা ধাক্ক! দেবার জন্ত | 

টক্কার। ও-_তা! হলে মহারাঁজ অবরুদ্ধ হবেন বই কি; ধর্াধম্ম 
নাই । 

অজাত। ধর্মীধর্দ আছে ;_ বেছে দিতে পাঁর__কোন্ট! ধর্ম, আর 
কোন্টা অধর? কে শ্রেষ্ঠ_কে নিকৃষ্ট? কার মুন্তি সৌমা-_কার 
আকৃতি বীভৎস ? 

ট্কার। রামায়ণ পড়েছেন ? 

অজাত | পড়েছি। রাম পিতৃসত্য পালনে বনবাসী হয়েছিল__ 
আর রাবণ বিশ্বশ্রবা ব্রাহ্মণের পুত্র হ"য়ে রাক্ষস হয়েছিল; এইত 
তোমাঁর-_“রামায়ণ পড়েছেন”-_প্রশ্বের উদ্দেন্ত এখানে ? এতে ধর্মমীধর্মের 
নিষ্পত্তি কই? রাম ধর্ম, রাবণ অধর? কিসে? রামের পিতৃসত্য পালনের 
পরিণাম-_পুত্রশৌকে মন্তারাঁজ দশরথের মৃত: রামের এ পিতৃসত্য 
পালন-_না পিতৃহতা।? আর রাবণ__দেখ তার পিতৃধম্ম দণ্ড কমগলু 
দীন হীনত! পরিত্যাগের পরিণাম-_দেবত-পূজ্য দিপ্থিঙ্য়ী রাজ1। 

টঙ্কার। তারপর? এই দেবতা-পুজ্য দিস্থিজয়ী রাজা এই পিতৃহস্ত। 
অধম রামের হাতে কেমন সবংশে ধ্বংস হয়ে গেল, সে বিচারটাও 
করুন৷ 


২৬, 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক |] তজাভস্পজজ 


অজাত ! ধ্বংস- কার ন! হয়? চিরস্থায়ী জগতে কে? রাবণ 
সবংশে ধ্বংস হয়েছে-_তোমার রাম কই? রাবণ ত তবু ধ্বংস হয়েছে 
সবংশে যুদ্ধ করে বীরের মত রণস্থলে ; তোমার রামায়ণ সাঙ্গ হয়েছে যে 
চার ভাইয়ে সরদূর জলে ঝাঁপ দিয়ে-_আত্মহত্যা ক'রে । 

টকঙ্কার। [ উদ্দেশে] মহারাজ বিশ্বানার ! তোমার এদশা হবে নাত 
হবে কার? তুমি নিজে মহাপ্রাণ পরম-জ্ঞানী যোগী হলে কি হবে 
তুমি নিশ্চয় নিকষা বিবাহ করেছিলে; নিজে ত তুমি নির্বিকার, জগতটায় 
যে মজালে ! অজাতশক্র ! অভিমাঁনান্ধ ! রাম রাবণে সমান ! রাম নাই__ 
রাম নাম এখনও মুখে মুখে ; অযোধ্যা! ধুলিসাৎ---অযোধার যাঁটী আজও 
পবিত্র তীর্থ । 

| প্রস্থান । 

অজাত | সেট! কুর্ববল-চিত্ত, ধন্্ান্ধ, পরমুখাপেক্ষী, ক্ষুদ্র সাধারণের ; 
আত্মনির্ভর রাজাদের নয়। রাজাদের লক্ষ্য-_চির-বসস্ত-প্রফুল্লিত স্বর্চূড়া 
লঙ্কা; রাজাদের অন্থুকরণীর-__ব্রিভুবন-বিজেতা, রাজনীতি-বিশীরদ 
রাবণ। সভাসদগণ ! এখনও বিবেচনা! করুন ; সিংহাসন দিচ্ছেন আমায় 
বিন1 বাধায় ; আমার ধর্মাধন্ম নাই__আমি রাজা হ'তে চাই। 

মন্ত্রী। রাজাই ত প্রয়োজন মহারাজ রাজসিংহীসনে | ধর্্মাধন্ম-_ 
তারা থাকবে পর্ণকুটারে, ভগ্ন-ভিক্ষা-পাত্রে, বদ্ধ-কুতাঞ্জলিপুটে । আমর! 
রাজাই চাই। 

অজাত। আপনারা সুযোগ্য, স্থৃবিচারী রাজকর্ম্চারী মগধের । 
রাজার আবার ধর্ম কি? রাজায় থাকবে কেবল নীতি, বিচার, সমদর্শিতা, 
শাসন, শৃঙ্খল | ধর্মের চরণে লুষ্টিত হবে- রাজশির ! দে রাজ! রাজাই 
নর, তার রাজ্যশাসন পক্ষপাঁতিত্বে বোঝাই । রাজশির থাকবে-_সকল 
শিরে সমান দৃষ্টি পড়ে এমন সর্বোচ্ে ; ধর্ম, অধর, পাপ, পুণা, শিন্দা, 


৭ 


অবঙজাীতিস্ণপ্র | ১ম অঙ্ক) 


প্রশংসা, ঘ্বণা, অর্চনা--সব একাকারে পস্ড়ে থাকবে তার সিংহাসন 
তলে। [ আসন গ্রহণ ] 
রাজণুকুট হন্তে- রাজপুরোহিত উপস্থিত হইলেন । 
পুরে/হিত।-_ 
গীত । 
জয় মহ।রাজ অজা-ত শক্রর জয় । 
কুল পুরোহিতের আজ-_জানিন। কিসের পরিচয়। 
মহারাজ বিশ্বাসার দিয়াছেন মগধ-তাঁজ 
বলেছেন ইচ্ছামত ক'রে যাও রাজ-কাজ ; 
করেছেন আশীর্বাদ, পাঁও জীবনের হ্বাদ, 
বিফল জনম তোমার কখনও হবার নয়। 
ধর বার শিরে এই মুকুট আশীষ ছুয়ে, 
এনেছি যতনে আমি, নয়নের জলে ধুয়ে, 
কন্ত হত কেপেছিল, কত প্রাণ কেদেছিল, 
এসেছি কঠিন আমি আশায় বেঁধে হাদয়। 
[ অজাতশক্রর মস্তকে মুকুট দিয়া প্রস্ঠান | 
উল্লাবেগে উদ্ধা আঙিয়। পড়িল । 
উন্ধ!। [ করতালি ও অট্রহান্তসহ ] হো_হোঁ-হোঠিক হরেছে, 
আমার শাপ হাড়ে হাড়ে ফলে গেছে । প্রমাণ পেয়েও ডাকাত খালাস 
দেয় সে রাজা কখনও সিংহাসনে থাঁকে ? তার ছাত। পুড়বে না? তার 
মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়বেই পড়বে | ঠিক হয়েছে--হোঁ_হো_ 
হোঁ-আমার শাপ ফ'লে গেছে। 
কলম্ব উপস্থিত হইল । 
কলম্ব। [ অজাতশক্রর প্রতি দৃঢ়ন্বরে ] কে তুমি? কে তুমি রাজ- 
সিংহাসনে ? 
২৮ 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক | ] তজাতশ্শত্র 


উদ্কা। স্বনাম-ধন্ত মহারাজ অজাতশক্র। 

কলঘ। নেমে এস, নেমে এস স্বনীম-ধন্ত-_ও পুণ্যাসন হ'তে । 

উক্কা। প্রণাম কর, প্রণাম কর আসন তলে ভূমিষ্ট হঃয়ে। 

কলম্ব। জন্মদীতায় আটক ক;রে গায়ের জোরে তার আসন জুড়ে 
বসা_-ডাকাতের ছেলে আমি-_আমারও ঘ্বণা আম্ছে তোমার দেখে ; 
নেমে এস | 

উক্কা। প্রমাণ পেয়েও ডাকাত ছেড়ে দেয়-_সে পিতাকে পদচ্যুত 
করার জন্ত-দহ্থ্যর কন্ঠা আমি_ পূজা দিচ্ছি সমস্ত জগতের হঃয়ে ; 
প্রণাম কর। 

কলম্ব। নেমে এস। 

উক্কা। প্রণাম কর। 

কলম্ব। নাও তবে দস্থ্যপুত্রের এই রাজপৃজা। 

[ অজাতশক্রর মন্তকে লাঠি তুলিল ] 

উদ্কা। [ অজাতশক্রকে অন্তরাল করিয় ছুরী ধরিয়া! ] এ রাজ-পুজায় 

অভীষ্ট বর এই দন্দ্যকন্তার হাতে । 


ধনু উপস্থিত হইয়া মধ্যস্থলে প্াড়াইল। 


ধন | অহিংস পরমো ধন্ম। 

অজীত। [ চমকিত হইয়া ] কে ! ধন্ুডাকাত ন৷ তুমি ? 

ধনু | না, ধন্দুডাকাত আর সংসারে নাই, তাকে বধ করেছেন 
মহারাজ বিশ্বাসার ;- অহিংস! পরমে! ধশ্ম 

অজাত। ধধ করেন নি-বধ করেন নি, সে দস্থ্যতা ছাড়িয়ে আর- 
এক নৃতন দন্থ্যতা ধরিয়েছেন ; সে দস্থ্যতা হতেও ভীষণ। সে দস্থ্যতা 


ক্ষণিক জীবনের উপর, এ দম্যৃতা। দীর্ঘ, অফুরন্ত, সুখের সারা জন্মের 
৪ 


তভশীভিশ্ণভ্র | ১ম অঙ্ক; 


উপর; এ দস্যুতার মার্জনা নাই। তোম।য় দণ্ড নিতে হবে-__[ অস্ত্র 
উন্মোচনোগ্ত | 
কাশ্যপ উপস্থিত হইলেন । 


কাশ্ঠপ । আগে আমায় দণ্ড দাঁও রাজা, এ দস্যুতার গুরু আমি । 

অজাত। ও--তুমিই বোদ্ধ-ধর্ম-প্রচারক কাশ্তপ ? 

কাশ্তপ। আমিই জগতের মঙ্গলকামী ভগবান বুদ্ধদেবের দাস। 

অজাত। তুমি দণ্ড নিতে এসেছ ? 

কাশ্তপ। শুধু তাই নয়, দেখাতে এসেছি তার সঙ্গে-_আমাদের 
এই উদার অহিংসী-ধন্মের নিষফাম একটু জ্যোতিঃ | 

অজাত। তোমায় বার বার নিষেধ করে দেওয়া হয়েছে-ধন্ম নিয়ে 


গণ্ডগোল কর্বে না? 
কাশ্তপ। হয়েছে ; তবে সে নিষেধের অর্থ আমি এই বুঝেছি-_মহারাজ 


অজাতশক্র ধর্ম দেখতে চান। 
অজাত | ধর্মের আবার দেখব কি? ধন্ম দেখা আমার হয়ে গেছে; 
ধর্ম নাই। 


কাশ্তপ | দেখ হয় নাই রাজা! ধন্ম আছে। 

অজাত। চুপ কর, তর্ক ক'র না, তর্কের চুড়ান্ত হ'য়ে গেছে । 

কাশ্তপ। চুড়ান্ত হ”য়ে গেছে--তর্কের! কার সঙ্গে তর্ক হ'ল রাজা ? 

অজীত। মনের সঙ্গে ; মনের তুল্য তাকিক আর জগতে নাই । 

কাশ্তপ । মানি; কিন্তু জিজ্ঞাসা করি--মন কি তোমার এই 
ববীমাংসায় সন্তুষ্ট হয়েছে? পরাজর মেনেছে নত মস্তকে? স্বীকার 
করেছে স্পষ্ট--ধর্্ নাই-_এর উপর আর তার বল্বার কিছু নাই ? হয়ত সে 
ীরব হয়েছে, হয়ত আর তার ভাষ! যোগায় নাই, হয়ত তোমার আস্ুরিক 


ও 


৬ষ্ট গরভাঙ্ক | ] অজাতিম্পজ্ 
ক্রোধ, উক্কাপিগ্ড নেত্র, কুটাল দগ্ডাবমর্ষণ দেখে বুঝেছে_ বাঙ নিষ্পত্তি 
বৃথা । কিন্তু সে হৃষ্ট হয় নাই-_ক্ষু্ন হয়েছে, পরাজয় মানে নাই-_ 
উপেক্ষা! করেছে । তার বলবার আরও আছে; এখানেই' বিচারের 
শেষ নয়। 

অজাত। শেব; আর বিচার করতে আমি খাব না। কি বল্বে 
সে? যা বল্বে-তার উত্তরে আমারও বল্বার আছে ; তর্কের শেষ 
নাই | 

কাম্তপ। তর্কের শেষ নাই বলে-_ধন্ম নাই-_এই সর্বনেশে সিদ্ধান্তে 
সায় দিতে হবে তোমার ? 

অজাত। হবে। আমার সিদ্ধান্ত-_-আঁম রাজা । 

কাগ্তপ। রাজার সিদ্ধান্ত অন্য সর্ব বিষয়ে, ধর্ম বিষয়ে খধির 
সিদ্ধান্ত। 

অজাত। আরে খধিত্ব তোমার এই ত- রাজাগুলোকে হাতের 
মুঠোয় করে রাজার রাজা হওয়া ? 

কাশ্প। না রাজা! খধিত্ব-_-রাজাদের শক্তির সঙ্গে নিজের চিন্তা 
যোগ ক”রে, জগতকে ক্রমোন্নতির পথে তুলে দেওয়া | 

অজাত। ৩ খযিত্ব তোমার অধঃপতিত অন্ত রাজ্যে দেখাও গে, 
কাশ্ঠপ ! আমার মগধের আবশ্তক নাই। 

কাশ্তপ। মগধেরই বিশেষ আবশ্তক রাজা! মগধের তুলা অর্ধঃ- 
পতিত আজ আর এ জগতে নাই। 

অজাত। কাশ্ঠপ ! সাবধান! 

কাশ্তপ। বন্দী কর, হত্যা কর-_তোমার যা অভিরুচি। 

অজাত। [ ক্ষণেক চিন্ত। করিরা ] যাও কাশ্ঠপ, ছেড়ে দিলাম 
তোমায় । তোমায় বন্দী ক'রে রাখবার তেমন ক্ষুদ্র কারা-কক্ষ আমার 


২৩১ 


তনভ্াাতস্ণতত [১ম অন; 


নাই। বন্দীযা করবার আমি করেছি_-তোমার শ্রক্তি, সাহস, বুদ্ধি, 
ভরসাঁয়। তোমায় আবার হত্যা কর্ব কি? তুমি ত মড়া; ধ্বংস 
কর্ব আমি--তোমাদের এ কল্পারাস্ত হতে চলে আসা বহুরূপী ধর্মকে | 
মাও, ছেড়ে দ্িলুম তোমায় ; ছো১ তুমি যত পার। তুমি আমায় খশ্ম 
দেখা।ত 'এসেছিলে-__-আামি তোমায় রাজ! দেখাব । [ গমনোগ্ত ] 
কাশ্প । রাজা দেখাবে রাজা, জগতের প্রীতি নাও । 
অজাত। [ ফিরিয়া] আমি বিশ্বাার নই কাশ্রপ-__আমি অজাত- 
শব্রু! প্রীতি ক্ষুদ্রের প্রাপ্য-_রাজা আমি, চাই-_ভয় । 
| প্রস্থান । 
উন্কা। জয় মহারাজ অজাতশক্র ! প্রীতি ক্ষুত্রের প্রাপ্য, রাজ-পুজা 
ভর-_জর হ'ক তোমার ; মগধের রাজ তুমি__ পৃথিবীর রাজা হও । 
[ প্রস্থান । 
মন্ত্রী। এস সেনাপতি, ভাবছ কি? আমাদের ত দাসত্ব 
পাবণের দাঁসত্বেও গ্লীনি নাই, ইন্দ্র, ব্রহ্মা ক'রে গেছেন । 
| অভ্রনীল সহ প্রস্থান ! 
কাশ্তপ। ধনু! তুমি আর আমার সঙ্গ ছাড়া হয়ো না; রাজা 
দেখতে হবে আমায় । দন্থ্য-সর্দার তুমি ঠিক আমার পাশে পাশে 
থাকবে, আমি এক চোখে তোমায় দেখব, আর এক চোখে রাজা 
দেখব? মীমাংসা করতে বিল হবে না! আষার-স্থ্য আর রাজার কে 
বড? অশ্রু বস্তা বওয়াবার অধিকার কার বেশী । 
[ নিজ্ধান্ত। 


৩৭ 


দ্বিতীয় অহ 


প্রথম গভ্ডাঙ্ক | 
কোশল-রাঁজসভা-সংলগ্র নিভৃত কক্ষ: 
প্রসেনজি আনমনে উপবিই ছিলেন, টঙ্কার দ্াডাইয়। 
আবেদন করিতেছিল। 
প্রসেন: [ সন্তুখে সর্প দর্শনবৎ লাফাইরা উঠিয়া | বন্দী করেছে! 
টঙ্কার। বন্দী করেছে। 
প্রসেন। পিতাকে । 
টন্কার | হা, মহারাজ ! 
প্রসেন। অজাতশক্র । 
টস্কার ৷ পুক্র। 
প্রসেন। [ নীরবে পাদচাঁরণা করিতে লাগিলেন ] 
টক্কার | মহারীজ-_ 
প্রসেন! চুপ- ভাবতে দাও । | ক্ষণেক ভাবিয়া |] আচ্ছা_-মহারাজ 


বিশ্বাসার যে তৌমাঁয় আমার কাঁছে পাঠিয়েছেন, তাঁর লিখিত কোন 
নিদর্শন আছে? 


টক্কার। না, মহারাজ ! যগধেশ্বর আমায় আপনার কাছে পাঠান নি, 


তীর এ বিষয়ে কোন আজ্ঞা, অনুরোধ নাই। আমি নিজেই ছুটে এসেছি 


অ-৩ 


অজীতিশশ ত্র, [ ২য় অঙ্ক; 


_-আমার প্রাণের আদেশে, মন্থের ব্যাকুলতায়। তিনি শুধু মগধের 
মহারাজ নন, আমার জীবন-দাতা । 

প্রসেন। হু । [ পূর্ববৎ পদ্দাচারণা করিতে লাগিলেন ] 

টঙ্কার। উদ্ধার করুন, কোশলেশ্বর! আমার আরাধ্য দেবতায় | 
[ পদধারণ ] 

প্রসেন। আরে বাপু, থাম ;--তোমার দেবতার উদ্ধার কর্ব-_আাঁশে 
আমি নিজে কায়দা হই। বীধ্য। 


বীর্ধ্য শ্বেত উপস্থিত*হইল। 


কুমার কোথায় ? 

বী্য্য। তিনি রাজসভাতেই ছিলেন, এইমাত্র মগধ হঠতে আমাদের 
রাজ-জামাতার দূত আসায় তাকে নিয়ে নিজের কক্ষে গেলেন । 

প্রসেন। কুমারকে অবরোধ কর যে অবস্থায় থাকুন; আর যেন 
তিনি নিজের কক্ষ হতে এক পা! কোথাও যেতে না পান। আর তোমাদের 
রাজ-জামাতার দূতকে শৃঙ্খলিত ক'রে আমার কাছে এইখানে নিয়ে এস | 

বীর্যা। [ সবিন্ময়ে চাহিয়! রহিল ] 

প্রসেন। দীড়িয়ে রইলে যে? কারণ পরে জান্বে, কাধ্য কর। 

[ বীর্যযশ্বেত অভিবাদন করিয়া চলিয়৷ গেল । 
দূত! তুমি কি বিশ্বাসে আমার সাহায্য-প্রার্থনায় এলে? যদিও 
মহারাজ বিশ্বাসার আমার ভগ্মিপতি- কিন্তু জান বোধ হয়__অজাতশক্রও 
আমার জামাতা ? 

টহ্কার। ও দিক দিয়ে বিচার আমি করতে যাই নাই, মহারাজ ! আমি 
ভেবে দেখেছি--কোশলেশ্বর স্তায়ের পক্ষপাতী, কৌশলরাজ কর্তব্যপরায়ণ, 
কোশল সাহাব্য প্রার্থনার যোগ্যস্থান। 


৩৪ 


১ম গর্ভাঙ্ক | ] অবঙাজ্ষ্পতহ 

প্রসেন। তৃর্য্য ! 

তুর্য্য উপস্থিত হইল। 

তুমি এখনই রওনা হও) কাঞ্চি, কৌশাম্বী, কাশী, কণোজ-_-রাজ্জা 
বল্তে যতগুলো! জায়গা আছে, একধার হ'তে সব ঘোর; সকলকে 
জানিয়ে দাও-_মহারাজ বিশ্বাসার বন্দী পুত্র অজাতশক্রর চক্রান্যে : 
ধাদের পুত্র আছে-_তীরা সাবধান, ধাদের ও পাপ নাই-_আমার একাস্ত 
অন্ুরোধ-__তীরা যেন পুন্নীম নরকে ভীত হঃয়ে কেউ পুত্রেষ্টি-যজ্ঞ আর না 
করেন। যাও । [ তৃর্য চলিয়া গেল। 

টক্কীর | [ বিস্ময়-নির্বীক; ইতস্ততঃ করিতে লাগিল ] 

প্রসেন। ভাবছ কি ছোকরা! এ সব আবার আমি কর্ছি কি? 
ঠিক কর্ছি ; পাগল হই নাই। কোন রোগীর চিকিৎসার জন্য আহুত 
হলে স্ুবৈ্ভ কি করেন জান ? যাতে সে রোগ সংক্রামক না হয়, তার বীজ 
আর দেশটায় না ছড়ায়, তার ব্যবস্কাট। আগে কুরে তবে রোগীর নান্ীতে 
হাত দেন | 


বীধ্যশ্বেত পুনরুপস্থিত হইল । 


কুমার অবরুদ্ধ? 

বীধ্য | হা, মহারাজ | 

প্রসেন। কারণ জান্তে চাও এইবার? 

বীধ্য । আর আবশ্তক নাই মহারাজ: সব শুনে এলুম কুমারের কাছে, 

প্রসেন। কি শুন্লে, শুনি? 

বীর্ধ্য। মীজ্জনা কর্বেন ; মগধেশ্বর বিশ্বাসার বন্দী- পুভ্রহস্তে ; 
পাঁছে আপনারও সেই দশ! ঘটে-_-এই তার কারণ । 

প্রসেন। তাই ; এ অবরোধে কুমার কোন প্রতিবাদ করেন 1ন? 


৩৪ 


অব ভাতস্পত্খত [২য় অঙ্ক; 


বীর্ধ্য। না মহারাঁজ, তিনি বেশ ভাশ্তমুখেই এ অবরোধ বরণ করে 
নিলেন। 

প্রসেন। ভাল; মগধের দূত কই? 

বীর্য । তাকে ধর্তে পারি নাই, মহারাজ ! সে খুব চতুর; আমার 
পৌছাবার পূর্বেই ফে প্রস্থান করেছে; সম্ভব রাজাদেশের স্ুুরাগ 
পেয়েছিল । 

প্রসেন। যাঁক্‌, সৈগ্ভ সাজা ও__বাছাঁই ক'রে-_সকল দিকে বলবান্‌ 
দেখে; হাদয়হীন দুব্বল-চিত্র যেন এক প্রাণী না থাকে ! মগধের সঙ্গে যুদ্ধ 
-_জামাতার সঙ্গে সংঘষ ' 

বীর্য | মহারা্-_ 

প্রসেন। বল? 

বীর্ধ্য। পুভ্রকে বন্দী কব্লেন বুঝলাম তার কারণ, কিন্ত এই 
জামাতার সঙ্গে সংঘষের কারণ? 

প্রসেন। কো'*লেশ্বর স্তায়ের পক্ষপাতী, কোশল-রাঁজ কর্তবা- 
পরায়ণ, কোশল ছুর্বলের সাঁহাধাকারী, ধর্মের উদ্ধার কর্তী । 


[শপ উপছ্ছিত হইলেন । 


কাশ্তপ। তূমি অহিংসা-ধর্ম নাও কোশলেশ্বর। 

প্রসেন। কাহ্াপ ঠাকুর! তুমি এমন তালকাণা কেন? ধান 
ভান্তে শিবের গীত! যাচ্ছি যুদ্ধে_অহিংসা ধন নাও! 

কাশ্ঠপ | হই রাজা, যুদ্ধে যাচ্ছ__অহিংস'ধর্শ নাও, এই তোমার 
এ ধর্ম গ্রহণের মাহেন্ত্রক্ষণ | 

প্রসেন। ঠাকুর! তোমরা দেখছি সব পার; এই শুনি অহিংসা 
ধন্মের অর্থ-_কারও গায়ে কুশের ঘ1 দেবে না; যুদ্ধে যাচ্ছি__বর্শা, তরবারি 


৩৬ 


১ম গভভাঙ্ক | ] অজ্াাঙল্পজ্র 


নিয়ে-_এই আমার এ ধন্ম গ্রহণের মাহেন্ছুক্ষণ? ঠাকুর! অহিংস! 
ধন্ম নিরে যুদ্ধে যাওয়া! চলে ? 

কাগ্প। চলে। তুমি ত রাজ্যবৃদ্ধি__জয়ের উন্মাদনা_ষশের নেশায় 
সে রক্ত-প্রাবন দঙ্া-যুদ্ধে যাও নাই, তুমি যাচ্ছ__ভর্বলের সাহায্যে ধন্ম- 
নৃদ্ধে ; এ ধন্ম গ্রহণ ক+রে এ যুদ্ধে যাওয়া চলে । তুমি অহিংসা-ধর্ম নাও 
কোশলেশ্বর ! অহিংসা-ধর্মের যোগ্য আদার তুমি 

প্রসেন। [ ভাবিতে লাগিলেন ] 


গীতকণ্ঠে মদগালি উপস্থিত হইল । 
মদগাঁলি ।-_ 


গীত । 


তুমি শিকলি কাট! শক । 
কেন গে। আর কিসের আশায় অমন নী'বব নুক । 
উঠে পড় গছের আগায়, 
নাগাল যেন কেউ আর ন। গায়; 
ঘুরে। ন। আর খ।চার পাশে ক'রে তাজ বুক । 


টক্কার। [ কাগ্তপের প্রতি ] ঠাকুর। দোহাই তোমাদের, আর 
সর্বনাশ করো না যা করেছ, এখনও তার প্রতিকার আছে; 
দোহাই তোমাদের, সরে যাও । 

কাশ্তপ | কেন টঙ্কার, আমরা তোমাদের করেছি কি? 

টঙ্কার| আবার করবে কি? সিংহুকে নখদন্তহীন, পন্ু, পিঞজরা- 
বদ্ধ ক'রে দিয়েছ ভুমি-__আবার কর্বার আছে কি? টাকুর! মহারাজ 
বিশ্বাপার বন্দী কেন? মগধের সম্রাট ? ভারতের নমন্ত ? আজও যদি 
তিনি অবরোধ-প্রকোষ্ঠ হ'তে একটা দীর্ঘনিশ্বাস ছাড়েন, একবিন্দু সপ্ত 


৩৭ 


তব ভা তশ্পত্রত | হয় অঙ্ক 


অশ্রু ফেলেন, একবার মুখের কথায় বলেন__মায় কে কোথায় আছিস্‌ 
--আজও অযুত তরবারি একসঙ্গে গঞ্জন ক'রে__অজাতশক্র ত শিশু - 
পৃথিবীকে রসাতলে দেয়! কিন্তু বাহব! তোমরা । আশ্চর্য্য তোমাদের 
ভেল্কি। ধিক তোমাদের অহিংসা-ধন্মের মহিমায় ! 

কাশ্ঠপ | টঙ্কার! টঙ্কার' আবার বল, আবার বল-_-তোমার এ 
'অভিমানাপ্লত ওজস্থিনী ভাষার অহিংসাধর্মে ধিক্কার দিতে দিতে মহারাজ 
বিশ্বাপারের পবিত্র অবরোধ-গাঁথা বিশ্ববক্ষে আবার বল,_ইঙ্গিতে অযুত 
তরবারি নৃত্য করে ওঠে, তবু তিনি বন্দী, একটা দীর্ঘশ্বাস নাই__এক 
বিন্দু অশ্রু নাই-__নিব্বিকার, মুক্ত) আমি তোমার এই মধুর ধিকীর-বাঁণী 
আমাদের অহিংসা-ধন্ম-পুস্তকের প্রথম পৃষ্ঠায় লিপিবদ্ধ ক'রে যাই। 
প্রসেনজিৎ ! কোশলেশ্বর ৷ ধর্মের উদ্ধারকর্তী! এখন কি ভাবছ? 
শুনলে ত মহারাজ বিল্বাসারের অহিংসা-ধর্্ম গ্রহণের ফল? অহিংসা-ধশ্ম 
নাও । 


মদগালি।__ [ পূর্ব গীতাংশ ] 


ছাতু ছেল! নয় এ, পাগী, বনের পাকা ফল, 
ঠকরে দেখ-_মধুর রসে প্রাণ হবে শীতল ; 
জন্ম সফল কর পাখী-_শুধ রে ফেল চুক। 
প্রসেন। তাই ত ঠাকুর! বল্লে ত ভাল! কিন্তু পিডৃপিতা- 
মহের ধর্ম্টা_ 
কাশ্প। পিভৃপিতামহের ধর্ম ? 
প্রসেন। বৈদিক ধর্ম! 
কান্তপ | বৈদিক ধর্ম নয়--বৈদিক কর্ম) বেদ ধর্মপুস্তক নয়-_- 


কর্মাপুস্তক ৷ 


১ম গর্ভাঙ্ক | ] অতনঙ্গাতষ্পত্র 


প্রসেন। চুলোয় যাক, যুদ্ধে যাওয়া চলে ত 
কাম্তপ। সে ত পূর্বেই ব+লেছি--ধর্ম-যুদ্ধে যাবার জন্যই এই ধর্ম । 
প্রসেন। আচ্ছাঁ_ তোমার ধর্ম আমি নিলাম । 
কাশ্তপ। প্রণাম কর ভগবান্‌ বুদ্ধদেবের পাদপন্সে । 
প্রসেন। | ঈষৎ চিন্তা করিয়া] উদ্দেশে প্রণামের চেয়ে বুদ্ধ- 
দেবের প্রণামটা আমি তোমার পায়েই করি কাশ্ঠপ ঠাকুর ! 
| প্রণাম করিলেন ] 
কা্ঠপ | তা” হলে বুদ্ধদেবের আঁশীর্বাদটাও আমার হাত দিয়েই 
নাণ্ড প্রসেনজিৎ | [ মন্তকে হস্ত দিয়া তুলিলেন ] যাও প্রসেন, যুদ্ধে । 
অহিংসা-ধন্মের অভেছ্য বর্ম অঙ্গ আবুত ক,রে, জ্ঞানের মুক্ত কপাণ তুলে 
_যাঁও প্রসেন ! যুদ্ধে, ধর্শের বাভিচার বিনাশে, মানব-জীতির জীবন- 
পথে শাস্তির বটবৃক্ষ প্রতিষ্ঠায় । অধর, উপধন্মের প্রবল বন্তাঁয় বিশ্ব- 
গত আজ মগ্ন, মুহ্যমান ) যাও শিষ্য, অগন্ত্যের মত একটী গণ্ড,ষে সে 
অজজ্র ফেনীল লবণান্ব-তরঙ্গ শৌষণ, উদরস্থ ক”রে, ছুটিয়ে দাও নির্মল 
মন্তর পবিত্র জীহৃবী-ধারা-_-“এক ধন্ম অহিংসা”। খুলে দাও অন্ধ- 
বিশ্বীসের দিব্য চক্ষু__লক্ষ্য হক জীবের দুঃখ, কর্ম হক আঁর্তের সেবা, 
মানব হ”ক মানব । 
| প্রস্থান । 
মদগালি | | পুর্ব গীতাংশ ] 
যাও পাখী, যাও আর কি তে।মার মুক্ত স্বাধীন প্রাণ, 
আকাশ বাত।ন ভরিয়ে ফেল ছড়িয়ে প্রেমের গান, 
খুলে যাক মোঠ কাযা, 
মরমে পড়ক সাঁড়।, 
জগতের যত ধার এ সরে মিশুক । 
| প্রস্থান । 


ভীত শক্রত | ২য় অঙ্ক 


প্রসেন। চল টক্কার! কোথায় নিধ্বিকার মহারাজ বিদ্বাসার? 
কোথায় পিতৃদ্রোহী দন্ধ্যু অজাতশক্র? কোশল ন্যায়ের পক্ষপাতী, 
কত্তব্যপালক দুর্বলের সাহায্যকারী ছিল, আজ আবার সে দিশ্থিজয়ী 

বলবান। 
[ সকলের প্রস্থান । 


হ্হি লহ গভ্ডাক্ছ | 
ব্রাহ্মণ-সভা । 
আজীনক ও অন্যান্য ব্রাঙ্গণগণ | 


আজীবক | আর ত এ বিষয়ে উদাসীন থাক। কোনক্রমেই মঙ্গল- 
জনক দেখছি না ব্রাঙ্গণগণ! শ্রেচ্ছের দল দিনে দিনে প্রবলই হঃয়ে 
উঠছে) তারা নালন্দার মাঠে যেখানে লাঠিয়াল দক্থ্যর আড্ডা ছিল-_ 
মানুষ গেলে আর ফির্ত নাঁ_সেখাঁনকাঁর বন কেটে, ডাকাত বশ করে 
বৌদ্ধমঠ প্রতিষ্ঠা করেছে, বৌদ্ধের সংখ্যা প্রতাহ বৃদ্ধিই পাচ্ছে, বৈদিক 
ক্রিয়া-কর্মম ক্রমশই কম হয়ে আস্ছে। আর চুপ করে থাকা কিছুতেই 
উচিৎ নয়। আমি তাই ডেকেছি সকলকে--যাই হ”ক একটা কর্তে 
হয়েছে আমাদের। 
১ম ব্রাহ্মণ | নিশ্চয় ক'র্তে হয়েছে; এতদিন বরং করা উচিৎ ছিল 
--এতট বাড়ত না। 
আজী। এতদিন আমি যুবরীজ অজাতশক্রর ভরসায় ছিলাম) 
অবশ্ঠা তিনি বৌদ্ধ-দমনে প্রাণপাত কর্ছেন-_-তার জন্য পিতাকে পিতা 
৪৩ 


২য় গভভাঙ্ক |] অজাতশ্ণজ্র 


বলেন নাই; কিন্তু তার উপর সম্পূর্ণ নির্ভর করা! আমাদের উচিৎ নর: 
নিজেদের কাজ__নিজেদের পায়ে ভর দিয়ে দাড়ানে৷ দরকার । এখন 
সকলের অভিপ্রায় কি? একটা কিছু করা উচিৎ কি না? 

সকলে। নিশ্চয়_-নিশ্চর । 

বৃদ্ধ ব্রাহ্মণ । কিন্ত-_ 

১ম ব্রাঙ্গণ। আপনি স্থির হন ত মশাই! আপনি যেখানে যাবেন, 
সেইখানেই “কিন্ত 

বৃদ্ধ ব্রাহ্মণ। তুমি ত বড় উদ্ধত দেখতে পাই হে! আমি সকল 
ক্ষেত্রে বাধা দিয়েই বেড়াই__না? করতে ত হবে একট! কিছু-কিন্ছ 
_কি কর! হবে-__সেটা ভাবতে হবে না? 

আজী | অবশ্ঠ-_অবশ্ঠ ! রাগ করবেন নাবালক ! কি: 
করা হবে বলুন দেখি? ধন্মের এ ব্যাভিচাঁর নিবারণের উপার কি? 
শুনি, আপনার পরামর্শ! 

বৃদ্ধ ব্রাহ্মণ। তুমিই বল না) তুমি যখন সভার আহ্বান করেছ 
অবশ্য সকল দিকই ভেবেছ; তুমিই কি স্থির করেছ-__শুনি ? 

আজী। আমি স্থির করেছি-_আমরা। ব্রাঙ্মণমণ্ডলী সকলে সমবেত 
হ”য়ে উপস্থিত সর্বাপদশাস্তি ধাগ একট। করি আনুন । 

১ম ত্রাঙ্গণ | উত্তম প্রস্তাব; ত্রাহ্ধণের যা কাঁজ। মশায়র। কি 


বলেন? 
সকলে । উত্তম প্রস্তাব; এই ত চাই। 
বৃদ্ধ ত্রাহ্মণ। কিন্ত 


১ম ব্রা্গণ। এঃ! আপনি বাড়াবাড়ি ক'রে তুল্লেন মশাই ! 
বৃদ্ধ ব্রাহ্মণ | তুমি ছোক্‌রা থাম ত। বাড়াবাড়িটা কিসে দেখলে 
আমার ? যাগ ত করা হবে, কিন্তু তাতে কি ফল হবে, বিচার করবো না? 


শট ১ 


জমা ্ভম্শতশত [২য় অঙ্ক; 


আজী। এইবার কিন্ত অবিচার কর্ছেন ব্রীক্ষণ ! যজ্ঞ ক'রে কি 
ফল হবে, এ প্রশ্ন কি আপনার মধ্যে ওঠ! শোভা পায়? বেদজ্ঞ ব্রাহ্গণ 
আমরা__যে কামন| নিয়ে যজ্ঞ কর্ধ, ঘজ্ঞের ফল ত তাই হতে হবে | 

১ম ব্রাহ্মণ । তা যদি না হয়, পুঁথি পুড়িয়ে দেব, পৈতে ফেলে 
দেব ; ব্রাহ্মণ নই আমরা, __চগ্ডাল! 

' সকলে | নিশ্চয় _নিঃসন্দেহ | 

বদ্ধ রক্ষণ | কিন্ত 

১ম ব্রাঙ্গণ ! আবার নিজ্তত £ দোভাঁই মশায়দের, যাগ যজ্ঞ পরে 
হবে, উপস্থিত আপনারা ব্রাহ্গণসভা হতে সর্বকার্মোযু এই “কিজ্ঞ/র 
একট বাবস্থা করুন| 

বুদ্ধ ব্রাঙ্গণ ! কি? এতদূর স্পর্দী। আমার ব্যবস্থা! আজীবক' 
তুমি কি আমাম অপদস্থ কর্বার জন্য সভার আহ্বান করেছ ? তোমাদের 
যা খুসী করগে, আমি এ সব বাপারে নাই । [ গমনোছত হইলেন ] 

সকলে । [ বাধা দিয়া ] আরে মশীয়, যান কোথা? চটেন কেন? 

বদ্ধ ব্রাহ্মণ । কি বলহে তোমরা? এটা ব্রাহ্মণ-সভাঁ__না অর্ববাচীন 
বালকের _-না, ছেডে দাও তোমরা আমায় | [ বল প্রকাশ | 

১ম ব্রাহ্মণ । দিন ত মশায়রা ছেড়ে, কোথায় যান উনি দেখি । 
আপনাদের সকলের মত ত? বাস--একজনের জন্তে কাজ আটকাবে 
না। যান আপনি-_যান। 

বৃদ্ধ ব্রাহ্ণ। কি! তুমি আমায় পতিত করতে চাও? এতদূর 
ঢুঃসাহস? উৎসন্ন যাবে- মুর্খ যথেচ্ছাচারী অভদ্র ইতর কোথাকার! 
এই আমি বসলুম তবে-_কার সাধ্য আমায় এখান হতে এক চুল সরায়। 
[ উপবেশন ] 

আজী। করেন কি বৃদ্ধ! বৈদিক ধর্মের এই রাহুগ্রাসের দিনে ব্রাহ্মণ 

৪২ 


বয় গরভাঙ্ক | ] তন ভচ1ত৮ণ অঃ 


আপনারা-_কোথায় তার উদ্ধারে সকল শক্রতা ভূলে সমবেত বদ্ধপরিকর 
হবেন, ন' হাস্তাম্পদ গৃহবিবাদ আরম্ভ করলেন ? ছি-_ 

বুদ্ধ ব্রী্গণ । যজ্ঞ কর,- যজ্ঞ কব আজীবক । আমার কোন অমত 
নাহ; তবে ও বও যেন সে যজ্ঞস্থলে না থাকে । 

আজী | যাক্‌, তা” হলে আপনারা সকলেই একমত ? 

সকলে । সকলেই একমত ! 

আজী | আমি কার্যে অঞাসর হতে পারি ? 

সকলে । শুভন্ত শীঘ্বং | 

আজী। আমি যাঁকে যে কার্যে নিবুক্ত করবো, আপনারা 
প্রতোকেই সে দায়িত্ব গ্রহণ কর্তে প্রস্তত ? 

একলে। প্রস্তত। 

আজী। আর বলবার কিছু নাই | ত্রাহ্মণগণ ! একি কম কথা-_ 
বৈদিক ধর্ম- ধর্ম নয়, বৈদিক ক্রিয়া হত্যাকাণ্ড হিংসা কামনার বীজ? 
বেদ উপভোগের প্রার্থনা পুস্তক ? আশ্চর্য! তাদের জিহ্বা এখনও 
খসে যায় নাই! তারা কর্ম্প্লাবিত ভার তবর্ষে আজও স্বচ্ছন্দে বেড়াচ্ছে । 
খান্ধণগণ ! ব্রহ্গণ্যতেজ দেখাও, বেদমন্ত্রের শক্তি দেখাও, বুঝিষে দাও 
গে শ্রেচ্ছাচারী বেদদ্বেধী অহিংসার আবরণে ক্রুর হিংস্রকদের-_বৈদিক 
পশ্মই ভারতের ধর্ম, বেদবিহিত ক্রিয়াই মন্ুষ্যের আচরণীয়, বেদ-- 
পৃস্তক নর,_অপৌরুষ__-অনাদি__প্রত্যক্ষ ঈশ্বর 

সকলে । জয় ব্রহ্মণ্যদেব 

গীতকণ্ঠে রাজপ্ররোহিত উপস্থিত হইলেন । 
রাজপুরোহিত ।-_ 
গীত । 


কর সর্বাপদ শান্তি যদি তোষর। ব্রাহ্গণ | 


দিয়ো না ষেন ধর্পের নামে, হিংসা-হোমে ইন্ধন । 
8০ 


"ভ্ব তা ভিপ্ণভত [২য় অঙ্ক: 


লক্ষ্য যদ্দি হয় প্রকৃত কোথ। জগতের আঘাত, 
সাও ছুটে অশনিমুখে হবে না কারও কেশপাত 
মেতো না কতু জাতীয় মদে, 
ভেসে ন। অভমিকা নদে 
ডুবিবে তরী গোম্পদে-_রতিবে চিব ক্রন্দন | 
| প্রস্থান 
রাহ্মণগণ | জয় ব্রহ্মণাদেব | 
আজী। সভা ভঙ্গ হোক তবে? 
সকলে । সভাভঙ্গ | 
[ সকলে গাত্রোথাঁনে উদ্যত ] 


উল্লা আসির! প্রণাম করিল । 


উদ্কা, ব্রীক্গণ-সভায় বিধবার এক নিবেদন । 

'আজী| কি? 

উক্তা। বিধবার বার, ব্রত, নিয়ম, ত্রহ্মচর্য্য এ কাদের বিধান ? 

'আঁজী। আমাদেরই, সংহিতা, স্বৃতির বিধান | 

উক্ত | উদ্দেশ্ঠ ? 

'মাজী। আত্মসংযম, চিত্তস্থির | 

উদ্ধী। জামার ভাগ্যে তা হ'লো না কেন? 

আঁজী। তুমি ব্রত নিয়মাদি নিয়মিতভাবে মনঃসংষোগ করে 
করেছিলে ? 

উক্কা। নিয়মিতভাবে ক'রে গেছি, মনঃসংযোগ হয় নাই। 

আজী। এঃ! তাতেই ফল হয় নাই। 

উক্কা। এ আবার কিরূপ আজ্ঞা কর্ছেন ব্রাহ্মণ ! এই যে বল্লেন__ 
বার-ব্রতাদির উদ্দেশ্তই আত্মসংযম চিত্তস্থির ? মনঃ সংযোগই যদি হবে, 


৪86 


২র গর্ভাঙ্ক | ] তবভাতিস্ণত্ 
মন যদি নিজের আয়ত্বীধীনেই আসবে, তা হ'লে আবার ব্রত নিমের 
আবশ্তক কি? 

আজী। তোমার বয়ঃক্রম কত ? 

উন্ধা। ষোল বৎসর সাত মাস সতের দিন । 

আজী। আরও কিছুদিন নিয়মিতভাবে থাঁকগে বালিকা । বান 
রোপণ করলেই ফল হয় না; যথাকাঁলে ফল পাবে। 

উদ্ধী। সে কবে? ষথাকাল কতদিনে? জীবনের এই বুবুঙ্ষ 
সময় অনাহারে উদ্যাপন ক'রে-যথাকাল কি মৃত্যুকাল ?__ষখন আর 
ফল আস্বাদনের শক্তি থাকবে না? এই দৌোর্্দও যৌবনক্ষেত্রে অবাধা 
মনের সঙ্গে মুখ দিয়ে রক্ত উঠিরে যুদ্ধ ক'রে চিত্তজয় হবে কি জরার ? 
সে ত মাপনিই হবে, প্রকৃতির নিয়মে । তখন ত স্বতঃই ইন্দিয়গ্রীম 
শিথিল, মন নিস্তেজ, অন্তর স্থির ; তার জন্য বার-ব্রত ? 

আজী। বালিক1! তুমি বোধ হয় জীবনটার এই একট জন্মই সীমা 
ধরে নিরেছে? তা নয়, জীবন অসীম, জন্মও অনন্ত । এ যৌবন তোমার 
নিক্ষলে যায়, পুনর্ষৌবন আসবে-__কন্দধের ফল বাবার নয়-_এজন্মে না পাও, 
পরজন্মে পাবে। 

উক্কা। [ নীরব ] 

আঙজী | চুপ করে কেন? আর প্রশ্ন থাকে ত বল? 

উন্কা। না_আর প্রপ্নের সাধ্য নাই, চুপ করতেই আমি বাধ্য, পরজন্ম 
সম্বন্ধে আমার জানা নাই, অতটা দূরদশিনীও আমি নই। 

আজী | যাও, নিরম পালন কর গে--যেমন করে যাচ্ছ ; ফল তার 
পাবেই পাবে। [ গমনোগ্ত ] 

উক্কা। আর একটী নিবেদন। 

আজী | বল। 


৪৫ 


অনজাশস্ণপ্র | ২য় অঙ্ক; 


উন্কা। আমার এই ষে অকাল বৈধব্য-_এই যে শক্তিপত্বেও সকল 
ভোগে ঝঞ্চিত__-এই যে সংসারের সঙ্গে সন্বদ্ধরহিত অবস্থী--এ কার 
পাপের ফলে? আমার-_না1 আমার স্বীমীর-__ন1 আর কারও ? 
আজী। তোমারই পাপের ফলে। 
উহ্কা। কই, আমি ত জীবনে এমন কোন পাপ কৰি নাই ! 
আজী। এ জীবনে ন1 করে থাক, পূর্বজীবনে করেছ । 
উন্ধা। [ নীরব ] 
আজী। আর কথ! আছে? 
উদ্ধা! না; কি ক'রে আর কথা থাকে বলুন, পরজন্মও যেমনি জানা 
নাই, পূর্নজন্মও তেমনি ম্মরণ নাই । 
আজী | কন্ম ক/রে যাও, কর্ম ক”রে যাও, বালিকা! কম্মে আলম্ত 
ক”রো না, সন্দেহ রেখো না; এ ব্রাহ্মণের নির্দিষ্ট, সংহিতা, স্বৃতির 
বিধান । পূর্বজন্মের পাপ ক্ষয় হবে, পরজন্মে শান্তি পাঁবে। চলুন আমাদের ! 
[ অগ্রগামী হইলেন | 
সকলে । চলুন_ চলুন, গুরুতর কাধ্য মাথ্থীয় | 
| উন্ধা ব্যতীত সকলের প্রস্থান । 
উক্কা। পূর্ববজন্ম” পরজন্ম | সুন্দর দোহাই! আর তর্ক নাই 
মীমাংসা মন্দ হ'লো না; ছুঃখ ভোগ করছি কেন বিনা পাপে? পূর্ববজন্মের 
পাপের ফল। সৎকর্ম্নের ফল পাই না কেন__নিয়মিতভাবে করেও ? 
পরজন্মে পাব। সব অনির্দিষ্ট, অমূলক, কল্পনার ওপর। আগুনে হাত 
দিয়েছি আরজন্মে--হীত পুড়লো আজ ! ন্মুখাগ্ খেয়ে যাচ্ছি প্রত্যহ__ 
্বাস্থা পাৰ পরজন্মে! তা হ'লে এ জন্টা দেখছি কিছুই নয়, পূর্ববজন্মের 
উপসংহার, আর পরজন্মের প্রস্তাবনা»_দূর-_ 
| প্রস্থান । 


৪৬ 


ততীস্্র গক্ডাক্ক। 
আশ্রম । 
সনাতনী ও সেবানন্দ দ্াড়াইয়ািল । 

সনাতনী । প্রভু । আমি সকলকে ডেকে এসেছি । সবাই আপবে 
এখনই__-আজ আমাদের দশমস্কপ্ধের রাসলীলাটী বোঝাতে হবে। 

সেবানন্দ। রাসলীলা? সনাতনী । রাসলীল! ! আভাঁ-হা ! প্রাণরুষ 
হে! বড় গুপ্তলীল! সনাতনী বড় মধুর! মুখে প্রকাশের নয়; কেবল 
প্রীণে প্রাণে অনুভব কর্বার। মরি-_মরি ! রাধা বল্লভ। এ লীলাগ্র 
রসাস্বাদনও সনাতনী, গোবিন্দের অনুগ্রহ ভিন্ন উপার নাই; যার 
প্রতি তার অপাঙ্গ পড়েছে, অর্থাৎ যে কুষ্কপ্রেমে আম্মার! হতে পেঞেছে 
সেই মাত্র এ লীলারসের অধিকারী | ইরি-_-হরি__হরি! আচ্ছা, 
আমিও অনেক দিন হ'তে মনে ক'রে আস্ছি-_শ্রীমদ্ভাগবতের এই সার 
তত্ব, শেষ তত্ব তোমাদের বোবাব_তোমাদেরও 'আগ্রহ হয়েছে 
গোবিন্দের ইচ্ছা ; হুবে তাই । তবে আমি আগে বুঝতে চাই_-কেমন 
তোমরা কৃষ্গগতপ্রাণা হ'তে পেরেছ ! গাও দেখি সনাতনী, শ্রীকষ্চের 
মোহন রূপ গান--যে রূপ ব্রজেশ্বরী রাধা প্রথম দর্শনেই বর্ণনা করেছিলেন ; 
দেখি__তোমার তদগত ভাব ! 

সনাতনী । আপনি বিশ্রাম করুন, প্রভু! আমি আপনার পদসেবা 
করি আর কৃষ্ণরূপ গাই। 

[ সেবানন্দ বেদীপরে উপবেশন করিলেন, সশাতনা তাহার 
পদসেবা করিতে করিতে রাধা ভাবে গাহিতে পাগিল ] 

৪৭ 


অবজাভিস্ণভ্রত [ ২য় অঙ্ক" 
সনাতনী ।-- 
গীত । 

অভিনব নীল জলদ তনু ঢরঢর 

পিঙ্গ মুকুট শিরে সজ্নী রে। 
ক।ঞ্চন বসন রতনময় অ।ভরণ 

নৃপুর রুণু রণু বাজনী রে ॥ 
ইন্দাবর যুগ স্ুভগ বিলে।চন 

চঞ্চল অঞ্চল কৃহ্ুম শবে । 
অবিচল ফুল, রমণীগণ ম।নস 

জর জব অন্তর ৮প্রম ভরে ॥ 
বনি বনমালা আজ।নুলখ্বিত্ত 

পরিমলে অলিকুল বহু মাতি। 
বিদ্বীধর পর মোহন মুরলী 

কিয়ে সে ফুকার ডগ মরমদতী ॥ 


গীতকণ্টে নৈবদ্-পুষ্পাঁদি হস্তে নাগরিকাগণ উপস্থিত হইল 


নাগরিকাগণ।__[ সনীতনীকে লক্ষ্য করিয়া সখি ভাবে ] 
গাত। 
ব্রজ-রমণী-মণি রাধা বিনো দিনা 
হযাম-সোহাগিনী ভ।বিনী বে। 
শশাঙ্ক বদনী, করঙ্গ নয়নী 
কাঞ্চন বরণী দাঁমিনা রে। 
কঞ্চিত কেশিনা, নিরুপম বেশিনী 
রস-আবেশিনী রঙ্গিনী রে, 
প্রেম-তরহ্িনী নব অন্ুরাগিনা 


অই কামিনী সখি সঙ্গিনী রে; 
৪৮ 


৩য় গভভাঙ্ক | ] অজ্ীতিল্শভাত 
মধুরিম হাসিনা, মুছু মুছু ভাষিণী 
রান বিলাপিনী ভ।(মিনী রে, 
বেণী ভুজঙ্গি নী. কণ্তর গামিনা, 
কুগ্জ বিলাধিনা মানিনা রে; 
ভক্তি প্রদায়িনী, শক্তি বিধায়িনী, 
তাপ শিবারিণী তারিণীরে | 
আনন্দ রূপিণী, নিখিল বন্দিনা, 
সকল শালিনা হলাদিনী রে ॥ 
মেবানন্দ। [ ভাবোচ্ছাপে | গোবিন্দ হে! গোপিবল্লভ । | সকলের 
প্রতি | তোমরা সকলেই কৃষ্ণমেবার অধিকারিণী ; কুষ্ঝপ্রেমতন্ব তোমরা 
সকলেই অনুভব করতে পেরেছ | আচ্ছ', সনাতনী । তারপর শ্রীরাধা 
শ্রারুঞ্ণরূপদর্শনে সখিদের কাছে নিজের অবস্থা কিরূপ অকপটে বর্ণন 
কর্ছেন_ তুমি গাঁও; আর ললিতা বিশাখাদি সখিগণ কিরূপ শ্নেহস্চক 
বাঙ্গেোক্ত কর্ছেন-_| নাগরিকাগণের প্রতি | তোমরা সকলে বর্ণন। কর 
দেখি_--পুর্ববরাগের উৎকণ্ঠা । 


গীত। 
সনাতনী । সজনি । কি হেরিনু ষমুন।র কুলে । 
ব্রজকলনন্দন, হারল আমর মন 
ত্রিভঙ্গ দাড়ায়ে তরুমলে । 
নাগরিকাগণ। চুপ চুপ-_এ কি বলিস ধনি ! 
গবি কি লে।কুললাজ, গোকুল-নগরী মাঝ 
তুই যে রমণীর শিরে।মণি। 
সনাতনী । গোৌকুল নগর! মাঝে, যতেক রমণী আছে 
তাহে কেন ন। পাড়ল বাধা, 
নিরমল কুলখান যতনে রাখি আমি 
বাঁ কেন বলে রাধা রাধা । 


৪৭ 


কতা কজ্ষ্ণঙত [ ২য় অঙ্ক? 


নাগরিকাগণ । আর বলিস না লো-- 
ছি--ছি রাই আর বলিস না লো; 
এ লক্ষণ তোর নয় তে। ভালো--বলিস না লো ! 
ববে বারি ছু নয়নে পিরীতি শঠের সনে 
এত কি লেগেছে ভালো কালে ! 
সনাতনী । আমি প"গলিনী- 
সেই কালোরপে-অ।মি পাগলিনী ; 
পাসরিতে করি মনে, পাসরা না যায় লো, 
কি করিব কি হবে উপায়। 
মরমে বিধেছে বাণ, গিয়েছে ত কুলমাঁন, 
বুঝিব। জীবন বাহিরায়। 
নাগরিকাগণ। ভূত চেপেছে__ 
রাইয়ের ঘাড়ে ভূত চেপেছে 
পিরীতে কে কো! মৃচ্ছা! গেছে_ ভুত চেপেছে__ 
ওলে? কোথা লো বৃন্দের। ওঝ। এনে দে, 
এখনই ভূত ছাড়াই, 
দেখ- এলায়েছে বেণী, গেছে সে চাহনি, 
নহে তে! বাছে না রাই। 


সেবানন্দ। সুন্দর! মধুর! আচ্ছাঁ_-এইবার একটু আনন্দোৎসপব 
কর দেখি--প্রাণবল্লভের মিলন আশায় কুষ্ণভামিনী সখিদের নিয়ে যেরূপ 
কুপ্ত সাজিয়ে আনন্দ করেছিলেন। 
গীত। 
সনাতনী। সখি! গাঁথলে! মাল] । 
মম কুঞ্জে আসিবে আজ বিনোদ কাল ॥ 
নাগরিকাগণ। আজু দেব লে! কিশোরি তোরে, মাল! নয়-- শৃঙ্খল, 
ঘুচাব নাগরী তোর বিরহ আল।। 


ও গা্ক।] অসজ্জাতু-পক্রু 


সনাতনী । আজ, ফুলের জাচির কর, ফুলের প্রাচীর তেল 
ফুলে ফুলে ছেয়ে দে লে ঘর, 

নাগরিকাগণ । ভেবে। না লে ফুলরাণী, ফুল্ল কমলিনী, 
প্রতি ফুলে গোব ফুলশর ; 

সনাতনী। আঙন্গুঃ শুক সারিদ্বারী থাক, নাচুক শিখিনা শিখি 
ভ্রমর ত্রমরী গ।ক গান, 

নাগরিকাঁগণ | শাজু মদন রতিরে মোরা ক'রে দেব মৃচ্ছিও 
বসন্তের বধিব পরাণ ; 

সনাতনী । আজু কর্পুর হ্ববাসিত তাশ্মুল বারি রাগ, 
মণিময় বাতি জ্ব(ল। সই! 

নাগবিকাগণ । আজু নয়নের ফাদ পেতে চাদেরে পাড়িব ভূমে 
শন করলে। রসমই ॥। 


সেবানন্দ | ধন্ত--ধন্ত তোমরা কৃষ্ণবিলাসিনীগণ | ধন্য তোমাদের 
পবিত্র গোপিভাব! তোমরা রাসলীলা৷ রসাস্বাদনের 'অযোগ্যা নও | 
বোস রসময়ী প্রেমপাগলিনীগণ ! 

[ সকলে উপবেশন করিল ] 

শবণ কর-_শ্রীভগবানের বীসলীলা, জগতের গুহা তথ্য, জীবের 
পরমা গতি । বোঁঝাঁতে পার্ব কি না, ভাষার সম্যকৃ প্রকাশ হবে কি ন! 
_বল্তে পারি না; তবে তোমরা ঘেন নিঝিষ্টচিত্ব--স্ব-ভীবে সপ্ন 
থেকো) এ ভাব বর্ণনায় বক্তার তেমন কিছু দায়িত্ব নাই, এ ভাব গ্রহণে 
শ্রোতারই কৃতিত্ব । এ অনুভূতিমূলক গোলোকের ভাব-__সর্বসন্তাপহারী, 
নিষ্কাম, শান্তিময় | 


উল্কা উপস্থিত হইয়। গলবন্ত্র প্রণাম করিল। 


কে তুমি? 


€১ 


দলা ভস্ণত্ | ২র অন্ধ; 


উ্কা। বিধবা! 

সেবানন্দ। কি চাও? 

উক্কা। এ সর্ব সন্তাপহারী শিষ্কাম শান্তিময় একটু কিছু। পাব কি? 

সেবানন্দ। কেন পাবে না? তুমি ঠিক এ বস্তই খু'ঁজছ ত? 

উক্কা। তা আমি বলতে পারি নী; তবে ও ছাড় আমার জীবনে 
আর ত গতাস্তর নাই। 

সেবানন্দ । তা”হঃলে- আমিও আজ ঠিক বল্তে পাঁর্ছি না বিধবা! 
._তমি তা পাবেকি না। তোমার এখনও লক্ষ্য স্থির হয় নীই। 

উদ্ধা। কি! আমার লক্ষা স্থির হ'লে তবে তুমি বল্‌্কে_আমি 
শান্তি পাবেকি না? সে ভোমায় বলতে হবে কেন? রোগীর বিকার 
কেটে গেলে সে সুস্থতা লাভ করবে কি না, সে ত সবাই জানে) 
তোমার কাছে আস কি জন্য? আমার এই উদ্ত্রান্ত অস্থির লক্ষ্যকে 
স্থির ক”রে শাস্তি দিতে পার্বে না % 

সেবানন্দ । পারি; ধৈর্যা ধর্তে পার্বে তুমি ? 

উন্কা। কতদিন ? 

সেবানন্দ। একখানি গ্রন্থের একটু অংশ পাঠ সমাপন পর্যন্ত | 

উ্ধা। রক্ষে পাই-_একট জন্ম নয় তা”্হণলে? 

সেবানন্দ। পাঠের মত পাঠ হ*লে-_-সাত জন্মেও শেষ হয়কিন' 
জানি না। 

উন্কা। প্রণাম হই ; আমার অতখানি ধৈর্য্য নাই। | গমনোগ্বতা ] 

সেবানন্দ। বালিকা! শাস্তি পাচ্ছ না লক্ষ্য স্থিরের অভাবে, 
সে লক্ষ্যটা না হয় আমি স্থির করে দিলাম ; কিন্তু লক্ষ্য স্থিরেব জন্ত যে 
ধৈর্যোর আবশ্টাক--তাও কি আমার গণ্ড়ে নিতে হবে ? 

উক্কা। থাক্‌, আর প্রয়োজন নাই। 

৫২ 


৩য় গভাঙ্ক | | অনঙজাতিেস্ণজহ 


সেবানন্দ। প্রয়োজন হ”লে তাও পাঁরি। 

উদ্কা। প্রয়োজন নাই । ধৈর্য দিয়ে ভূমি আমার লক্ষা স্ডির 
করবে? আমি ধৈর্য নেব নাতুমি হাজার দিতে পার্লেও । কেন 
নেব? শান্তি পাই নাই-লগ্চা শ্তির নাই কলে__-মককগে এলাম; 
আবার লক্ষা স্তিবের জন্য ধৈধ্য নিতে হবে ঃ আবার পৈষ্য যদি সহজে 
না আসে, বল্বে_ আসন, প্রীণারাম ; & করি আর কি ! কেন? নারীর 
স্বামী গেল, সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা বস্লো-তমি সকল ভোগে বঞ্চিত ; 
ভাল কথা! কিন্তু সেই সঙ্গে সঙ্গেই তার চিন্তবুত্তি উল্টে,তাকে ভোগ-বাসনা 
ভুলিরে দেবার মন্ত্র এক পুংক্তি আবিষ্ষার হ্ল না কেন? তার জনা 
লল্দা-ন্ডির, ধৈর্য্য, আসন, প্রীণারাম । প্রকৃতি ওপর চাল চাল্বে তুমি-_ 
নার তোমার আদেশ পালনে নৃতন করে বৈর্া গড়াতে ন্রিভৃবনট। 
ছোটাছুটী কর্বে নির্বাক নিরীহ অবলা! যাও-- | গমনোগ্যত। | 

পেবানন্দ | দাড়া; তোমার শার নৃতন করে ধৈর্ধা ধরতে ভবে 
না। তোমার যা ধৈর্যা আছে, আমি তারই মপো তোমার গণ্ডে 
তোঁল্বার চেষ্ট1! একবার কর্ব। 

উক্ধা। তা বদি পার আমিও ট্োমার জরশঙ্ জগত জুডে 
বাজিয়ে দেব। 

সেবানন্দ। [ সকলের প্রতি] রাসরপিক ভাবময়ীগণ ! মাজ 
তোমরা গৃহে যাও ) রাপলীলা বর্ণনা আজ ম্মার আমার ভাগো হলনা) 
গোবিন্দের অনুগ্রহ হ'লে আবার তোমাদের সংবাদ দেব। সনাতনী ! 
তুমি রাধামাধবের আরতি সজ্জিত ক'রে নিয়ে এস। [ উদ্ধার প্রতি ] 
এস তুমি আমার সঙ্গে । 

[ উল্কাসহ গ্রস্থান। 


৫.৩ 


অবতজাাত্তস্ণত্ত | ২য় অঙ্ক; 
সনাতনী ।-_ 


গাত। 
আমি বধুর লাগিয়। শেজ বিছায়নু 
গথন্ু ফুলের মালা । 
আমি তাশ্থুল সাজন্ু দীপ উজারন্গু 
কোথা বা বিনোদ কাল1 ॥ 
| প্রস্থান । 
নাগরিকা গণ । সই! সব হলে|বে লো আন্‌ । 
ওলো৷ রসের নাগরে  মিলিল ন।-- 
শুধু, বিধিল মদন-বাঁণ 
[ হতাশভাঁবে সকলের প্রস্থান । 


চুতর্থ গর্ভাক্ক। 
নালন্দাঁমঠ | 
ভিক্ষুগণ বুদ্ধস্তোত্র গাহিতেছিল । 
ভিক্ষুগণ ।__ 
গাত । 
যোগীম্ববং নুদ্ধমহং ভজেয়ম্‌। 
শাস্তং সদ! প্রাণীবধান্তি ভীত্তং 
বৃহজ্জটাজুট-_ধরোত্তমাঙ্ম্‌ 
তনুলসদ্‌ গৈরিক-গৌর-বস্ত্রং 
যোগীষ্বরং বুদ্ধমহম্‌ ভজেয়ম্‌। 
৫৪ 


৪র্থ গর্ভাঙ্ক | ] অজাতস্পত 


কুহুম-কেশর কাঞ্চন স্ুবর্ণং 
প্রসন্ন বদনং কৃণুল শ্রেষ্ঠ কর্ণং 
স্মিত স্ুভগ (সীম্যং দণ্ডপাণিম্‌ 
যোগীস্বরং বুদ্ধমহূম্‌ ভজেয়ম্‌। 
দ্বিভূজং হুন্দরং বরাভয়করং 
সতত সুহাস্যং পুগুরীকাক্ষাম্‌ 
_ ন্তারয়ন্তং ভবাম্থুধি জনান্‌ সর্ববান্‌ 
যোগীশ্বরং বুদ্ধমহম্‌ ভজেয়ম্‌। 
কাশ্যপ উপস্থিত হইয়। আপন গ্রহণ করিলেন । 


কাগ্তপ। আসন গ্রহণ কর, শিষ্যগণ । আজ শ্রীভগবান বৃদ্ধদেখের 
ধন্মচক্র শ্রবণ কর। [ ভিক্ষুগণ উপবিষ্ট হইল ] শিষ্যগণ ! এই মহাচক্রের 
মূল-সত্র-_ছুঃখ | মানবজীবন অনন্ক দুঃখমর, মানবজীবন জন্ম, বাদ্ধক্য, 
জরা, মৃত্যুমর দুঃখের অবিরাম প্রবাহ! এই ছুঃখ নিবারণের জন্তই 
শ্রীভগবানের সংসার ত্যাগ | শোন তার জীবনপাত চিন্তার অনুভূতি । 
দুঃখ কেন? দুঃখের কারণ--জন্ম ; জন্ম না হ'লে জীবকে এত ছুঃখ 
সহ্য করতে হতো না জন্ম কেন? কমশ্খীফল জন্মের কীরণ। 
কম্মফলে কেউ রাজা, কেউ ভিখারী, কেউ জ্ঞানী, কেউ মুর্খ, কেউ 
কাদাকার, কেউ সুন্দর ; কর্মমফলহ্‌ জন্মের কারণ । কন্ম কেন? কম্েরি 
হেতু স্গুখতৃষ্ণা, সুখের জন্ত জীব কন্ধে রত। কেন এই স্ুখতৃষ্ত। ? 
গ্ুখ দুঃখ 'অন্ুভবই এই তৃষ্তার কারণ; সুখে মন তৃপ্ত,দুঃখে বাখিত। 
কেন এই অনুভূতি? জগতের সঙ্গে মন, ইন্ত্রিয়ের সংযোগ এই 
অনুভূত্বির কারণ; জগতের রূপ রস গন্ধে মন, ইন্দি নিতা আকধিত। 
কেন মন-ইন্দ্রিয় আকযিত? সত্যই কি জগত রূপ রস গন্ধময়? 
না; ধারণা করায় জ্ঞান। কেন এরূপ জ্ঞান? সংস্কার, জন্মগত-_ 


৫ ৫ 


আভা জ্্পত্ | ২য় অঙ্ক; 


জাতিগত ; একে যাকে সুন্দর দেখে, অন্ঠের চক্ষে সে কুৎসিত, চগ্ডালের 
সুখাগ্ ছুর্গন্ধময় মাংস সাধুর অথাস্, অভক্ষ্য;) একই রূপ রস গন্ধ__ 
জীতিভেদে জীবভেদে নানাভাবে রূপান্তর । জগতের বূপরসগন্ধ জ্ঞান-_ 
সংস্কারবশে। আর এই সংস্কার _অজ্ঞানসম্ভৃত, ভ্রান্তিমূলক, অবিগ্ার 
মোহ । বুঝলে ভিক্ষগণ ! ঢঃখের কারণ-_এই ভ্রান্তি ; এই ভ্রান্ত রূপর- 
জ্ঞান শখের তষ্কা উৎপাদন করে, জীবকে কর্মে বাধ্য করে, কম্মকলে 
জন্ম; জন্ম দুঃখের নিদান। এই শ্রীভগবান বুদ্ধদেবের ধর্মচক্র । 

বৌদ্ধগণ | | সুরে সমস্বরে ] বৃদ্ধং মে শরণং | 

কাশ্টপ। এই সংস্কারমূলক অজ্ঞানসন্তৃত রূপ-রস গন্ধের ভ্রাস্টি দূর 
5/লেই, দুঃখের নিরোধ__জন্মের নিরোধ_ জীবের নির্বাণ ! 

বৌদ্ধগণ। | পুর্ববভাঁবে ] ধন্মণ মে শরণং | 

কাণ্তপ। এই ভ্রান্তি দূর হবার উপায়__আছে অষ্টপথ ;_ শিশ্মীল 
শুদ্ধদৃষ্টি, সত্যবাক্য, সুসঙ্গল্প, সাধু ব্যবহার, পুণ্যকন্মন, সাঁধু উপজীবিকা, 
শুদ্ধস্থাতি আর অবিচল সত্যধ্যান। 

বৌদ্ধগণ | | পুর্ববভাবে ] সঙ্ঘ মে শরণং। 

কান্তপ। শিষ্যগণ ! একদিকে ইন্দ্রিয়ের স্থখ, অন্যদিকে ব্রহ্মচষা- 
দেহনিষ্পীড়ন, উভয়দিক পরিত্যাগ কপ্রে, মধ্য পথ ধ'রে, এই অষ্টপথে 
চিত্তের নিম্মলতা পাধন- এই মানবজীবনের কর্ম, আর এই বৌদ্ধ- 
ধন্ম | 

উদ্কা উপস্থিত হইল। 


উ্কা। কর্ম নাই-_ধর্ম মিথ্যা 
কাশ্তুপ। কেতুমি? 
উন্কা। ধর্মে অবিশ্বাসিনী, কর্মে নিক্ষলতার প্রমাণ । 


৫৬ 


৪র্ঘ গভভাঙ্ক | ] তব জাতিতে 


কাশ্তপ | কি কম্পন করেছ তুমি_ ফল পাও নাই? 

উদ্কা। ব্রহ্মচর্য্য, ব্রত, উপবাস, স্নান, দান, তীর্থ ভ্রমণ, পুজা, ভোঁম, 
প্রায়শ্চিত্ত সংহিতা স্থৃতির বা যা-কিছু বাকী নাই”-হথেছে শুদ্ধ 
দেহপাঁত ; ফল পাব পরজন্মে। তারপগ শ্রীমদ্তীগবত ; বসুনাপুলিন ঘুরেছি, 
বংশীধ্বনি শুনেছি, রাধাকৃষ্চের যগলমিলন দেখেছি, তাতেও তান; 
গিরেছি শুফতালু, ফিরেছিও শুষতাঁলু। ঝধারুঝ্ের মে মিলনমন় পক্ষপ্রেম 
কি করবে এ ঘোড়ভাঙ্গা কাচা জীবনের? খল্তে পারি না 'আমি 
শন্য অবস্থার কথা, কিন্ত এখানে পে নিক্কাঘ, শান্তিদীরক নর পণং পপ 
স্মতির উদ্দীপক । আর দেখবাগ কি শ্াছে? কম্ম নিষ্ষগ, প্ম 
প্রতারণা। 


উত্থান সহ অজাতশক্র উপস্থিত হইলেন । 


আজাত। বল, বল বালিক1। কন্ম নিক্ষল, ধন্ম প্রতারণ]। কন্মপ্লাবিত 
ধন্মপাগল এই মূর্খ ভারতবর্ষের মাথায় পা! 'দিয়ে দীডিরে আবার এ 
নিষ্ষল, প্রতারিত, সর্পগর্জনে বল--কন্ম নিষ্ষল, ধশ্মা প্রতারণা । আমি 
রাজা_-আমি তোমার এ ইন্দ্রজীলমুক্ত সতা ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে আমার 
শাসনভেরী গায়ের জোরে বাজিয়ে দিই | 

কাম্তুপ। হা রাজ! । তুমি আমার রাজ] দেখাবে বলেছিলে, তা ত'শেই 
তোমার রাজা দেখানও সম্পূর্ণ ভয় । 

'অজাত। তুমি ধর্ম দেখাও। কর্ম দাও এই বিধবায়! উপ্টোও 
প্রকৃতির এ একটানা! বেগ_ কর্মের জোরে, ধর্মের মিমায় ? 

কাশ্ঠপ। বদি পারি? 

অজাত। সাহস কম নয় তোমার! পশ্চিমের ঝড়কে তুমি ফুঁ দিয়ে 
দক্ষিণ বাষু করে দেবে? 


৫৭ 


অবত1্তস্ণওও | ২য় অঙ্ক; 


কাম্তপ। তোমার প্রক্কৃতিতে কি চিরদিনই পশ্চিম ঝড় বয়_ দক্ষিণ 
বাযু বয় না? 

অজাত। বর ; কারও বইয়ে দেওয়ার বয় না-_আপনি বয়,সময় হ*লে | 

কাশ্তপ। মন্ুম্যজীবনেও খতু পরিবর্তন আছে রাজ? সমর হয? 
আমি ঝঞ্ধাকে দক্ষিণবাধু ক'রে দিতে না পারি, কিন্তু ঝটিক! প্রবাহের 
ক্ষেত্র ছ্রস্ত বৈশীখকে সরিরে দিয়ে দক্ষিণবাঁধু সঞ্চারের বসন্ত উন্মেষ 
ক”রে দিতে পারি ; সে বাবস্থা আছে । 

অজাত। ব্যবস্থা দ।ও! 

কাগ্তপ। বিধব!! তুমি ব্রত, উপবাস, পুজা, তীর্থপ্রমণ- মনুবিহিত 
স্ব কন্ম করেছ, ব্যাসদেবের ভক্তিগ্রন্ত এমস্ভাগবতও শুনেছ ; এইবার 
তোঁমার কর্ম-__জীবের সেবা। শক্রু নাই, মিত্র নাই, আত্মপর ভেদ 
নাহ, আপন আত্মার সঙ্গে সমবেদনা অন্থুভব ক'রে আহত, আর্ত, পীড়িত, 
পর্বঙীবের সেবা__এই আমার বাবস্থা | 

অজাত। বিধবা! আমার একটা প্রশ্নের উত্তর দাও তুমি-- 
অকপটে । তুমি যে চিত্তস্থিরের জন্য ধর্শের ছুরারে এত মাথা ঠকৃছে1_ 
তোমার চিত্তবৈকল্যের কারণ কি? তুমি নীরীজন্ম নিয়ে স্বামীর সেবা 
করতে পেলে না-_এই তোমার দুঃখ ? না স্বামী নিয়ে জীবনটার সন্তোগ 
কব্তে পেলে না-_ এই ছুঃখ ? সতা বল্বে- রাজা আমি । 

উন্ধ!! [ ইতস্তত; করিতে লাগিল ] 

আঙজাত | বল, লজ্জা কিসের %॥ হাতে সঙ্কোচ নিষেধ । যা বল্বে 
আমি জানি, তবু শুনতে চাই স্পষ্ট তোমার মুখ দিয়ে, বল। 

উন্ধা। রাজসকাশে মিথা। বল্তে নাই । রাজা! আমার ধারণাঁ_ 
অ*মাঁর মত এই অবস্থায় পণ্ড়ে যদি কোন নারী কোন দিন কোথাও 
খুণাক্ষরে বলে থাকে-_স্বামীসেবার জন্যই নারীজন্ম-_হয় তাঁর মিথ্যা 


৫৮ 


৪ গভাঙ্ক। ] জ্বঙাভ্িম্ণজে৯ 


কথা, উচ্চ চরিভ্রের অভিনয়__নয় সে গল্প, কবির কল্পনা | সত্য বল্‌্তে 
হলে নিজের সম্ভোগে ব্যাঘাতই ঢঃখের মুখা কারণ। 

অজাত | কাগ্তপ । তোমার বাবস্থা__অব্যবস্থা ! স্বামীর সেব! 
করুতে পেলুম না--এই বদি এর চঃখের কারণ হতো, তোমার সর্বজীবের 
সেবায় আত্মার কতকটা পরিতৃপ্তি একদিন হ'লেও হতে পার্তো ; 
কিন্ত প্রাণ চার -নিজের সন্তোগ; তার ব্যবস্থা এ? রক্তপিপাসার় 
যার ওষ্ঠতালু নীরস, তাকে বল বুক চিরে শোণিত ধারা ঢাল্‌তে ? 

কাণ্তপ | ই রাজা, তাই বলি ; আর এ বলা শুধু আমার নয়__-মতীত 
ভারতের চিন্তাশীল ত্রিকালজ্ঞ খধিদের। তাগশিক্ষী ব্যতীত ভোঁগ-শাশা 
নিনত্তির অন্ত পন্থা নাই । 

অজাত | বল্তে পার কাশ্তপ-_ভোগ-আশ] নিবৃত্তির জন্ত তোমার 
ত্রিকালজ্ঞ খধিদের এত চিন্তা কেন? কি ল্গতি করেছে ভোগ-আশী- 
এই সস্ভৌঁগের জগত্তের_ যাঁর জন্ঠ জীবনপাত ক'রে তার বিরুদ্ধে এমন 
উঠে প্ডে লাগা ? ভোগ-আশাঁ_মানবজীবনের কি এমন উতৎকট ব্যাধি__ 
প্রকৃতির দেওয়া স্তরসাল ভোজ্যবস্তর মাঝখানে বসে জীবনব্যাপি 
অনাহার, সোনার জন্মটার মুখে ছাই দেওয়া বার একমারর চিকিৎসা £ 
আমি ত দেখ তে পাই-_ভোগ-আাশী আর ভোগ-নিবৃন্তি__ছুয়েরই পরিণতি 
এক )-ভোগীর অন্তে যে শ্মশানচিতা আশ্রর--যোগীরও তাই; কুল- 
ত্যাগিনী ন্রষ্টা-_সে হয় ত কাদ্‌ছে পাপচিত্র স্মরণ করে মৃত্যু আশঙ্কীর, 
কুলবতী সাধবী-_সেও কাঁদে দেখি অভাবের জালার, সন্তানদের সময়ে 
খেতে দিতে না পেরে । কেন ভোগ-আশ। নিবুত্তির জন্য তভোমাদেন এভ 
মাথা ব্যথা? ছুলভ জন্মটার ওপর এমন নিষ্টরতার বিধান কেন ? 

কাশ্তপ। পরজন্মের জন্য, রাজা! ভোগ-আশ!নিবৃত্বি বাতীত জন্ম- 
নিরোধের উপায় লাই, মার জন্ম-নিরোধ ব্যতীত চঃখের পরিসমাপ্তি নাই । 


৫৯ 


আবজ্াভি০্ণতত | ২য় অঙ্ক) 


জাত | দৌঁহাক্ট কাশ্তপ । তোমার অন্ত তর্ক থাকে ত বল; 
জন্মান্তর এনো না। জন্মান্তরের ভয় দেখিয়েই-_এই উচ্চ ভ্খণ্টায় 
তোমর] নির্বাধ্য, নত, উগগমহীন, অলস, পঙ্থু করে দিয়েছ | স্বাধীন 
মনুযুজাতিকে পণ্ড হতেও 'শধীন, অধম ক'রে তুলেছ ; জন্মান্তর এনো 
না। জলের বুদবুদ ; ফুট লোযার যতখানি তেজ নাচ.লো, ঘুরলে, 
মিলিয়ে গেল; জন্মান্তর আবার কি? 

কাশ্ুপ। না খাঁজ, তৃমিও আর যা বলবে বল, কিন্তু জন্মান্থর 
নম্বন্ধে তর্ক করে না; জন্মান্তর মানতেই হবে তোমায় । 

অজাতি। প্রমাণ দিতে পার? 

কাগ্ঠপ। পারি বই কি? 

শশব্যস্তে শিপ্ভন উপস্থিত হইল। 

শিঞ্জন | মহারাজ ! এখানে আপনি? শামি সমস্ত নগর তন্ন তন্ন 
ক'রে খুজছি | 

মঙ্গাত। কেন--কেন- ব্যাপার কি? 

শিঞ্জন। কোশলরাজ 'প্রসেনজিৎ-- আপনার শ্বশুর-_সসৈম্তে আসছেন 
মগধ 'আক্রমণে । 

মঙজাত | আমার শ্যালক ? 

শিঞ্জন। তিনি অবরুদ্ধ । 

অজাত । তোম্নার এত বিলম্ব? 

শিঞ্জন। ধন্ুডাকাতের ছেলে কলম্ব পথে আমায় আটকেছিল, 
মহারাজ । সপ্তাহকাল আমায় পর্বতগুহার লুকিয়ে থাকতে হয়েছিল! 

অজাত। যাও, সেনাপত্তিকে বল-_সমস্ত মগধবাহিনী সুসজ্জিত 
কর্তে--ষত সত্বর সম্ভব | 

[ শিঞ্জন অভিবাদন করিয়! চলিয়! গেল। 


৬৩ 


৪র্থ গর্ভাঙ্ক | ] তন তস্ণভত 


কাশ্তপ ! তরকের আমার সময় নাই, জন্মীস্তর এখন থাক, অনেক কথা! 
_-পরে দেখা যাবে! এখন একট। কথা জিজ্ঞাসা করি _ ভোগ-আশার 
নিবৃন্তি হলেই আর জন্মাস্তর হবে না, এর কারণ? সংক্ষেপে উত্তর 
দেবে। 

কাশ্তপ। হা রাজা! ভোগ-আশার নিবৃত্তি হলেই আর জন্মান্তর 
নাই | রাঁজা। জন্মের বীজ কর্ম ; রাজপুত্র, দরিদ্র-সন্তান, মূর্খ, জ্ঞানী 
ক্ন্ম- -কনম্ম্ের পার্থক্যেই । আর এ কন্মের অনুষ্ঠান করায় ভোগআঁশী,- 
এ সম্বন্ধে তর্ক উঠতে পারে না,এ স্বতঃপিদ্ধ। তা হ*লেই বুঝে দেখ রাজা! 
ভোগ-আশার নিবুত্তি হলেই আর কর্ম নাই; কন্ধের ধংশ £*লেই_- 
জন্মের নিরোপ | 

অজাত। | উন্কার প্রতি | বিধবা! কন্ম নাই, ধন্ম প্রতারণা । বালক 
বঝিয়ে দিতে চাও, কাশ্ঠপ ! কর্মের ধবংস হলেই জন্মের নিরোধ ? ধর্লুম 
তোমার জন্মীস্তর, আর কর্মফকলেই জন্ম; ত! হলে বল্তে হবে- মৃত্যুও 
কম্মফল? কর্মফলেই যেমন রাজা, দরিদ্র, মুখ, জ্ঞানীজন্ম, মানুষ মরেও 
কেউ বজ্বাঘাতে, কেউ গঙ্গাজলে, কেউ অনাহারে, কেউ উদরাময়ে ; সেও 
কম্মফল? কাশ্ঠপ ! কেউ মৃত্যুরোধ করতে পেরেছে? জগতে আজ 
পর্যান্ত এমন কোন কর্ম বা! কর্মধ্বংসের পন্থার 'আবিষ্ষার হয়েছে__যাঁতে 
মরণ রোধ হয়? তোমার জন্মরোধ আন্দাজি কথায় বিশ্বাস করতে বল? 
মৃত্যুরোধের যখন ক্রিয়া নাই, যদি জন্মান্তর থাকে_ কর্্মই কব, আর 
ক্রি ধবংসই কর, জন্মেরও রোধ নাই! কিস্থার্থে ভে।গ-আশার 
নিবৃত্তি_ভূতের বেগার! বিধব|! কর্ম নাই, ধর্ম প্রতারণ'; জীবন 
উপভোগের | 

প্রস্থান । 
কাশ্তপ। বিধবা ! 


৬১ 


অহী তস্পতহ | ২য় অস্ক; 


উ্কা। থাক, আমি কর্ম পেয়েছি | 

কাশ্ঠপ | সর্বনাশ ! কি কর্ম ? 

উল্কা। এই রাজীকে বাঁচানো । 

কাশ্ঠপ | জীবন উপভোগের নয়, বিধব! ! 

উন্ধা। জীবন উপভোগের নয়---জীবন উপবাসেরও নয় ;-_-জীবন 


'অপবায়ের | 
| প্রস্তান ৷ 


কাশ্তপ। বুদ্ধং মে শরণং। 
বৌদ্ধগণ | বুদ্ধং মে শরণং। 
কাশ্রপ | ধর্ম্ং মে শরণং | 
বৌদ্ধগণ | ধর্ং মে শরণং | 
কাম্ঠপ | সঙ্ঘ মে শরণং। 


বৌদ্ধগণ | সঙ্ঘ মে শরণং। 
| বৌদ্ধগণসহ কাশ্ঠপের প্রস্থান । 


উ্থান।-_ 
গীত। 
খাও দাঁও -ওড়াও মজা--ভয় কর ভাই কারে ! 
য'রে গেলেই ফুরিয়ে গেল-কে কার কড়ি ধারে। 
পাপ, পুণা, পুনর্জন্স, স্বর্গ, নরক, কিছুই নয়, 
আনতে বশে, ধাত্রী যেমন ছেলেয় দেখায় জুজুর ভয় ) 
করুক গে সে চিত্তয় যার মাছ জমে নাই চারে। 
ভোগের জগত--ভোগের আলে! -ডোগের বতাস জল, 
এ ভোগ-তুফানে তাগের তরী বাঁধবে কে এক পল ; 
মুপোস প'রে বইবে ফসল কেবল বোকা ধাড়ে। 
প্রস্থান 
৬ 


উত্তয়ে। 


নারী । 
পুরুষ । 
নারী । 


পুরুষ। 


নারী। 


নারী। 
পুকষ। 


উভয়ে । 


১৩ 


গাঞ্থ৪ মস গব্ডাক্ 
গৃহাশ্রম | 
সার দম্পতি 


গীত। 
ংসার ধম্মী__ আমর! পুরুষ নারী । 
আমাদের ধন্মকথা-_আমরাও কেন পাড় তে ছাড়ি । 

দ্বিতীয়ে দুপুর-মাঁতন-__ 

আমি যাই এলো চুলে রান্নাশালে পিগ্ডি চটকাতে 

আমি যাই পিছু পিছু, আগুন নিতে-__হু'কোটা হাতে 
আমার হাঁড়ির মাপে ভয় না সর! 
মন্দ! জ্বালে চড়াই কড়া, 


রাধি তাতেই রসের বড়া আমড়ার অন্বল 
কচি আমের অন্বল, 


ভ্রৌপদীর রান্নাগুলি, আমি যে হাইতে গিলি 
ছববেল। চোখে আসে জল-_ 
আমার চোখে আসে জল 
তুমি পাবে কোথায় স্বাদ, 
তোমার চোখের ক্ষিদে জিবের অবদাদ ; 
তোমার তৈরা হেসেল মাব্বে কুকুর 
যদি দাও মিথা। অপবাদ; 
চ*টৌনা--দই আছে দি, অরুচির যা দরকারী, 
আর দই ব'লে সই, চালিয়ে। না ঘোল 
এ চাদ মুখই মোর তরকারী । 
ইতি--সংসার ধর্শে আমাদের হপুর-সাতন | 


| প্রস্থান 


হন্ঠ গভ্ডাক্ক 
মগধরাঁজপ্রীসাঁদ সংলগ্ন সেনাপতির কক্ষ । 
অভ্রনীল ও মন্ত্রী দাড়াইয়াছিলেন । 

মন্ত্রী। তোমার সৈম্তদের উৎসব দেখ তে যাও নাই অভ্র? 

অন্র। আজ্ঞে না; চিত্তটার বেশ শাপ্তি নাই। 

মন্ত্রী। কেনকেন? 

অন্গ। সৈম্তদের এবপ অবাধ ছেড়ে দেওয়া ভাল হয় নাই, মন্ত্রী 
মনাঁশর । 

মন্ত্রী। বা! তারা বৎসরের মধ্যে একটা! দিন আনন্দ কর্বে, 
তার জন্য তার! মাসাবধি ধরে আবেদন কর্ছে__ 

অভ্র। সে আবেদন-পত্রে আমি স্বাক্ষর কর্তাম না, কেবল আপনার 
আগ্রহ্াতিশয়ে__ 

মন্ত্রী। শুধু তোমার আমার স্বাক্ষরে ত হয় নাই, মহারাজ নিজে 
মণ্ডুর করেছেন | 

অভ্র। সেও আপনারই মন্ত্রণায় | 

মন্্রী। তাতে হয়েছে কি তোমার ? 

অত্র। ঝড় ওঠে যদি? 

মন্ত্রী। সেকি! মেঘকই? 

অভ্র। বিনা মেঘেই ? 

মন্ত্রী! তাঁষদি ওঠে-_তুমিই বাকি কর্বে, আমিই বা কি কর্বো 


ভগবানের ইচ্ছা । 
৬৪. 


গর্ভাঙ্ক | ] অতবজাততপ্পত 


অভ্র। না মন্ত্রী মহাশয়; আমি চল্ুম, অস্ত্রাগার কায়দা করি 
সৈম্যদ্দের গোছাই। 


শিগ্তন উপস্থিত হইল । 


শিঞ্জন। সৈম্ত সাজীও, সেনাপতি ! সমস্ত মগধ-সৈন্ত-_এই মুহুর্তে 
মহারাজের আদেশ । 

অভ্র। কারণ কি শিপ্রন ? এ সন্ধ্যার অন্ধকারে যুদ্ধ সজ্জা ! 

শিঞ্জন। কোশল আস্ছে সেনীপতি--তার রক্ত-কণিকার কাটান্ুটা 
পধান্ত নিয়ে; এখনও এসে পড়ে নাই__এই সৌভাগ্য ; দাড়িযো না। 

অভ্র। বিনা মেঘেও ঝড় ওঠে, মন্ত্রী মহাশয় ! 

| প্রস্থান । 

ম্ত্রী। শিঞ্জন ! শুধু কোশলই আস্ছে, না আর কেউ যোগ আছে? 

শিঞজন। যোগ হয়েছে কি না এখনও-_বল্তে পারি না, তবে যোগ 
দেবার জন্ত প্রকারাস্তরে ডাক? হয়েছে দু”্চার জনকে- জানি ! 

মন্ত্রী। সংবাদটা বড় অসময়ে দিলে শিঞ্জন ' 

শিঞ্জন। আমার কোন ক্রটী নেই, মন্ত্রী মহাশয় । কোশলরাজ আমায় 
বন্দী কর্বার চেষ্টা করেছিলেন, আমি যথাসময়েই সরেছিলাম ; কিন্তু 
ধন্ুডাকাতের ছেলেটা আমার সময়ট! নষ্ট ক'রে দিলে । 

উদ্ধশ্বাসে অভ্র পুনরায় উপস্থিত হইল। 

অভ্র। মহারাজ কোথায় ? শিঞ্জন, মহারাজ কোথায় ? 

শিঞ্জন। কেন কেন? 

অভ্র। মহারাজ কোথায় বল? প্রাসাদের ভিতর না বাইরে ? 

শিঞ্জন। বাইরেই ছিলেন, আমার সঙ্গে সঙ্গেই এলেন দেখলুম ৮ 
সম্ভব ভিতরে চুকেছেন। 
৬৫ 


অ-_-৫ 


তমতশেভস্পহ | ২য় অধ; 
অভ্র। এঃ! 
শিঞ্জন। কেন? ব্যাপার কি? ফিরলে ষে তুমি? 
অভ্র। যাবার উপায় নাই ; প্রসাদ অবরুদ্ধ! 


মন্ত্রী ও শিশ্ন । অবরুদ্ধ ! 
অভ্র। সংখ্যাতীত সৈন্তে, একটা মক্ষিকার পধ্যস্ত উড়ে যাঁবার 


ফাক নাই। 
মন্ত্রী। ভগবান! ভগবান! 
শিঞ্জন। অন্ত্রাগার? 


অভ্র। কোশলরাজ প্রসেনজিৎ স্বয়ং তার দুয়ারে । 

শিঞন। সৈম্তশিবিরও অধিকৃত তাহ*লে ? 

অভ্র। সে আর বল্তে। শিঞ্জন, তুমি মহারাজের সন্ধানে যাও) 
আমাদের দশায় যা হয় হোকৃ_তাকে নিরাপদ করতে হবে! মন্ত্র 
মহাশয়! আপনি রাজকোষ হ'তে এক লক্ষ স্বর্ণমুদ্রা নিয়ে আসুন, 
মহারাজকে সরাতে হবে; গায়ের জোরে আর হবে না। 


বীবাশ্বেত উপশ্থিত হইল । 


বীর্ধযশ্বেত। স্বর্ণমুদ্রীর জোরেও হবে নী, মগধ-সেনাপতি ! কোশল- 
রাজ্য সে ধাতৃর নয়। ধন্যবাদ দিই তোমার উপায় উদ্ভাবনকে ; মগধের 
সেনাপতি না তুমি ? তোমার মস্তি্ষ এত কলুষিত ? হবেই ত, যেমনি 
রাজ্যপিপান্থ রাজা তেমনি তার অর্থপ্রিয় সেনাপতি । 

শিঞ্জন। তোমার রাজারই বা এ কি নীতি কোশল-সেনাপতি ? 
এই অতফ্ষিত আক্রমণ ? 


টক্কার উপস্থিত হইল । 
টক্কার। পিভৃদ্রোহী শ্বাপদ হিংস্রককে আক্রমণের আঁবার নীতি কি? 


৬৬ 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক | ] তঅভাভিষ্পপ্র 
অজ্াতশত্র উপস্থিত হইলেন । 


অজাত। কে বলে অজাতশক্র পতৃব্রোহী ? 
টক্ষার। বিশ্ব-্রহ্গাণও বলে। 
অজাত। মিথ্যাবাদী বিশ্বব্রদ্ষাণ্ড ; রসনা উৎপাটন কর, ০ নাঁপতি । 


প্রসেনজিত উপস্থিত হইলেন । 


প্রসেন। আমার রসনা আগে উতৎপাটন কর; আমি বলি-_বিশ্ব- 
বন্মাও হতেও উচু গলায়__-অজাতশক্র পিতৃদ্রোহী | 

'অজাত | | ক্ষণেক ইতস্ততঃ করিয়। | আপনার রসনা আর উৎপাটন 
করবো না, আপনাকে আমি রসন! সত্বেও বোবা! করবো । কিসে আমি 
পিতৃদ্রোহী ? মিথ্যাকথা- ত্রান্তের কল্পনা। আমি ধন্মদ্রোহী হস্তে 
পারি। পিত৷ আবার কে ? জীবের জন্মদাতা, জন্মদীয়িনী-_-সব একমাত্র 
প্রক্কতি | 

প্রসেন। চুপ কর, চুপ কর অজাতশক্র! এ কথা শ্রন্লে জীব- 
জগত ক্ষিপ্ত হঃয়ে উঠবে জন্মদান, গর্ভধার! স্থষ্টি হ'তে উঠে যাবে; 
তোমার প্রকৃতি পধ্যন্ত অপ্রকৃতিস্থা হরে দাড়াবে। 

অজাত। হোক্‌ প্রকৃতি অপ্ররুতিস্থা, উঠে যাক জন্মদীন, গভধরা ) 
উঠুক ক্ষেপে মূর্খ ভ্রান্ত জীব-জগত )-শুন্থক সে সত্য বাণী__জীবের 
জন্মদাতা, জন্মদীয়িনী-_প্রকৃতি | 

প্রসেন। অজাতশক্র ! 

অজাত। চুপ করুন আপনি, আপনার প্রতিবাদ শোভ পায় না; 
আপনি আমা হ'তে কোন অংশে কম নন। আমি পিতাকে অবরোধ 
করেছি, আপনিও পুত্রকে বন্দী করেছেন। আমি ষছ্দি পতৃদ্রোহী, আপনিও 


৬৭ 


অজাতস্ণক্র (হয় অঙ্ক; 


পুক্রদ্রোহী। আমার কথা শুনে জন্ম দেওয়। যদি জগত হতে উঠে যায়, 
আপনার কাণ্ড দেখে-_-জন্ম নেওয়াও উঠে যাবে । 

প্রসেন। চমৎকাঁর বিচার তোমার, অজাতশক্র !। পিতৃদ্রোহ- আর 
পুত্র শাসন-_ 

অজাত | সমান। কে পিতা? কে পুক্র? আপনি ধাকে পিতা 
বল্ছেন__-তিনি অতীতের পুক্র, যাকে পুত্র বল্ছেন-_ সে ভবিষ্যতের পিতা| | 

প্রসেন। তা হলেও পিতা পিতা ; পুত্র পুত্র । 

অজাঁত । ছোট বড় ছুয়ের কেউ নয়; দেনা পাওনা কারও সঙ্গে 
কাঁরও নাই ; উভয়েরই সমান আদান প্রদীন। পিতা পুত্রের জন্ম দেয় 
-_-পাঁলন করে, পুক্রমুখও পিতার প্রাণে আনন্দ দেয়_-তৃপ্ত করে। 

প্রসেন। জগত ! কর্ণে অঙ্গুলি দাও, অন্যমনস্ক হও; এ ভাষা যেন 
তোমার কানে নাষায়, এ ভাব ষেন তোমার প্রাণে না ঢোকে। 
সেনাপতি ! বন্ধন কর, বন্ধন কর' 


ক্ষেমাদেবী উপস্থিত হইলেন । 


ক্ষেমী। রজ্জু চাই? রঙ্জু চাই? আমার কেশগুচ্ছ কেটে নাও ।' 


বেণুদেবী উপস্থিত হইলেন। 


বেণু। মা! আবার? 

ক্ষেমা। হ-আবার | 

বেণু। এখনও তোমায় সাবধান কর্ছি, মা! মহারাজ বিশ্বাসার 
তোমায় পাঠিয়েছেন__ষার আদেশ জানাও | 

ক্ষে্1। মানি না মহারাজ বিষ্বাসারের আদেশ | 

বেধু। তোমার স্বামীর আদেশ ? 


৬৮ 


ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক | ] তজীতিস্শঞ 


ক্ষেমা। মানি না। 
বেণু। নারী ধন্ম? 
ক্ষেমা! মানি না! 


বেণু। [ স্তব্ধ হইলেন ] 

ক্ষেমা। নারী-ধর্শ-_শুধু স্বামীর দুঃখে সার! হয়ে, স্বামীর উত্তরীয় 
প্রান্ত ধ'রে একত্রে বসে এক স্থরে কান্নাই নয়, বেণু! স্বামীর ছুঃখের 
কারণ ধরে, তাকে দলিত পেষিত শৃঙ্খলিত করে, তার অনুতপ্ত নত 
মস্তকে স্বামীর চরণ পুজার আসন রচনা__সেও নারী-ধম্ম। হোক্‌ 
মহারাজের আদেশ, হোক স্বামী আজ্ঞা”_-আমি সুযোগ পেয়েছি--_ 
ছাড়বে না)__সেই নারী-ধন্ম পালন করবো! বন্ধন কর, প্রসেনজিত। 
বন্ধন কর। 

বেণু। বাবা! মহারাজ বিম্বাসারের ইচ্ছাঁ_তীর পুভ্রের বেন 
বিন্দুমাত্র অমর্ধ্যাদ। না হয়, ভারতবষ তাঁকে ঠিক মগধেশ্বরই দেখে যেন। 
তিনি তার অবরোধের প্রতীকার চান্‌ না; প্রয়োজন হলে সে প্রতীকার 
তিনি নিজেই কর্তে পার্তেন, কারও সাহায্যের অপেক্ষা করতে হতো 
না। এ অবরোধে তিনি বথিত নন, বরং আনন্দিত নির্জন, নিশ্চিন্ত 
ধর্মচিন্তার জন্ত | বুঝে কাজ কর, বাবা! 

ক্ষেমা। তার চেয়ে বল না বেণু, স্পষ্ট কথা-_তুমি বাবা, আমি মেয়ে, 
আমি রাজ্যভোগ কর্ছি, মগধের মহারাণী হয়েছি- তোমার এ বুক- 
ব্যথা কেন? আমার স্বামীকে ছেড়ে দাও, তুমি স'রে যাও ।, 

বেু। মা! আর আমি তোমার মর্যাদা! রাখতে পার্লুয ন1) 
তুমি বার বার আমার রাজ্যই দেখাচ্ছ। রাজ্যন্থথের প্রয়াসিনী আমি-_ 
না ক্ষেমাদেবী তুমি ? 

ক্ষেমো। আমি-_আমি; সত্যই ত। তুমি আমার রাজ্য আত্মসাৎ 


৩৯ 


জনা ভিেম্ণহত [ ২য় অন্ধ; 


কর্ছ, মুখের গ্রাস কেড়ে নিচ্ছ, ব্রহ্মতালুতে দংশন কর্ছ,-_রাজা-প্রয়াপিনী 
আমি, সর্ধগ্রাসিনী আমি, বিষধরী ভূজঙ্গিনী আমি | 

বেণু। শত বার। তোমার রাজ্যটা কিসের মা. আত্মসাৎ করছি 
ভোমার মুখের গ্রাস কাঁড়তে গেল কে? তোমার ব্রহ্মতালুতে দংশন ত 
কেউ করে নাই। পিতার রাজ্য-_পুক্র নিচ্ছেন, ধার মুখের গ্রাস_-তিনি 
হাতে তুলে দিচ্ছেন, যাঁর ব্রন্মতালু ক্ষত-_তিনি নির্বিকার স্থির ; তুমি 
কে? তোমার এত গায়ের জালা _ছট ফট. ক”রে বেডাচ্ছ ? 

ক্ষেমা। শুন্ছে! প্রসেন, শ্তন্ছো তোমার বিদুষী কন্ঠার উক্তি? 
আমি কে! ছটফট ক”রে বেড়াচ্ছি! বেণুদেবী! রাজ্য-অপহারক 
অজাতশক্রর তুমি যে, হৃতসর্বস্ব বিশষ্বাসারের আমিও সে। তুমি যদি 
যহারাজ বিষ্বাসারের আদেশের ভাঁণে শক্রর শক্র রোধ ক'রে বেড়াতে 
পাঁর, আমারও এ ছট ফটানি অসঙ্গত নযঘ়,__যাও । প্রসেন! ভাবছ কি? 
কন্ঠার মুখ ? বন্ধন কর- বন্ধন কর। 

বেণু। কার সাধ্য, মগধেশ্বর বিষ্বাসারের আদেশ অমান্য করে! 

ক্ষেমা। আমার সাধ্য ; আমি করি, 

বেণু | সাবধান, ক্ষেমাদেবি ! 

ক্ষেমা। সাবধান, বেণুদেবি ! 

কাশ্যপ টপস্তিত্র হইলেন । 

কাশ্ঠুপ। শীস্ত হও মা মগধেশ্বরী-_বিশ্বাসাঁর-মহিষী ! 

ক্ষেমা। গুরুদেব! [অভিমানে কীদ-কীদ হইলেন ] 

কাশ্ঠপ! মহারাজ বিষ্বাসারের আদেশ না মান, তোমার স্বামীর 
আদেশ না মান, নারী-ধর্শশ না মান, _মানব-ধর্্ তোমায় মান্তেই হবে 
যে মা! মমতাময়ি ! 


ক্ষেযা। মানবন্ধন ? 
লী 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক |] অকজ্গাত্ি্শপ্রত 


কাশ্টপ। অহিংসা। মানব-ধর্- নির্মল শুদ্ধ দৃষ্টি, সত্য বাক্য, 
সথসঙ্ষল্প, সাধু ব্যবহার, পুণ্য কর্ম, সাঁধু উপজীবিকা, শুদ্ধ স্মৃতি, সত্য 
ধান-_-এই অষ্টবিধ অনুষ্ঠান আর হিংসা, চৌর্য্য, পিশুনতা, যথেচ্ছ- 
আচার, মিথ্যাচার, পরুষতাঁ, বিরুদ্ধভাষিতা, মিথা! মনোযোগ ; মিধ্যা- 
দৃষ্টি, প্রাণীবধ__-এই দশবিধ পরিত্যাগ | 

ক্ষেমা। গুরুদেব! বড় জ্বালা । 

কাশ্প। কিসের জ্বালা, শাস্তিময়ি। দ্রঃখের? ছুঃখ নাই ) ছুঃখ 
অবিদ্যার ভ্রান্তি। স্থখের তৃষ্ণা রোধ কর,_-কর্্ম নাই, জন্ম নাই, মৃত্যু 
নাই, সুখ ছুংখ কিছুই নাই, আত্ম! অস্পন্দ, অক্রিয়, অসীম অনস্ত শাস্তির 
পারাবার। যাঁও মা দেবসহধন্মিনী--অন্তঃপুরে । 

ক্ষেমা। [ নীরবে দীর্ঘশ্বাস ফেলিলেন ] 

টক্কার | দিলে! দিলে_-অমন বজ্রবিদ্যৎভর! বৈশাখী মেঘখানায় 
হাওয়ার উড়িয়ে? দিলে-_রৌষ-দৌছল উদ্যত ফণাটায় মন্ত্রমুগ্ধ জরসর 
ক'রে? দূর-_ ্‌ 

কাশ্তপ। তৃমিও শান্ত হও টক্কীর, তোমার জীবনদাতা আবার বন্দী 
কোথায়? দেখ, এখনও তিনি বন্দীর মুক্তি দেবার ক্ষমত! রাখেন । 

প্রসেন। ঠাকুর 

কাশ্তপ। তুমি অহিংসাধন্্ী, প্রসেনজিৎ! কথ! কয়ো, না; এস 
আমার সঙ্গে | 

[ প্রসেনের হস্ত ধরিয়! প্রস্থানোদ্যত ] 

অজাত। কাম্তপ ! সাবধান! 

কাশ্ঠুপ | কিসের সাবধান, রাজা! 

অজাত। সিংহকে পিঞ্জরমুক্ত করছে সে পোষ মান্বে নাঃ 
সাবধান । 
৭১ 


খতন াশতস্পতনচ | ২য় অঙ্ক; 


কাশ্তপ। আমি ত সিংহকে পিঞ্জরমুক্ত করি নাই, রাজা! আমি 
এক তরুণ সুর্য্যকে মেঘমুক্ত কর্ছি। 
অজাত। এখনও বল্ছি কাশ্তপ, সাবধান! সে হুর্যের (প্রখর 
উত্তাপে আশ্রয় নেবার বৃক্ষতল-__তুণাঙ্কুরটী পর্য্স্ত থাকবে না! 
কাশ্তপ। তার জন্ত সাবধান হবার কিছু নাই রাজা! যে সৃর্ধ্য- 
তাপ বুক্ষ তৃণ শুষ্ক করে, সেই হর্যতাপই আকাশে মেঘের সঞ্চার 
এনে অশ্রান্ত জলধারায় নূতন বুক্ষ নৃতন তৃণের জন্ম দেয়; ধ্বংসেও 
ধর্ম আছে | 
[ প্রসেন, ক্ষীর ও বীর্ষশ্বেত সহ প্রস্থান । 
অজাত। ধ্বংসে ধর্ম নাই, কাশ্তুপ 1 ধর্মেই ধ্বংস । আর প্রমাণ 
নয়, বিচার নয়, এবার আমি তা' প্রত্যক্ষ করাব তোমায়! কাশ্ঠপ ! 
মগধেশ্বর শক্তিহীন, অমনি কোশলেশ্বরকে ধরেছ ! কোশলও থাক্‌বে 
না। মনেও ক”রো ন1--কোঁশল যাবে, আবার কৌশাম্বী আছে ; কোশলকে 
আমি এমনভাবে ফাওয়াব__মাথা তোলা! ত দূরের কথা পৃথিবী খুঁজে 
মার উকি মারবার লোক পাবে ন1| 
[ প্রস্থান, পশ্চাৎ পশ্চাৎ শিঞ্জনের প্রস্থান | 
মন্ত্রী। অভ্র! আর না, আমার রাজ কার্যে অবসর । 

প্রস্থান 
অভ্র। আমার অবসর বোধ হয় একেবারেই । 

[ প্রস্থান । 
বেথু। ক্ষমা কর মা! আমাদের ক্ষমা কর। [ ক্ষেমার হাত ধরিলেন ] 
ক্ষেমা। চেষ্টা কর্ছি, বেণু ! চেষ্টা কর্ছি। 

[ সকলের প্রস্থান । 


প্‌ 


তৃতীয় অন্ক। 
প্রথন্ম গর্ভাক্ষক। 
যজ্ঞভূমি | 
যজ্জীয় অনুষ্ঠানাদি সজ্জিত । 
আজীবক ও ব্রাঙ্গণগণ দ্রাড়াইয়াছিলেন। 
আজীবক | [ উদ্দেশে ] শ্রেচ্ছ-যুগের বিল আছে, ভারতবষ | 
এখনও যজ্ঞোপবীতধারী বাসব-শীসক ব্রাহ্মণ বর্তমান, এখনও তাঁদের 
আরাধা উপাস্ত সর্বস্বধন__বেদ; এখনও তার প্রত্যেক মন্ত্রপুংঞ্ডি 
জীবন্ত, অব্যর্থ) দেরী আছে যথেচ্ছাচারের। ব্রাঙ্গণগণ ! ব্রহ্গণাদেবকে 
জাগ্রত ক'রে__আপন আপন আসন গ্রহণ কর। 
্রাঙ্মণগণ | জয় ব্রহ্মণাদেব। [স্বস্ব আসনে উপবিষ্ট হইলেন ] 
আজীবক | [ উদ্দেশে ] খধি দুর্বাসা ! আজ তুমি কোথার ? 
কর্শ-কাণ্ডের ব্জরকীট কৃষ্ণের সঙ্গে দীর্ঘ দ্বাপরব্যাপি প্রতিযোগিতার 
বৈদিক ধর্ম রক্ষা ক'রে গেছ তুমি ; আবার যে তার পুনরভিনর ! প্রণাম 
তোমায় ; যেথায় থাক-_-আশীর্বাদ কর তোমার কুল পুত্রদের ; শক্তি 
দাঁও- জীর্ণ দেহে জগত শাসনের । ব্রাঙ্গণগণ ! গায়ত্রী চিন্তা ক'রে 
কর্ন আরম্ভ কর। [ নিজ আসনে উপবিষ্ট হইলেন ] 
ব্রাহ্মণগণ | ও-_ 


৭৩ 


অনতাভিপ্শতেত [৩য় অন্ধ, 


গীতকণ্ে ম্গালি উপস্থিত হইল । 


মদগালি 1 
গীত | 
কেন ভন্মে ঢাল ঘত। 
যত নাড়া দাও-__দাড়াবে নয! জীবনশৃহ্য, মৃত। 
আজী। ব্রাঙ্গণগণ ! অত্যাচারটা দেখ একবার ! স্বর্শ-ুন্দুভির 
প্রথম নিনাদেই বিদ্-দৈত্যের বিকট চীৎকার। [ মদগীলির প্রতি | 
তোমার নাম বোধ হয় মদগালি? তোমায় পাঠিয়েছে ; কাগ্ঠপ-_না ? 
মদগালি।__ 
[ পুর্বগীতাংশ ] 
আমি নত্যের প্রেরণা 
আমর শ্বেচ্ছাগতি-স্বতাব গীতি__ 
মপগালি সেবক কারে ন।; 
আমার রাজ জীবনী জীভগবান বুদ্ধদেবের কৃত্ত। 
আজী | দূর হও, দূর হও বেদনিন্দুক বুদ্ধের উপাসক ! দূর হও 
উচ্চৃঙ্খল, যথেচ্ছ চীরী শ্রেচ্ছ ! 
মদগালি!-_ 
তা 
আছি দুরে__অতি দুরে_ 
শাস্তি-হুখ-সম্পদ ভরা প্রেমের রাঁজপুরে: 
কেন হিংসায় মর পুড়ে, হও প্রভুর অনুস্যত | 
আজী। ব্রাঙ্গণগণ! কি দেখছ? নরক। কিশুন্ছ? প্রেতের 
অর্থহীন উদ্মাদ চীৎকার। শান্তি দাও_ শাস্তি দাও; ওর সমুচিত শাস্তি 


৭8 


বাড়া তবজাীতিস্পত্হ 


_-ওর গব্বিত পাপ মস্তকে মর্মাহত ব্রাহ্মণের এই পাছুকা' প্রহার। 
| পান্বক] প্রহারে উদ্যত ] 
গীতকণ্টে ভিক্ষুগণ উপস্থিত হইল । 


ভিক্ষুগণ | 
গীত। 


শত শির পাতা-শতেক পাদুকা কর গে। ঝর প্রহার । 
শত বুক চিরে পান কর--একই শোণিত-ধার । 
শত জীবনের মরণ হাসে, 
যাও শতক্রতুর স্বরগ বাসে, 
শোন জয় গান শত কে ন্বত; নিবিবকার,-- 
পাঁবে না অশ্রু শতটি বিন্দু, 
ডুবিবে না সৎ অমল ইন্দু, 
হবে না শু শত অগন্তে প্রেমের পারাবার । 
[ প্রহারাথে সকলে মস্তক পাতিয়1 দিল ] 
আজী | [উদ্দেশে] খষি ভার্গব! একবার তোমার আচারত্রষ্ 
ক্ত্ররক্ত-ন্নাত পুণ্য কুঠারখানি এই আজীবক ব্রাহ্গণকে দিতে পার? 
দাও না, দেব! তুমি ত্রিসপ্তবার ধরণীকে নিঃক্ষত্রিয়া করেছিলে-_ 
আমি একটা মুহূর্তও বন্ধন্ধরাকে বৌদ্ধশূন্ করি। 


কাশ্যপ উপশ্থিত হইলেন । 


কাশ্তপ। আর তা হয় না, আজীবক ! তোমার ভার্গবের হিংসামর 
উগ্র কুহার সত্য-অবতার দাশরথির শাস্তিময় শ্যামরূপে মুগ্ধ মৃচ্ছিত_ 
নিশ্তেজ। 

আজী। কাশ্ঠপ ! কাশ্তপ ! যাই কর--তৃমি ব্রাহ্মণ সন্তান, আমার, 


৭৫ 


আনভাা্চস্পঞ্ত | ৩য় অঙ্ক; 


যজ্ঞে বিদ্র দিয়ে! না; আমার অন্ুরোধ--তোমার স্বেচ্ছাচারী সহ্যাত্রীদের 
নিয়ে যজ্স্থল হ'তে যাও । 

কাশ্তপ | যাচ্ছি, আজীবক ! অনুরোধ করতে হবে না; আমার 
বুঝিয়ে দাও-_-তোমার এ বজ্ঞ কি জন্য? জগতের কল্যাণে, না 
জগতের প্রতি হিংসায়? 

আজী। এ, কাশ্ঠপ ! তুমি কখনও ব্রাহ্মণ-সস্তান নও । 

কাশ্ঠপ। সত্য বলেছ, আজীবক ! তোমার এ যুক্তির প্রতিবাদ আমি 
কর্‌্তে পার্ব না। আমি রাহ্মণ-সন্তান নই, আমি মানব-সম্তান। 

আজী। তুমি চগ্ডাল। তুমি ব্রাহ্মণের অনুরোধ অগ্রাহ্য কর, 
বৈদিক বজ্ঞ হিংস! বল, অতীতের আধ্য খফিদের ছুন্ণাম দাও,_তুমি 
চগাল । 

কাশ্তপ। বাধ্য হ'লাম ব্রাহ্মণ__চণ্ডাল হ'তেই | যদিও চগ্ডাল 
জগতের চক্ষে নিশ্মম-_-কঠোর, কিন্তু তার মধ্যে ব্রাহ্মণত্বের এ কদর্ধ্য গর্বব 
নাই__তাতে বেশ একটা নীচতার নিঃসঙ্কোচে আনন্দ আছে। আমি 
তোমার অন্থরোধ অগ্রাহ্থা করি, আজীবক ! তুমি একাধিপত্যের নেশার 
জগতের বুকে বিষ উদগীরণ কর্বে, আর তুমি ব্রাহ্মণ বলে আমি তোমার 
অন্ুুরুদ্ধ হস্তপদবদ্ধ বোব! হ*য়ে থাকৃব? আমি তোমার এ যজ্জকে 
সহজ্রবার হিংস! বলি ; তুমি বেদের দোহাই দিয়ে প্রতি ূর্ধ্যান্তে লক্ষ লক্ষ 
নিরীহ নির্বাকৃ প্রাণী বধ কর্বে, আর যজ্ঞের বিধান ঝ্লে মস্তক 
অবনত ক'রে, আমি তা! দরা, করুণা, কল্যাণ, পুণ্য বলে মেনে নেব? 
তোমার আধ্য খধিদের ছুন্ণম আমি দিই না, তীদের চরণে শত কোটা 
প্রণাম; এ হত্যাময় রক্ত-প্লাবিত জ্ুর উদ্দেন্ত কখনই তাদের নয়-_ 
তাদের ষজ্জধের অর্থ নিশ্চয় অন্তরূপ ; তাদের যজ্ঞস্থল-__-মানবের পবিত্র জদর, 
জ্জানল- জ্ঞান, যজ্ঞ-পঞ্ড--কাম। 


০, 


১ম গর্ভাঙ্ক। ] বত ৎ্স্প ত্র 


ব্রাঙ্গণগণ | [ সমস্বরে ] সত্য--সত্য- _সতা। 

আজী। [ সপদদাপে] স্তব্ধ হও__স্তব্ধ হও, অপরিণামদশীগণ ! 
কার উত্তেজনায় সায় দিচ্ছ ) আচমন কর-_আঁচমন কর, জিহ্বা তোমাদের 
অপবিত্র হয়েছে । বল-- অপবিত্র পবিত্র বাঁ_ 

কাশ্ঠপ ৷ প্রয়োজন নাই, ব্রাহ্মণগণ ৷ সত্যের পৌষকতায় সত্য শব্দ 
উচ্চারণ করে__যদি জিহবা অপবিত্র হয়, তাকে পবিত্র কর্বার আচমন- 
মন্ত্র কোন শাস্ত্রে নাই, তার আচমনীয়-জল কারও কমগুলুতে নাই। 

ব্রাহ্ষণগণ | সত্য-_--সত্য। 

আজী। ভম্ম হবে ভম্ম হবে। দেখতে পাচ্ছো _পামরগণ 
অগ্রিন্ফুলিলময় উদ্ধে কি? তোমাদেরই মর্মাহত পিতৃপিতামহগণের 
্ুদ্ধদৃষ্টি! সাবধান-_সাবধান! 

কাশ্তপ | নির্ভয়! নিয়! অন্তরে অনন্ত ধারায় বিশ্বপ্রেমের জীবন- 
পিন্ধ উদ্বেলিত; কি ভয় অগ্রিশ্কুলিঙ্গের% এ দেখ পবিত্রাত্মাগণ ! কজ্জ 
তোমাদের পুণ্য-চরণে প্রণাম ক'রে সজল-নয়ন-_স্থির | 

ব্রাহ্গণগণ | সত্য। 

আজী। কুলাঙ্গারগণ। স্বধন্মে নিধনং শ্রেয়ঃ, পরধন্ম্ম ভয়াবহ | 

কাশ্তপ | ব্রাহ্ষণগণ ! তোমাদের স্বধন্ম কি? তোমরা শ্বাপদ পণ 
নও, তোমরা! মানব-_-মানবের শ্রেষ্ঠ; তোমাদের স্বধন্ম কি পিশুনতা।) 
পরুষতা, দুর্বলের প্রতি যথেচ্ছাচার ! না, তোমাদের স্বধর্ম্ম-_-শুদধ দৃষ্টি, 
স্সন্কল্ন, জগতের প্রতি সাধু ব্যবহার ? মানব-ধর্মম-_হিংসা, না অহিংস! ? 

ব্রাঙ্মণগণ | অহিংসা মানবন্ধন | 

আজী। [ ক্রোধে আত্মহীর! হইয়। নিজে নিজেই আচমন করিতে 
লাগিলেন ] গু বিষণ! ও বিজু! 

কাশ্তপ। মানবস্রেষ্ঠগণ! কামনার সহশ্রভুজা প্রতিমা-পৃজা: 


৭৭ 


ঘআ্নভাা সণ [৩য়অন্ক; 


তোমাদের ধন্ম নয়, তোমাদের লক্ষ্য- নির্বাণ; তার যজ্ঞ, ব্রত, 
নিয়ম, বিধান_নিফাম; তার প্রক্ুষ্ট অনুষ্ঠান__অহিংসা পরমো 
ধন্ম। 

ব্রাহ্মণগণ | [ আনন্দ উচ্চকণ্ঠে ] অহিংস] পরমে। ধর্ম । 

আজী। [ পুর্বভাবে ] ও বিষ্ণু! গু বিষ! 

কাশ্তপ। এস, বন্ধুগণ ! বন্ধুর এ ভেদভূমি হণতে শ্রীভগবান বৃদ্ধ 
দেবের পবিত্র সমতলে! | অগ্রসর হইলেন ] 

ব্রাহ্মণগণ | জয় ভগবান বুদ্ধদেব! | কাশ্যপের অন্ুনরণোগ্ভত | 

আজী। [ বাধা দিয়া ] দীড়াও, কাশ্তপ | [যজ্ঞ ভূমি হইতে খড্গ 
তুলির! লইয়া ] খঙ্জা নাও, আমার হত্যা ক”রে বাও। 

কাশ্তপ। তোমায় আমি হত্যা কর্ব, আজীবক ! ও পশ্তিঘাতী 
খঞ্জো নয়; তোমায় হত্যা কর্ব-_ প্রেমের বৈদ্যুতিক প্রক্রিয়ায় । তুমি 
মানবশ্রেষ্ঠ | 

আজী। আমি পশুর অধম । আমার চক্ষের সমক্ষে আমার বজ্ঞস্থল 
হ”তে আমার সহধর্থ্মী ব্রাহ্মণদের মন্ত্রমু্ধ ক'রে নরকে নামিয়ে নিলে, ওঃ-_ 
ন! কাশ্তপ, আমি তোমার অনুগ্রহপ্রার্থী; হত্যা! কর, আমায় আত্ম- 
হত্যাটা করিয়ো৷ ন1। 

কাশ্তপ | নির্ভয় ! রক্ষা কর্ব তোমায় আত্মহত্যাপাপে | আত্মহত্যা 
_ বক্ষে খঙ্গাঘাত করে জীবন বিসম্জন নয়, আজীবক ! প্রকৃত আত্মহত্যা 
-আপনার স্বরূপ ন৷ বুঝে জীবস্তে জীবন অপব্যয়। 

আজী | [ খঙ্জা ফেলিয়া ] যাঁও, কাশ্ঠপ ! আমি মর্তে চাই নাঁ_ 
তোমার অনুগ্রহে পদাঘাত করি। ফাও-_জীবন অপব্যয়, আত্মহত্যা, 
সৃষ্টির অনন্ত পাপ আনুক আমার মাথায়, জেনে যাও-_ আমি ব্রাঙ্গণ, আমি 


তোমার বুদ্ধের পায়ে মাথা নোয়াব না। মনু, বাঁজ্ঞবন্ধ, পরাশর 
৭৮ 


১ম দৃশ্তা| ] অবভাাতস্ণপ্রচ 


আমার পথপ্রদর্শক! আমি আমার বৈদিক যজ্ঞের প্রতিষ্ঠা কর্বই 
কর্ব। 
| প্রস্থান । 
কাণ্তপ | কর আজীবক, মহাঁষজ্ঞের প্রতিষ্টা_-প্রাণপণে, প্রত্যেক 
মন্ত্রপুংক্তির প্রকৃত অর্থ উপলব্ধি ক'রে ; আমি তোমার বিরুদ্ধাচারী নই-__ 
সাহায্যকারী । সাবধান। সে ষজ্ঞে যেন কামনা না থাকে, ভিংশা না 
থাকে, অহমিক। না থাকে ; আগে তার বেদী নিন্মাণ কর, হৃদর পবিত্র 
কর; স্বভাব গঠন কর। 


ভিক্ষগণ | 
গীত । 


ওরে শ্বভাব গঠন কর--আগে স্বভাব গঠন কর । 
সাধন, ভজন, যজ্ঞ, যোগ সব ক্রিয়া তার পর। 
শস্তের ক্ষেত কব্ৰি সেচন ফাটাল পথে রাখিস যদ্দি 
পৌছাবে না বিন্দু বারি যতই ঢাঁলিস পুকুর নদী ; 
তোর ফুলের শযায় কি কর্বে বল্‌ হ'লে সাপের ঘর। 
কাম-লালসার বদ হজমে ধশ্ব-পিপাসা 
উল্টে| হবে বাড়বে জ্বাল। দেখবি তামাস! 
ওরে ছুষ্ট, ক্ষিদেয় খাস্‌ না পাগল, ছাঁড়। বিষম ভ্বর | 
[ সকলের প্রস্থান । 


৯ 


দিত্র ভীস্ম গভ্ডাক্ক। 
আশ্রম । 


খঞ্জনী বাঞাইয়া সনাতনী গাহিতেছিল । 
গীত । 


আমি পিরীতি নগরে বসন্তি করিব পিরীতে বীধিব ঘর । 
পিরীতি দেখিয়া পড়ণী করিব ত। বিন সকলই পর ॥ 
আমার সেই ত আপন-_ 
কালার পিরীতি যে বুঝেছে সেই ত আপন-__ 
আমি পিরীতি দ্বারের কপাট করিব, পিরীতে বাঁধিব চাল। 
পিরীতি আশেকে সদাই থাকিব, পিরীতে গোঙাব কাল ॥ 
আমি আন কথা কইবে। না গো 
কান্ুর পিরীতি ছাঁড়া-_আন কথা। কইবে। না গো-- 
আমি পিরীতি পালস্কে শয়ন করিব, পিরীতি লিধান মাথে। 
পিরীঠি বালিশে আলিস ত্যজিব--খাকিব পিরীতি সাথে । 
আমি যাৰ ন। গো-_ 
পিরীতি হীন মরুভৃমে আমি যাঁব না গো-_ 
আমি পিরীতি সরসে সিনান করিব পিরীতি অঞ্জন লব। 
পিরীতি ধরম পিরীতি করম পিরীতে পরাণ দিব ॥ 
আমার মরণ হবে__ 
সেই শ্যামবরণের পিরীতে আমার মরণ হবে-- 
সে মরণ আমার হখের মরণ ! 
সেবানন্দ উপস্থিত হইল । 
নেবানন্দ। [ আপনমনে | পাপিষ্ঠা--প্রগল্ভা-_-অপরিণামদর্শনী ; 
কি বল সনাতনী? 
৮৬. 


২য় গর্ভাঙ্ক | ] অবভাাতস্পপ্র 


সনাতনী । গোবিন্দ বলে__কার কথা আজ্ঞ1 কর্ছেন প্রভু ? 

সেবানন্দ। এই, যে শ্রীমস্ভীগবত শ্রবণ ক*রেও সম্প্রদায়তৃক্ত হয় না, 
গোবিন্দ-প্রেমরসে অবগাহন ক”রে দ্রব হ+য়ে যায় না, সুমধুর রাসলীলায় 
উপেক্ষা ক'রে মক্ষিকার মত ক্ষতস্থানে উড়ে বেড়ায়, নয় কি? 

সনাতনী । প্রভু বুঝি এখনও সেই বিধবা বালিকার বিষয় ভাবছেন ? 
হা গোবিন্দ! 

সেবানন্দ। ভাববো না? কি বল তুমি সনাতনী! ৫পে আমায় 
অবাক আশ্চর্য্য করে গেছে! তার জন্ত আমি এত যভু কর্লাম, এমন 
পুলককণ্ঠে শ্রীমন্ভীগবত বর্ণন কর্লাম,_যুগল-মিলন, বন্ত্রহুরণ, মান-ভঙ্জন, 
যত সারাংশের টাক! টিপ্ননিটা পধ্যস্ত বাদ দিলাম না_ও-হো-হো_ 
গোবিন্দ হে ! সে বুঝ লো! না, সনাতনী ! ভগবত-প্রেম সে বুঝ লো না! 

সনাতনী । তার ভুর্ভাগ্য প্রভু! গোবিন্দ-_গোবিন্দ! আপনি 
অনুগ্রহ করলে কি হবে? 

সেবানন্দ। আ-হাহা'! প্রাণবল্লভ ! সনাতনী! সে ষদি তার সেই 
অর্ধস্ফুট উন্মুখ যৌবন কৃষ্ণসেবাঁয় ঢাঁল্‌তে পারতো, তার ব্রীড়াচকিত সন্মোহন 
কটাক্ষ মদনমোহনের মোহ উৎপাঁদনে হান্তে পারতো, ভার লালিম অধরের 
ললিত হাস্ত হরিকথার মাখামাখি হতো, __ও-হে-হো_গোপিনাথ ! 
কি স্থুখের হতো! বল দেখি, সনাতনী ! আমার কান্না আস্ছে, ক্রোধের 
উদ্রেক হ”চ্ছে”__হতভাগিনী, পাপিষ্ঠা সে! 

সনীতনী। শুধু সে নয়, প্রভূ! গোঁবিন্দের চক্রে সংসারের সবাই 
ধর রকম ; আপনার যার! শিষ্যা হয়েছিল-_গোবিন্দের কৃপায় এখন বুঝছি-_ 
তার। কেবল মুখে হা! গোবিন্দ__হা! গোবিন্দ করতো, কৃষ্ণপ্রেমতত্ব তাদেক 
কেউ বোঝে নাই ; তারাও শুন্ছি নাকি সবাই গোবিট্দ বলে নালন্দার 
বৌদ্ধমঠে আশ্রয় নিয়েছে । 
৮৯ 

অ- ৬ 


অবজাীতিস্ণত্ত [৩য় অঙ্ক; 

সেবানন্দ। এ্যা! বল কি সনাতনী! নালন্দার বৌদ্ধমঠে ! আমার 
শিক্যারা! গোবিন্দ হে__গোপিনাথ ! [ ক্ষণেক চিন্তা করিয়া ] সনাতনী ! 
আর।না॥ আমি এ স্থান ত্যাগ করবে । 

সনাতনী । কেন প্রভু? 

সেবানন্দ। গোবিন্দের অনুগ্রহে এখানকার বৌদ্ধমঠের যেরূপ 
প্রবল বিস্তার দেখছি, কোন্দিন আমাকে পধ্যন্ত গোবিন্দ ভুলিয়ে দেবে, 
শ্রীযভাগবতে অবিশ্বাস আনিয়ে দেবে। আমি এস্থান ত্যাগ কর্বো_ 
এই মুহূর্তে এখনই । [ গমনোগ্ভত ] 


আজীবক উপস্থিত হইল । 


আজী। কোথা যাবে সেবানন্দ ? 

সেবানন্দ। আজীবক? যাব আত্মগোপনে ! 

আজী | পরাজিত হয়ে? 

সেবানন্দ। গোবিন্দের ইচ্ছায় । 

আজী। আমার স্বধন্্মীরাও বৌদ্ধ সম্প্রদায়তূক্ত হয়েছে-_সেবানন্দ, 
আমি কিন্তু কোথাও যাই নাই। 

সেবানন্দ। তোমার ধন্মে আমার ধন্মে--গোবিন্দের ইচ্ছায় এইটুকুই 
ষে পার্থক্য আজীবক ! 

আজী। তোমার ধর্মে আমায় দীক্ষিত কর্তে পার সেবানন্দ ! 
আমিও বুকের ঘা হাঁত চাঁপা দিয়ে তোমার মত এরকম গোপনে গোপনে 
দেশত্যাগ করি! পার? দেখি তোমার ধর্ম? পার না, পার না! 
তোমার ধর্ম অশ্রময়, বৈদিকের এ আগ্নেয়তুপে এক বিন্দুর সম্ভাবনা 
নাই। তার চেয়ে তুমি এস আমার ধর্মে, আমি জলকে তগু ক'রে 
নিতে পার্বে!। পালিয়ো না, সেবানন্দ ! ভয় কিসের? তুমিও উৎপীড়িত, 


৮ৎ 


হয় দৃশ্য | ] অনজাতষ্শঞ্রু 


আমিও মম্্াহত ; এস, মিলিত হই,__বৌদ্ধমঠ ভন্ম করি, বৌদ্ধধর্ম 
নরকে ডুবিয়ে দিই | 

সেবানন্দ। গোবিন্দ ! গোবিন্দ! আমায় অব্যাহতি দাও আজীবক | 
তোমার সহিত মিলিত হবার সাহস-_গোবিন্দের কুপায়-_আমার মোটেই 
নাই। তোমার ধন্ম এমন হিংসাময়? 

আজী। সেবানন্দ! ক্রোধ যদি দুর্বল-পীড়কের রক্তদর্শনে জাগ্রত 
হয়, সে ক্রোধ পশুত্ব ?__মহত্ব। কাম যদি স্বষ্টিরক্ষার্থে সুপুত্র উৎপাদনে 
উত্তেজিত হয়, সে কাম ব্যাভিচার ?-__নিষ্কাম | হিংসা! যদি অধর্দের 
উচ্ছেদে অনল উদগার করে, কে বলে সে হিংসা! ধর্মের গ্লানি ? ধর্মের 
সগৌরব আত্মপরিচয় | 

সেবানন্দ। শ্রীবৃদ্ধি হোক তোমার ধর্ম্মের_গোবিন্দের কপার | যদিও 
ও সিদ্ধান্ত আমার ধর্মের নয়, তবু ও সম্বন্ধে বৃথ! বাদন্িবাদের আবশ্যক 
বুঝি না। তবে একটা কথ জিজ্ঞাসা করি .আজীবক, বৌদ্ধধন্্ম ষে 
অধন্ম, তুমি কি প্রমাণে বিচার করলে? 

আজী। দোহাই সেবানন্দ! তোমার হাতে ধর্ছি ভাই! তুমি 
অন্ত প্রসঙ্গে যত পার বাদান্ুবাদ কর, বৌদ্ধের নাম মুখে এনো না, ও 
সম্বন্ধে তর্ক তুললে আমি আমার জিহ্বাকে সংযত রাখতে পার্ব নাঁ_ 
আমার সমস্ত ভাষা! অশ্লীল হ”য়ে যাবে । তুমি এস আমার সঙ্গে, প্রমাণ 
প্ররোগের প্রয়োজন কি? চোখে চৌথে দেখিয়ে দি-_বৌদ্ধধর্ কি? 

সেবানন্দ। গোবিন্দ_ গোবিন্দ! রক্ষা কর আজীবক! আমার 
সমদশী শুদ্ধ চক্ষুকে ছিত্র-অনুসন্ধিৎসথ ক্ষুদ্র করো না। কি দেখাবে তুমি ঃ 
পর্দর ব্যাভিচার ? সকল ধর্মেই আছে। মুলধর্ম কেউ উদ্দেন্তহীন__ 
কলুধিত নয়। শীস্ত হও, আজীবক ! আমি এখন দেখছি-_গোবিন্দের 
ইচ্ছায় বৌদ্ধধর্ম্মই বর্তমান ভারতের যুগধন্মন। ধর্মের গণ্ডগোলে ভারতবর্ষ 


[০ 


অসজাকভেস্শতত [ ৩য় অঙ্ক; 


আজ ধর্ম্সহীন_ লক্ষ্যলষ্ট স্বেচ্ছাচারী ; তাকে গোড়া ধরে নৃতন ক”রে ধর্ম 
বিদ্যার হাতেখড়ি দিতে হবে। বৌদ্ধধন্ম স্বভাব গঠনের ধর্ম, ঠিক 
এ সময়কার উপষোগী ; সকল সাধন ভজনেরই প্রথম সোপান-_ স্বভাব- 
গঠন | আমি বৌদ্ধধন্্ম উচ্ছেদে প্রশ্রয় দিতে পার্ব না, আজীবক ! 

আমায় অব্যাহতি দাও, আমার নমস্কার নাও | 
আজী। নরকে যাও, নরকে যাও- হূর্খ অপদার্থ অদুষ্টবাদী ক্লীব ! 
আমি ভূল ক'রেছি--তোমার সাহায্য প্রার্থন। করে । গোপিভাব যার 
সাধনা, নারীত্বময় ষার প্রতি লোমকুপ-_প্রতি রক্তবিন্দু, ভ্রান্ত আমি-_ 
তাকে আহ্বান করতে এসেছি পুরুষোচিত কার্যে! সেবানন্দ ! 
বৌদ্ধধর্ম স্বভাব গঠনের ধর্শা? যে যুগে বৌদ্ধধর্ম ছিল নাঁ_সে যুগে 
কি আর স্বভাব গঠন হত না? “অহিংস পরমে? ধন্ম” এ বাক্য কি 
বুদ্ধের আবিষ্কার? বুদ্ধের জন্মের বু শতাব্দী পূর্ব্ে--এ মহাবাক্য 
লিপিবদ্ধ মহাভারতের ভীক্মপর্কে_যুধিষ্ঠিরের প্রতি ভীম্মের উপদেশে | 
সেবানন্দ! আবিষ্কার যা হবার হ”য়ে গেছে, আর নৃতনস্বের উদ্ভাবন কারও 
ক্ষমতায় নাই ; এখন যার যা কিছু লাফালাফি_ পুরাতনেই রং ফলিয়ে। 
আমি তা হ'তে দেব না । আমি তোমার সাহায্য চাইতে এসেছিলাম__ 
মনে করেছিলাম -শ্রীমত্ভীগবত বোব্যাসেরই বাক্যান্তর, তা নয়। আমি 
তোমার সাহায্যে থুংকার করি, তুমি আমায় নমস্কার ক'রেছ-__তার প্রতি- 

নমস্কারে আমি তোমায় শতবার ধিকাঁর দিই | 
| প্রস্থান । 


সেবানন্দ। শ্রীগোবিন্দ! তোমার থুতৎকার আমার চন্দন লেপন, 
তোমার ধিক্কার আমার বুন্দীবন-রজ আজীবক | সনাতনী! চল, আমরা 
এস্থান ত্যাগ করি । 


৮৪ 


হয় গঞ্ভাঙ্ক। ] তঙাততষ্শ তত 
সনাতনী । এ স্থানের গতি? ভাগবতপ্রেম ব্যতীত যে জীবের 
শিস্তার নাই, প্রভু ! 
সেবানন্দ। নিস্তার হবে সনাতনী ! বহুদূরে-এখন নয়। আমি 
প্রেমের উন্মাদনায় অগ্রপশ্চাৎ বিবেচনা না ক'রে ধর্মাপ্রচারে বহির্গত 
হয়েছিলাম; কিস্তু দেখ ছি-_ভারতবর্ষ চরিত্রহীন, এখন এ ধর্ম ধারণা 
ক”র্তে পার্বে না, আমায় আত্মগোপন কর্তেই হবে। বর্তমানে তার 
কর্ম চরিত্র গঠন, ধর্ম _ বৌদ্ধধর্ম । তারপর ব্রহ্গজ্ঞানশিক্ষা, ধর্ম _সোহং। 
তারপর চৈতন্তের বিকাশ হঃলে ভাগবতপ্রেমের ছড়াছড়ি । দূরে 
সনাতনী, দূরে । জয় শ্রীহরি-__ 
| প্রস্থান। 
সনাতনী ।__ 


গীত। 
আমি পিরীতি নগরে বসতি করিব পিরীতে বীধিব ঘর। 


[ পূর্বোক্ত গীত গাহিতে গাঁহিতে সেবানন্দের পশ্চাৎ পশ্চাৎ প্রস্থান । 


৬ 


ততীম্্ গভ্ডাক্ষ। 
মগধ-অন্তঃপুর- উদ্যান । 


উষাদেবী গাহিতেছিল । 
উষা।-_ 
গীত । 


কেন ফুলে ভোমরা বসে কি মানসে গাঁয় সে গান? 

হয় না ত কই ঝাঁলীপাল। ফুল, তারই বা এ কিসের টান ? 
কেন লতা! বেড়। পাকে 
তরুর বুকে জড়িয়ে থাকে, 

সোহাগে দাড়িয়ে তর তার কেন এ আদর দান? 
কেন রে চাঁদ মেঘের আড়ে, 
উঁকি মারিস দেখিস, কারে, 

কেন ধর! হাসিস্‌ লো তায় ঢাকিস্‌ না তোর দরম মান? 
কেন অত কিসের হ্থথে 
মুখোমুখী সারী শুকে, 

কেন রে আজ আমার বুকে ডাকছে এত 'কেন'র বান! 


ক্ষেমাদেবী উপস্থিত হইলেন। 


ক্ষেমা। আজ বোধ হয় ভাল আছিস উষা, কেমন ? 

উষণা। ই1 ঠাকু-মা, তোমাদের এখান আমার খুব ভাল লেগেছে। 
এই কণ্দণ্ড এসেছি, আমার মনে হচ্ছে_-আর কোন অসুখ নেই। ভাগ্যে 
তুমি আমীয় এখানে আনলে; কোশলে থাকৃলে-_ ব্যারামে হক না 
হু*ক--কবরেজ মুখপোড়ার পাচন খেয়ে খেয়ে আমার হাড় মাটী হয়ে 


৮৬ 


৩য় গর্ভাঙ্ক । ] অঙজাতস্পত্র 


যেত। সে কি আমায় এখানে আস্তে দেয় ? তার মুখের ওপর ষমকে ডেকে 
দিয়েছি-_তবে সে ছেড়েছে | [ উদগার তুলিয়া! | একটু বদহজম হ”য়েছে 
বলে মনে হয | তা রোজ যা হত, তার কাছে কিছুই নয়। তোমার কাছে 
যে বদহজমের বড়ি আছে বল্ছিলে ঠাকু-মাঁ_কই ? 

ক্ষেমা। দেব__-দেব, হীপাঁস কেন? সন্ধ্যেটা উত্তীর্ণ হ”য়ে যাক । 

উযা। কেন, ঠাকু-মা। সে বড়ি কি রাত্রি না হ'লে খেতে নাই? 

ক্ষেমা। সে বড় চড়া অন্ধ দিদি! ঠীগ্ডার সময় না খেলে বমি 
হবার ভয় আছে 

উষা। বেশ, তা আমি কিন্তু সে বড়ি মুখে জল দিয়ে একেবারে 
গিলে খেয়ে নেব, তুমি ষে মেড়ে চেটে-চেটে খেতে বল্বে তা হবে না। 

ক্ষেমা। তোর যেমন ইচ্ছে খাস; অন্তুধ চড়া হ'লেও খেতে বিস্বাদ 
নয় | চেটে, চুষে, চিবিয়ে__কিছুতেই তিত লাগবে না। আমি তোর মনের 
মত অন্ুধ ঠিক দেব, তবে অস্থুথ ভাল হু”লে আমায় বদ্দি-বিদেয় কি কর্বি 
বল দেখি? | 

উষা। বদ্ি-বিদের? তা-_ঠাকু-মা! তুমি যখন বদ্দি-তাইতো-_ 
তোমায় কি দিয়ে বিদেয় কর্ব! এঃ! মুফ্িলে ফেল্লে যে? আচ্ছা 
তুমিই বল না__তুমি কি চাও? 


ক্ষেমা। দিবি? 
উষী। দেব! 
ক্ষেমা। দেখিস্‌? 


উষা। দেখব আবার কি! যা চাইবে-_দেব | কি চাঁও, বল? 

ক্ষেমা। আজ নয়, চাইবো একদিন ; এখন চাইলে বুঝ তে পার্বি না । 
তবে মনে রাখিস, ভুলিস না, স্বীকার কর্লি-__যাঁচাইব-_দিবি। 

উষা। খুব__খুব; আমি এই মাথার চুলে গেরো দিয়ে রাখলুম | 


৮৭ 


ভা তম্শতত [ ৩য় অঙ্ক; 


অদূরে উদয় আসিতেছিল। 
ক্ষেমা। [ উদয়ের প্রতি অঙ্গুলিসঙ্কেতে ] এ তোর বদহজমের বড়ি 
আস্ছে। 
উষ্া। ও-_মা। [ লজ্জা-সস্কুচিত-আনন্দে ক্ষেমার পশ্চাতে দীড়াইল। 
উদয় উপস্থিত হইল 
উদয়। লুকিয়ে লুকিয়ে বেড়ালে আজ আর ছাড়ব না, ঠাকৃম! 
আমার প্যাচ খেল হচ্ছে না; তুমি ষে আমায় কোশল থেকে লাটাই 
আনিয়ে দেবে বলেছিলে, কই? 
ক্ষেমী। বাঁ রে! তুই এর মধ্যেই সন্ধান পেয়েছিস? ভাল; তা _ 
এখনই কি তুই প্যাচ খেল্ছিস নাঁ_কি? দেব দরকার হলে। 
উদয়। দরকার হয়েছে, যখনই খেলি, আমায় লাটাই দেখে নিতে 
হবে না? তার স্থতো কেমন_-পরখ ক'রে রাখব না? পলকা 
স্থতোয় ঘুড়ি ছেড়ে--শেষ লোকের হাততালি খাব না! কি? তুমি ত বেশ ! 
ক্ষেমা। হাততালি খেতে হবে ন! রে! ভয় নাই; এর সুতো! মাজা । 
[ উষাকে সম্মুখে ধরিয়া ] এই দেখ, পরখ কর্‌; কেমন দেখ ছিস্‌? 
উদয়। [ উষাকে ক্ষণেক দেখিয়। লজ্জিত আনন্দে] এ-কে 


ঠাকুমা? 
ক্ষেমা|। এই সেই লাটাই, তোকে যা! দেব বলেছিলাম । 
উদয়। ওর স্থতো কই? 


ক্ষেমা। এর হতে বড় সুক্স দাদী! চোখে দেখা যায় না--পা্যাচ 
লাগালেই টের পাবে। 

উদয় । [ কল্পিত ক্রোধে ] যাও-_ তোমার লাটাই চাই না, তোমার 
সব দমবাজি বুঝ তে পেরেছি । [পুনঃ পূর্বোক্ত গদগদভাবে ] বল ন৷ 
ঠাকৃমা-_এ কে ? 


৮৮ 


৩য় গর্ভাঙ্ক | ] ত্বজাতিশঙ্র 


ক্ষেমী। একেই জিজ্ঞেস কর না, আমি আর পরের বোঝা কত বই? 

উদয়। [ একটু চেষ্টা করিয়া] আমার লজ্জা পাচ্ছে। 

ক্ষেমা। দূর! [ উষাঁর প্রতি ] তুই পার্বি পরিচয় দিতে? ওর 
ত লজ্জা পাচ্ছে। 

উষা। [ একটু চেষ্টা করিয়া] আমার হাঁসি আস্ছে ঠাকু-মা ! 
[ পরে উদয়ের প্রাতি সক্কৌচ আবেগে ] তুমি আমায় জান না? এঃ। 
আমাদের বাড়ী কোশল, আমি মহারাজ প্রসেনজিতের পৌন্রী ! তুমি বুঝি 
এখানকার কুমার? এঃ! কেমন কুমার তুমি__লজ্জী পাঁয় ? 

উদয়। [ লজ্জীজড়িত অনিচ্ছায় ] ঠাকৃমা! আমি চন্ুম ! 

ক্ষেমা। কেন_ কেন, যাবি কেন? 

উষ1!। লজ্জা পাচ্ছিল এতক্ষণ, এইবার বোধ হয়, ভয় পাচ্ছে 
ঠাকুমা । 

উদয়। পায় বই কি ভয়, তোমাদের কৌশলের যে দেখ ছি, ঠান্দি 
হতে নাতনি পধ্যন্ত একধার হ'তে সব সিংহরাশ। 

ক্ষেমা। ভাল দাদা, ভাল; তোমাদের মগধের ষে ঠাকুর-দ1 হতে 
নাতি পর্য্যস্ত সব মেষরাশি-_-তা আমর! জানি; তবে ভয় নাই তোমাদের, 
কোশল শীকীর করতে আসে নাই, বন দখল কর্তে এসেছে, পালিয়ো৷ না । 

| প্রস্থান । 

উদয়। [ ক্ষেমার্দেবীর গমন প্রতীক্ষা! করিয়া উষার হস্ত ধরিয়] ] 
তোমার নাম কি? 

উষা। [ একটু আড়ষ্ট হইয়া | আমার নাম? [ ঈষৎ চিন্তা কিয়! | 
আমার নাম কি হলে তোমার ভাল লাগে বল দেখি ? 

উদ্দয়। বা। আমার ভাল লাগা জন্ত তুমি কি নাম পাল্টে দেবে 
নাকি? 


৮৯ 


অবস্তা জিস্ণতর [ ৩য় অঙ্ক; 


উষা। ত| দিতে হয় বই কি, মানুষের ভাল লাগার জন্তে মানুষ যখন 
দেহ পাল্টাতে পারে শুনেছি--তখন আর উষার সন্ধ্যা হ'তে কতক্ষণ ? 

উদয়। সেজন্য তোমায় অত ব্যস্ত হ'তে হবে নাঁ, তুমি উবাই থাক-_ 
আর সন্ধ্যাই হও, আমি উদয়__ও ছুয়েতেই আছি ১ উষ। হও-_-আমি 
উদয় আদিত্য, সন্ধ্যা হও-_আমি উদয় চন্ত্র। 

উষা। | কৃত্রিম ভয়ে ] সর্বনাশ ! ছাড় কুমার__ছাঁড়, আমি ভূল 
করেছি | তুমি উদয়? তোমাতে অস্ত আছে ত তাহলে! 

উদয়। নাঁ_না_না, ভয় করো না কোশল-কুমারী ! উদয়ে 
অন্ত থাকলেও আমি যে উদ্ধার উদয়। [ চিবুক ধরিয়া বক্ষে লইল | 

উষা।__ 


গীত। 


এসে! ন। উদয় উধার বাতাসে, 
সে তসারাদিন ববে নাহে! 
উধার কবরী নিমেষে এলায়, 
পিপাস। পূরণ হবে না হে! 
আমার নিমেষের আসা, নিমেষের হাসা, নিমেষের সুধা বধণ, 
মামি পাঁবে। ন| কাহারও অনিমেষ আখি, দিয়ে নিমেষের দর্শন, 
এ চপল! চমকে চাহিয়ে। ন। বধু 
আঁধারের অবধি রবে না হে! 
মাও, লখা, যাও--অটুট মধুরে, কেন হেথা বৃথ। গুগ্রর, 
এসো না থেলিতে বাসনার বশে শতদলসনে কুঞ্জর ; 
তুমি দেবে না ত বাঁধা, দলিত করিয়ে 
চ'লে যাবে কথা কবে না হে--- 
ছিড়ে ধাব আমি মরমের টানে 
সে বেদন! প্রাণে সবে ন। হে! 


৩য় গর্ভাঙ্ক | ] আভাভিস্পজ 


উদয় | [ উন্মত্ত হইয়া] করলে কি--কর্লে কি কোশল-কুমারী ? 
কোথায় দিলে আমার বালা? এ কার কণ্টকিত অপংযত স্পর্শ? 
তোমায় দণ্ড নিতে হবে এ ওলোট-পালটের। তোমার দণ্ড-_-তোমার 
দও-_[ গণ্ডে তীব্র চুষ্ষন করিলেন ] 

উষা। [ অবাবস্থভাবে ] উঃ বিশলাকরণী ? একি শিহরণ এ যে 
লঘ্বপাপে গুরুদণ্ড কুমার ! 


ক্ষেমাদেকী পুনরুপস্থিত হইলেন । 


[ উষ্ণ ও উদয় চমকিত হইয়া উভয়ে উভয়দিকে সরিয়! ঈশড়াইল ] 

ক্ষেমা। কি নাতনি! বদহজম সারলো? কেমন বড়ি? 
[ উদয়ের প্রতি ] ঘুড়ী ছাড দাদা! আর দেখছে! কি? কথ কচ্ছিস 
নাষে? ভাবছিস্‌ বুঝি-_এ মাগী 'আবার এ সময় এখানে কি জন্য? 
দাঁদা। এ বাজারের চিড়ে মণ্ডা নয় যে, দমভোর খেতে হবে; এ 
কোশলের কস্তরী__একটুগন্ধ পেটে গেছে ত,যাঁও ওতেই এখন একমাস 
ধাত বজায় থাঁকৃবে। 

উদয়। তা হলে ঠাকৃমা! এ জিনিষ আমায় নী দিয়ে-_দাঁদা- 
মশীইকে দিলেই ভাল হতো! ; তাঁর ধাতি বীধা বিশেষ দরকাঁর-_নাভি- 
শ্বাসের সময় হয়েছে | 

ক্ষেমা। তোমার দাদামহাশয়ের জন্য ভাবতে হবে না, ভাই! 
কস্তরীর দরকার নাই-__তীর কাছে এখনও মণভোব মকরধবজ আছে; 
তুমি নিজের প্রাণ বীচাও | নাঁও, মালা বদল কর। [ উভয়ের হস্তে 
মালা দিলেন ] 

উদর । সেকি! বাবা জান্লেন নাম জান্লে না -- 

ক্ষেমা। মন বদলের সময় কজনকে জানাতে ঠিছেছি।উ 


০৯ ৯ 


তব জপ ৩: অঙ্ক. 


উষা ওর আক্কেল ক'রে! [ উষার হস্ত ধরিয়! ] মন্তর বল- লোহার বাধন 
দিলুম গলে । [ উদয়েয় গলে মাঁল্য দেওয়াইলেন ; পরে উদয়ের হস্ত ধরিয়া ] 
তুই বল্‌-_শিলুম শরণ চরণ তলে। [ উষার গলে মাল্য দেওয়াইয়া 
শঙ্খধবনি করিলেন ] 


গীতকণ্ঠে সখিগণ উপস্থিত হইল । 


সখিগণ।-__ 
গীত । 
সরমে সোহাগে আজ আবির থেল। 
যোগায় হাঁসির রং নয়ন চারি । 
তার সধার দুয়ারে আজ অধর দ্বারী। 
পিয়াস! দাঁড়ায়ে আজ নাগর-কুলে, 
শয়ন নয়ন ঠারে ঘুমের ঢুলে 
আজ স্ষম। স্বভাবসনে রহিরতা, 
আজ কথায় কথায় ভাবের গভীরতা, 
আজ কবির ছন্দে কানন ছবি, 
আজ গায়ক কণ্ঠে তুম-তা-না-রি । 


বেণুদেবী উপস্থিত হইলেন । 


বেণু। একি! এ সব কি? শঙ্খধবনি! হুলুধবনি! তোমার 
অস্তঃপুরে আজ কি মা? এ কিসের উৎসব ? 

ক্ষেমা। তোমার সপতিপুত্রের বিবাহ-উৎসব, বেণু ! 

বেণু। আমার পুজ্রের বিবাহ? কার সঙ্গে? 

ক্ষেযা। তোমার ভ্রাতুক্পুত্রী-__উষাদেবীর সঙ্গে | 

বেণু। [ উত্তেজিতভাবে ] কি রকম ? 


নি 


ও গর্ভাঙ্ক। ] অজ তপ্পপ্রু 


ক্ষেমা। [ শ্রেষভরে ] এই আমার সপত্বিপুত্রের সঙ্গে আমার 
ভ্রাতৃষ্পুক্রী--তোমার হয়েছিল যে রকম ? 
বেণু। মা! তোমার উদ্দেশ্ত কি? 
ক্ষেমা। উদ্দেশ্য বিশেষ কিছু না; এই তোমরা! হ,চ্ছ_-সকল প্রকারে 
আমাদের উত্তরাধিকারী; আমাদের রাজ্য, এশ্বর্যা, ঘশ, মান, ' সুখ, 
শীস্তি_যাঁকিছু সবই তোমাদের প্রাপ্য ; তোমাদিকেই দিয়ে যেতে 
হবে, বা দিয়েওছি, কি তোমারই নিয়ে নিয়েছ; যাক্‌, ষখনই হোক্‌ 
নিতে ত? তবে বর্তমানে আমরা যে সুখে ভাস্ছি__অর্থাৎ আমার 
ভাইঝি তুমি__ আমার পুত্রবধূ হু'য়ে এসেই আমার রাজ্যচ্যুত করলে, 
এ সুখের উত্তরাধিকারী হবার তোমাদের কোন আশা-ভরসাই ছিল না। 
সবই পেলে যখন আমাদের, সে সুখ ত তোমাদের পাওয়া! উচিৎ !-_ 
যাতে ভবিষ্যতে তা হ+তে বঞ্চিত না হও,__আমার এই রাবণের চিতা__ 
তোমার বুকেও অবিশ্রীস্ত জলে-__এই উদ্দেশ্ত ! আর কি? বুঝতে 
পেরেছ ? 
[ তির্ধ্যগ-দৃষ্টিতে চাহিতে চাহিতে প্রস্থান করিলেন। 
বেণু। [ কিছুক্ষণ স্তম্ভিত থাকিয়! উদ্দেস্তে ] ত হ'লে তুমিও বুঝে 
রেখো মা! তোমার উদ্দেশ্ত অমূলক | আমি যদি সপদ্বিপুত্রকে তোমার 
মত জঘন্য বাধনে না বেঁধে, ষথার্থ ই স্নেহের চক্ষে দেখে এসে থাকি, 
তাকে কিছুতেই আমার সপত্বিপুত্র ক'রে দিতে পার্বে না) আমি যদি 
মনেপ্রাণে তোমার ভ্রাতুপ্ুত্রীর স্থান হ'তে এক পদ স্থলিত না হ?য়ে 
থাকি, আমার ভ্রাতুষ্পুত্রী_ আমার কিস্করী _সেবিকা-_দাসী হু*য়ে থাকবে । 
তোমার উদ্দেশ্ত আকাশ-কুস্ম, তোমার অভিশাপ ব্যর্থ) তোমার 
রাবণের চিতা__আমার বুকে যুধিষ্ঠিরের রাজস্য়। এস পুত্র! এস 
নববধূ আমার! আমি তোমাদের আশীর্বাদ করি, আমি তোমাদের, 


৯৩ 


খআসজাতিম্পশ্রু [ ৩য় অন্ধ; 


বরণ করি-নিষ্ষাম সংসারের নিধ্বিকার গিংহসনে ! [ সথিশণের প্রতি ] 
শুভাকাক্ফ্িণীগণ ! শঙ্খধবনি কর, হুলুধবনি দাও, আনন্দ কর» আমার 
পুত্রের বিবাহ-উতসব। 
[ প্রস্থান । 
সথিগণ | 
[ পুর্ব-গীতাংশ | 

আজ হিঙ্গুল কপে।লে চুমের রাগ, 

আজ নিটোল পযোধরে নখের দাগ, 

আজ মানের অবসানে মদন-যাগ, 

আজ দেনা-পাওন। ছুয়ে খাড়াখাড়ি। 
| সকলের প্রস্থান 


চতুর্থ গভ্ভাক্ক ! 
নালন্দাম2 | 
জলস্ত মশাল হস্তে আজীবক উপস্থিত। 


আজী । ধর্মররক্ষা- ধর্রক্ষা) নীতি নাই, বিচার নাই, দয়া নাই, 
মায় নাই, স্তায় নাই, অন্তায় নাই, ধর্মরক্ষা__বৈদিকের কঠোর কর্তব্য । 
সমস্ত দুয়ার বন্ধ ক/রেছি, শেচ্ছের দল নিদ্রিত; এইবার__এইবার-_ 
| হস্তস্থিত অগ্নির প্রতি ] অগ্নিদেব! তুমি আমার বেদের পরম দেঁবতী, 
তুমি আমার পরম পুজনীয়। সেদিন তুমি বড় অপদস্থ হয়েছ-_অভুক্ত 
উঠে গেছ-_আমার আরন্ধ যজ্ঞে আহুতি পাও নাই! আজ সেই 


২ পস্ছি 


€র্ঘ গর্ভাঙ্ক | ] আতা ভিল্পঞ্সত 


অপমানিত অনশনের প্রতিশোধ-পারণ| | প্রসন্ন হও দেবতা আমার ! 
জলে ওঠ ছুভিক্ষ-ক্ষুধায়। আহুতি নাও-_বৌদ্ধমঠ, বে। খধম্ম , বৌদ্ধধম্ম | 
[ মঠে অগ্নি প্রদান করিয়া তাণ্ডব উল্লাসে ] হোঁ হো হো হো! 
ধন্মরিক্ষা___ধর্্মরক্ষা। জাগ-_জাঁগ এইবার শ্লেচ্ছের দল ! প্রচার কর- 
'অহিংসাধর্্ম | অগ্রিদেব ! সর্ধবভূক! কি হ্ন্দর তোমার মৃণ্ডি, প্রভু! 
কি স্ম্দর তোমার ধীকি ধীকি আক্রমণ ! কি সুন্দর তোমার লক্‌ প্‌ 
গ্রাস ! তৃপ্ত হও- তপ্ত হও, দেবতা! শান্ত হও-_শীস্ত হও» ভারতবর্ষ । 
নিশ্চিন্ত নির্ভয় বিপ্রকুল 1 ধর্মরক্ষা- ধন্মরক্ষাঁ_হোঁহোঁ হো 

[ অস্থির আনন্দে প্রস্থান 


নুশযারু লন । 
মঠ-_অভ্যন্তর | 
স্বপ্তোখিত কাশ্যপ। 


কাশ্ঠপ। [ ব্যগ্রকণ্ঠে ] ধন্ধ! ধনু! ওঠ __ওঠ, নিদ্রা! রাখ, ভিক্ষুদের 
জাগাও-_বিপদ উপস্থিত । 

স্যক্যোখিত ধনু চক্ষু মুছিতে মুছিতে উপস্থিত হইল । 

ধন্থু। প্রভূ! প্রভু! কাকে ডাকছেন? কি আজ্ঞা করছেন? 
কি হয়েছে? 

কাশ্তপ। বিপদ হয়েছে পনু ! ঘরের মধ্যে এত ধোঁয়া কিসের? 
নিশ্বীস বন্ধ হুবার উপক্রম | 

ধন্নু। [হতভম্ব স্তায় | তাই তো! তাই তো প্রভু! একি? 
৫ 


তজ্কাতস্পক্রু | ৩য় অঙ্ক ; 

কাশ্প ৷ ভিক্ষুদের জাগাও ) বুঝ তে পার্ছে। না-_নিশ্চর় মঠে অঙ্গ 
সংযোগ হয়েছে! এ অগ্নিশিখা ! ভিন্ষুগণ-_ ভিক্ষুগণ--_ 

ধন্গু' জাঁগান প্রভু আপনি ভিক্ষুদের, আমি ছুয়ারের সন্ধান করি-_ 
ধে যার কিছু দেখা যাচ্ছে না। 

[ প্রস্থীন। 

কাশ্তপ। [ উচ্চকণ্ঠে ] ভিক্ষুগণ ! ভিক্ষুগণ ! ঘুমিয়ো নী আর? 

গৃহে অগ্নি সংযোগ হয়েছে__জাগো। 


ভিক্ষুগণ ছুটিয়। আসিল । 

ভিক্ষগণ। আগুন-__আগুন, জাগো_-জাগো ভাই সব! কে 
কোথায় ঘুমিয়ে? 

কাণ্তপ | দেখ__দেখ, কে কোথায় আছে, বিলম্বের সময় নাইস_ 
এখনই সমস্ত ছাদ জলে উঠবে। [ভিক্ষুদের মধ্যে অনুসন্ধান করিয়। ] 
উদ্দীলক ? 

জনৈক ভিক্ষু । আছি প্রভু! 

কাশ্তপ। | ক্ষণেক অনুসন্ধান করিয়। ] সারিপুত্র ? 

দ্বিতীয় ভিক্ষু । এই ষেদাস। 

কাশ্তপ। | পূর্বভাবে ] স্থজাত ? 

তৃতীয় ভিক্ষু । সেবক উপস্থিত | 

কাশ্তপ। [ ক্ষণেক পর ] মদগালি কই? তাকে যে দেখছি না 
মদ্দগালি। 


মদগালি উপ্চিত হইল । 


মগালি। [সুরে] বুদ্ধং মে শরণ*__সঙ্ঘ মে শরপং_র্্ং মে 
শরণং | 


৪৬" 


৪র্থ গভভাঙ্ক | ] তব কাত সণ 


কাশ্তপ। আর কেউ নাই, সকলেই উপস্থিত । এঁ ছাদ জলে উঠ.লো॥ 
চল-_ চল, গৃহত্যাগ করি, এই দিকে-_এই দিকে দুয়ার। [অগ্রগামী 
হইলেন -পশ্চাৎৎ পশ্চাৎ ভিক্ষুগণ চলিল | 


ধনু উপস্থিত হইয়া সম্মুখে ধ্রাড়াইল। 


ধন্থু। প্রভু 1 সর্বনাশ 1 যাবার উপার নাই, সকল ছুয়ার বাইরে 
হতে বন্ধ | 

কাশ্তপ। [ দৃঢ়ভাবে দীডাইলেন ] 

ধন্থু। দুয়ার ভাঙ্গবার চেষ্টারও ক্রুটী কৰি নাই। আমি ধনু 
ডাকাত-__পদাঘাতে অমন অসংখা ছুয়ার চূর্ণ বিচুর্ণ ক'রে দিয়েছি ; কিন্ত 
প্রত, প্রত্যেক দ্রয়ারে আগুনের যেরূপ প্রবল প্রকোপ--আমার ডকাতি- 
শক্তিও একতিল সেখানে দাড়াতে পার্লে না। 

কান্তপ | [ উদ্ধপাঁনে চাহিলেন ] 

ধন্থু। পার্লুম নাঁ, প্রভূ! পার্লুম না; সঙ্গ নিষেছিলুম-_-মনে 
করেছিলুম, জীবন ভোর ত মানুষ ঠেঙ্গিয়ে এসেছি, এইবার জীবন দিয়ে 
এ পুণ্জীবন রক্ষা করে জন্মের পাঁপক্ষয় কর্বো। প্রভু! প্রভু! 
মহাপাপিষ্ঠ আমি, আমার মার্জন। জগতের ইচ্ছাবিরুদ্ধ ;--আপনাকে 
বাচাতে পার্লুম না। 

কাশ্তপ | প্রয়োজন নাই ) আমায় মর্তে হবে। 

ভিক্ষণীগণ । [নেপথ্যে ] আগুন-_আগুন, রক্ষা কর-_রক্ষা কর, 
জীবন যায় । 

ধন্থ। ওকি! কিসের চীৎকার ওদিকে আবার ! নারীকষ্ঠ! 

কাশ্প। বুঝতে পার্ছে' না--ভিক্ষুণী-কুটিরেরও এই অবস্থ! ' 

ধন্গু। ও-হোশহো! কেরে? কেরে? কোন্‌ হুর্ধংত্ত-_ 
৯৭ 


ঘন" ঞ্ 


অন ভা তেষ্পশ্ু | ৩য় অঙ্ক; 


কাহ্বপ | [ বাধ! দিয়া ] অহিংস! পরমে ধশ্ম | 

ভিক্ষুণীগণ | [ নেপথ্যে ] রক্ষা কর-__রক্ষা কর। 

ধঙ্ছ। ও-হো-হা- ম্তকে হস্ত দিয়া বসিয়া পড়িল, পরে কিছুক্ষণ 
চিন্ত। করিয়া উত্তেজিতভাবে ] না প্রভূ! আমি যাব; দুয়ার ভাঙ্গতে না৷ 
পারি-__সেইখানেই মাথ! ঠুকে মর্বে!| [ গমনোগিত ] 

কাশ্প | [ ধন্থকে ধরিয়া] এইখানেই যরি এস, ধন্থু। এক সঙ্গে, 
গলা ধরাধরি ক"রে। 

ভিক্ষুণীগণ। [ নেপথ্যে | রক্ষা! কর-_ রক্ষা কর। 

কাশ্তপ ৷ [ উচ্চকণ্ঠে ] মা সকল! কাকে ডাকৃছে! রক্ষা কৰব্তে? 
শরণ নিচ্ছ কার? আমার এতদিনের চেষ্টা, যত্ব, শিক্ষা কি নি্ষল? 
ধর্মচিন্তা কর , ধ্যানস্ক হও, নির্বাণ লাভ কর। 

ভিক্ষুলীগণ | [ নেপথ্যে সুরে ] বুদ্ধং মে শরণং, সঙ্ঘ মে এরণং, ধন্মং 
যে শরণং। 

কাহপ। | ভিক্ষুগণ-প্রতি ] বৌদ্ধগণ । আজ আমার মানবজীবনের 
ন্ুপ্রভাত। বৌদ্ধধন্্ী কি, আমি তোমাদের প্রাণপণ যত্বে শিক্ষা 
দিয়েছি । আজ তোমাদের পরীক্ষা) যদিও তোমর! পরীক্ষিত বহুবার, 
বহুক্ষেত্রে, কিন্তু পরীক্ষার এমন যোগ্যক্ষেত্র জীবনে কখনও ঘটে নাই; 
এই তোমাদের শেষ পরীক্ষা, আর এই আমার শেষ কাধ্য। শিষ্যগণ ৷ 
কখনও মৃত্যুকে নিকাটস্থ্‌, সম্মুখীন, চক্ষের উপর দেখেছ ? কল্পনাই করে 
আস্ছো মৃত্যুর রূপ, শুনেই আস্ছে! তার সম্বন্ধে নানা জনের নানা মত,_ 
আজ প্রত্যক্ষ কর- গৃহঙ্ধার অবরুদ্ধ, গৃহচুড়া প্রজ্লিত; দেখতে পাচ্ছো 
ত মৃত্যুর স্বরূপ মুর্তি? বল দেখি শিশ্যগণ ! মৃত্যু কেমন? 

ভিক্ষুগণ ৷ নুন্গর-_সুন্দর ! 

কাশ্তপ | [ক্কত্রিম বিন্ময়ে] নুন্দর ! মৃত্যু হ্ন্দর ? শিশ্গণ ! 


টি 


৪র্থ গর্ভাঙ্ক | ] অং তস্পশ্ 
অশ্নির এ উন্মাদ অগ্রসর, পলায়নের এই কম্পিত অক্ষমতা, এই ভ 
এখানে মৃত্যুর মুত্তি? এই মৃত্যু সুন্দর? 

ভিক্ষুগণ। অতি সুন্দর _অতি সুন্দর ! 

কাশ্তপ। শিষ্যগণ ! আর বিলম্ব নাই; এঁ প্রজ্ছলিত গৃচুড়া__বজ- 
গর্জনে এখনই মাথার উপর ভেঙ্গে পড়বে, এই বহু ঘত্ব-পালিত নধর 
দেহ অস্থির যন্ত্রণায় দীড়িয়ে ছাই হবে, এই উন্মুক্ত মানব-জন্ম - অবরুদ্ধ, 
নিঃসহার, নীরব বেদনায় লুগ্ত ₹”য়ে ষাবে,_-এই মৃত্যু অতি সুন্দর ? 

ভিক্ষুগণ | মৃত্যু স্বভাব সুন্দর | 

কাশ্ঠপ | উত্তীর্__মৃত্যু স্বভাব সুন্দঞ; পরীক্ষার শেষ তোমাদের,_ 
কাশ্তপও মুক্ত গুরু দায়িত্ব হতে ' শিষ্যগণ ! সাধনায় সিদ্ধি আর কিছু নয়, 
কেবল মৃত্যুকে স্বন্দর দেখা । মৃত্যুকে ভয়ঙ্কর, ভীষণ দেখে কারা ? 
বাসনার নেশায় যারা আত্ম-বিস্থৃত, কামনার কটাক্ষে কলুষিত, আশার 
ছলনা প্রলুন্ধ পথহারা-_তারা। বাসন যাদের শুন্ত, কামনা যাদের শ্ন্ত, 
আশা যাদের শৃগ্ত$-_তাদের চক্ষে মৃত্যু স্বভাব সুন্দর ; তাদের মৃত্যু-_মৃত্যু 
নয়_ নির্বাণ। [উদ্দেশে ] এস মৃত্যু! এস নির্বাণ! আমাদের কার্য্য 
শেষ, আমরা স্কীতবক্ষে তোমার প্রতীক্ষা করি । 


ভিক্ষগণ | 
গীত । 


এস ম্ৃতু। এস নির্ববাণ__এস বদ্ধু-'এস মিজ্র । 
আমর! জাগ্রত সদ! দর্শনে সেই মুষ্তি স্থপবিভ্ঞ ॥ 
ভূত ভবিঘ্য বর্তমান তোমার অনস্ত বিস্তার । 
সত্য তুমি শান্বত তুমি তূমিই অখিল নিস্তার ॥ 
এস মৃত্যু এস নির্বাণ ইত্যার্দি_- 
৯৯ 


আবভাস্শঙুপ [ ৩য় অঙ্ক; 


ক্ষিতি অপ তেজ মরুত বোমে হোমার বিজয় বাল্য । 
সর্বব ধল্ম সর্বব কর্ন ম্তোমারই অর্ধ পাচ্য ॥ 
এস ম্ৃতুযু-এন নির্বাণ ইণ্তাঁদি__ 
শিক্ষার্ডরু প্রতি মুহুর্তে তুমি হে চির সুন্দর | 
তোমারই বস্্-শাসনে ভ্রব কঠিন শৈল কন্দর | 
এস মৃতা-_এস নির্বাণ _ইত্তাদি__ 
আমরা সাগ্রহে কার তব প্রতীক্ষা উদ্যত ভূজ-বন্গানে । 
এস, এস হে সখা এস হে সুহাদ রোধ এ মিথা। স্পন্দনে ॥ 
এস সৃত্যু-_এস নিব্ধাণ_ইত্যদি-- 
কাশ্ঠপ। বুদ্ধং মে শরণং। 
'ভিক্ষুগণ। বুদ্ধং মে শরণং | 
কাশ্টপ | সঙ্ব মে শরণং। 
ভিক্ষুগণ | সঙ্ঘ মে শরণং। 
কাশ্তপ | ধর্মং মে শরণং | 
ভিক্ষুগণ! ধর্ং মে শরণং | 
[ সকলে ধ্যানস্থ হইলেন ] 
নেপথ্যে দস্থ্যগণ কলরব করিয়া উঠিল । 
কলম্ব। [নেপথ্যে |] ভাঙ্গ-_ভাঙ্গ-_দরোজা ভাঙ্গ ; জল দাও, জল 
দাও---পথ করে নাও । 
দল্্যগণ | [নেপথ্যে | জয় কালী! জয় তারা! 
দন্সাগণসহ কলম্ব উপপ্রিত হইল 1 
কলঙ্দ। [ ভিক্ষুগণ-প্রতি ] বাইরে এস, বাইরে এস তোমরা, দুয়ার 


খোলা, পথ পরিষ্কার | 


ধন্জু। কে! কলম? 
২৬০ 


৪র্থ নর্ভঙ্ক। ] - অনন্ভাতিম্পতন 


কলম্ব। বাবা! বেরিয়ে এস এদের নিয়ে-_দীড়িয়ো না আর! 

ধন্ু। তুই এ সমর এখানে কি করে কলম্ব ? 

কলম্ব। কাছেই একটা ডাকাতি ছিল, এই পথেই ফির্ছিলুম, দেখতে 
পেলুম-- আগুন । বেরিয়ে এস, _ছাঁদ পড়লো ঝলে। 

ধন্গু! [ কলম্বকে বুকে ধরিরা ] কলম্ব ! পুত্র! তুই আমার পরিত্রাণ 
করলি অন্ুতাপের নরককুগ্ড হ'তে, আমার ইহকাল পরকাল প্রতুকে 
রক্ষা ক'রে । তুই দস নোস্‌, ধন্মের দূত; তুই আজ ডাকাতি করে ফিনিস্‌ 
নাই, তীর্থস্থান হতে আসছিস্। বৌদ্ধগণ ! বৌদ্ধগণ! নির্বাণ-লীভ 
আজ আর তোমাদের ভাগ্যে নাই; সমাধি ভঙ্গ কর- ধন্ধের আদেশ 
| কাশ্ঠপের প্রতি ] প্রভু । প্রতৃ-_ 

কাশ্তপ। কে! কে সমাধি ভঙ্গ করলে? 

ধনু । দাস! নির্বাণানন্দের লোভ আজকের মত সম্বরণ কর্তে হবে, 
প্রভু ! আমার জন্ত ; আমি আজও ঠিক বৌদ্ধ হ'তে পারি নাই ;_ এখনও 
আমি প্রতুর প্রাণ রক্ষার কামনা রাখি, এখনও আমি প্রভুর দাস ভবার 
গৌরব চাই । আমি নিজে পারি নাই-_আমার সে আকাঙ্ষার নিরভি 
ক”রে দিতে এসেছে--আমার আত্মজ, আপনার দাসান্ুদাস | বাইরে চলুন । 

কাণ্তপ। মদগালি। তুমিই ত সকল বিষয়ে সর্বাপেক্ষা গুণবান, তুমি 
ধন্ুকে বৌদ্ধ করতে পার্বে না? আমার বড় ইচ্ছা! হচ্ছে নির্বাণের_ 
আমার প্রিয় শিশ্তা! ভিক্ষুণীদের দেখে ! 

কলম্ব। ভিক্ষুণীদের কেউ মরে নাই, ঠাকুর ! তাদের সকলকে আগে 
উদ্ধার ক'রে, তবে তোমাদের কাছে এসেছি ; তাদের কুটার ভম্ম, কিত্ত 
তাদের একগাছি কেশ কারও খসে নাই | 

কান্তপ। [পোৎসাহে] ধনু! বাইরে চল; তোমার কথাই রইল; 
নির্বাণ আজ আর আমি নেব না; তোমাকে বৌদ্ধ কর্রার জন্য নয়-_ 
১০১ 


অনা তিস্প [ ৩য় অন্ধ; 
তোমাদের পিত৷ পুত্রের কাছ হ'তে আমি দ্িনকতক একটু ডাকাতি 
শিখব; তোমরা এমন ডাকাত ! 


[ কলম্ব ও ধনুর হাত ধরিয়! অগ্রগামী হইলেন । 


ভিক্ষুগণ। জয় ভগবান্‌ বুদ্ধদেব ! 


উভয়ে । 


নারী । 
পুরুষ । 
নারী । 
পুরুষ | 
নারী। 
পুরুষ । 


পুরুষ । 
নারী । 
পূরুষ। 
উত্ভয়ে । 


| পশ্চাৎ পশ্চাৎ সকলের প্রস্থান । 


*শহ্৪হ্ম গর্ভাক্ | 


গৃহাশ্রম | 
ংসার-দম্পতি । 


নংসার-ধশ্মণ আমর! পুরুষ নারী । 
আমাদের ধশ্দ্রকথ। আমরাও কেন পাড় তে ছাড়ি! 
ভূতীয়ে টিন-দন্ধ্যে-_ 
আমি কলসী কাকে জলের ঘাটে যাই হেলে ছুলে, 
আমি খোঁজ করি-_-কেউ আছে কি ম! কদম্ব মুলে; 
ফিরে এসে সন্দো আ্বালি, 
কুঞ্জে ঢোকে গোষ্ঠ ছেড়ে এই বনম[লী,__ 
এবার, মাথা! বেধে আলত। প'রে সাজতে বসি পান. 
আমার শুকনে। গাঙ্গে বান. আঁমাব শুকনে। গাঙ্গে বান, 
বধু পানের সনে প্রাণটী দিলাম. 
আম(রও সই প্রাণের নিলাম ; 
এস, বসি মুখোমুপী বদল প্রাণে শুক সারী, 
ধনি, এসো লো তাই চাচর পোড়াই,জানাই- নিকট দোঁল-বাড়ী 
ইতি--সংসার-্ধশ্মে আমাদের নিন-বক্ধো | 
[ প্রস্থান । 
১৬২ 


ম্বন্ট গভ্ডাক্ষ ৷ 
মগধ-রাজসভা | 
অজাতশক্র আসীন, ও অভ্রনীল াড়াইয়াছিল। 

অজাত। আমি: দিশ্বিজয়ের সম্বল্প করেছি, সেনাপতি! সাহস 
হয় তোমার ? 

অভ্র । দিশ্বিজয়! উদ্দেশ্ট কি মহারাজ ? 

অজাত। এরপ প্রশ্নের ক্ষমতা! তোমায় দেওয়া নাই; তোমায় যা 
জিজ্ঞাসা কর্ছি, উত্তর দাও,_-সাহস হয়? 

মন্র। মহারাজেরও এরূপ জিজ্ঞাস্য _মগধ-সেনাপতির অসম্মান- 
স্ুচক | কবে, কোথায়, কোন্‌ জীবন-যরণে ঝীপ দিতে তার বক্ষ 
সম্কচিত দেখেছেন ? 

অজাত। সন্তষ্ট হলাম, সেনাপতি ! যাও__সেনাসগ্িবেশ করগে ৷ 

অভ্র। বথা আজ্ঞা | [ অভিবাদনপূর্ববক প্রস্থানোদ্যত ] 

অজাত। শুনে যাও, আমার দিপ্বিজয়ের উদ্দেশ্ট | [ অভ্র ফিরিল 
তুমি যেমনি মগধ-সেনাপতি-_প্রতিকার্য্যে উচ্চবক্ষ, আমিও তেমনি রাজা 
_-সেই মগধের-_-জরাসন্ধের সিংহাসনে, প্রতি মুহূর্ত উচ্চাশয়। আমি 
দ্বিতীর রাজা থাকৃতে দেব না সেনাপতি, এই ভারতবর্ষে ; রাজ থাক্‌বে 
একমাত্র মগধ | আমি শৃঙ্খলিত কর্ব সমস্ত ছিন্ন ভিন্ন পৃথিবীকে বার্থ 
সত্যের এক শাসন-স্থত্রে। আমি প্রত্যক্ষ করাব প্রত্যেক দেহীকে-__ 
ধর্মের স্বাসরোধী প্রাচীর ভেঙ্গে__স্বাধীন বায়ুর এক মুক্ত প্রান্তর | 
. অত্র। জয় হ'কৃ মহারাজের | 


[ ছর্থীভ্যন্তরে চালয়! গেল। 


খন জপতে ' [ওয় অঙ্ক; 
মৃত শিশু বক্ষে আজীবক উপস্থিত হইলেন । 


আজী। কই মহারাজ! কে মহারাজ? এ রাজ) এখন কার? 

অজাত | তুমি বৈদিক-ৎম্মী আজীবক--না ! কি প্রয়োজন তোমার ? 

আজী। [শিশুকে দেখাইয়া] এ অকাঁল-মৃত্যুর দায়ী কে? 
আমার বংশধর__-এই একমাত্র পৌল্র-_সবে নবম বর্ষে পা দিয়েছিল । 
তোমার নামই ত অজাতশক্র? তুমিই ত বর্তমানে মগধের রাজা? 

অজাত। কেন-_রাজাকেই এ অকালমৃত্যুর দায়ী কর্তে চাও 
নাকি? 

আজী। কর্ব না? রাজা রামচন্দ্র একদিন এই রকম এক অকাল- 
মৃত্যুর দায়ী হয়ে গেছেন-_জান না? 

অজাত। সর্বনাশ ! রাঁমচন্্রে-_সে অকালমৃত্যুর কারণ নিদ্ধীরিত 
হ,য়েছিল__শুন্তে পাই - শূদ্রের বিপ্রাচার ; তোমারও তাই নাকি 

আজী | সেইরূপই; এ অকালমৃত্যুর কারণ- বিপ্রের স্েচ্ছাচার । 

অজাত। কে সেবিপ্র--কাশ্তপ ? 

আজী | কাশ্ঠপ | 

অজীত। কাশ্তপের শিরচ্ছেদ কর্তে হবে__কেমন? যেমন সেই 
শুর্রের কর! হয়েছিল? আমি রামচন্দ্র নই বুদ্ধব__আমি অজাতশক্র | 
হতে পারি রামচন্ত্র”_তুমি বল্তে পার-_কাশ্তপের শিরচ্ছেদ কর্লেই 
তোমার পৌন্র বেচে উঠবে? গল্পই হক আর যাই হক--সে অকাল- 
মৃত্যুটায় হয়েছিল সেই রকম | হবে এতে? 

আজী | [ক্ষণেক ইতন্ততঃ করিয়া ] না_হ”ক্‌, আমি পৌল্র চাই 
না) আমার বংশ বাক,-তুমি রামচন্দ্র হও, হত্যা কর কাশ্ঠুপকে | 
বড় আশাভঙ্গ--.বড়' প্রতিঘাত-__বড় দাগ! ; হত্যা কর- রামচন্দ্র হও | 


১০৪ 


ভষ্ঠ গ্ভাঙ্ক | ] অআববজা জ্স্ণত্রহ 


অজাত। রক্ষা কর, বৃদ্ধ! আমি রামচন্দ্র হ'তে পার্ব না। এইরূপ 
হত্যাই যদি হর রামচন্দ্রের কৃতিত্ব-_-আমি রাবণের সুখে বিভোর আছি-_ 
বেশ আছি | রামের বালি-বধ হ”তে রাবণের ভিক্ষুক বেশ গ্রীনির নয় : 
সীতার বনবাস হতে রস্তাবতী হরণ__গৌরবের। ছি, ব্রাহ্মণ! নিজের 
জাতক্রোধ নিবারণে, ধর্মের ব্যাভিচার দেখিয়ে, একজন রাজাকে অকারণ 
নরহতায় লিপ্ত করা_এই বুঝি তোমার বেদের পরমা ? 

আজী ! ধর্ম নাই-__পর্্ম নাই-_ 

অজাত | [ অটহামো ] ভা হাহাহা! বুদ্ধ! সতা বলচ্ক__ 
ধন্ম্ট নাই ? 

আজী : সত্যা বল্ডি, অক্ষরে অক্ষরে মিলিরে ;_ ধর্ম নাই । 

অজাত | পর্খা নাই? 

'আজী | কোথা ধর্ম? কই ধর্ম? ধর্মের জন্য আমি না করেছি 
কি? ধর্ম যদি থাকৃত, নাই-_নাই, ধর্মের রক্ষাঁয় আমি যাই__-আর 
ডাঁকাতে আমার ঘর লোটে । আমার বংশ ধ্বংস করে। ধর্ম না__ 
ধর্ম নাই__ 


কাশ্যপ উপস্থিত হইলেন । 


কাশ্ঠপ | আছে ; ধর্শ আছে । 

অজাত। ধন্ম আছে ! 

কাশ্তপ। প্রতাক্ষভাবে | যে দস্যু-_আজীবক ব্রাঙ্গণকে সর্বস্বাস্ত 
ক”রে গেছে, সেই দন্যুই এই কাশ্তপ ভিক্ষুকে অগ্রিদাহ হ*তে উদ্ধার 
ক”রে গেছে ) ধর্ম আছে । 

অজাত। সুন্দর প্রহসন ; এ দশ্থ্য ত তাণ্হ”লে বড় নুরদিক 
দেখতে পাই ! | 
৯১০৩৫ 


১০). ৮০০৬৮-০ ১] | ওয় অঙ্ক; 


কলম্ব উপস্থিত হইল । 


কলম্ব। দন্থ্যতেও ধর্ম আছে, মহারাজ ! দন্থ্যরা শুধু মানুষ মেরেই 
বেডায় না, সময়ে মান্থষ বাচায় | 

অজাত। তুমিই বুঝি সেই দস্থ্য? ভাল,_তোম রই ধর্ম দেখি। 
দন্জযরা শুধু মানুষ মেরে বেড়ায় না, সময়ে মানুষ বীচাঁয়। তুমি একটা 
তালিকণ দিতে পার আমায়-_এ জীবনে কতগুলো! মেরেছে, আর কতগুলো 
বাঁচিয়েছে ? মারার বোধ হয় সংখ্যা নাই ? 

কলন্ব । নী, মহারাজ ! বল্লে বিশ্বীস কর্বেন কি না জানি না 
আমার হাত দিয়ে আজ পর্য্যন্ত একটাও মরে নাই ! 

মজাত। | রক্তচক্ষে ] সাবধান 

কলম্ব। মিথ্যা বলি নাই, মহারাজ ! বিচার করে দেখুন__ডাকাত 
হলেই সে যে মানুষ-মার হবে-_তার প্রমাণ কি? ডাকাতদের 
উদ্দেশ ত নরহত্যা নয়, তাদের লক্ষ্য-__অর্থ ; তাদের হাত দিয়ে যে মরে, 
নিশ্চয় জান্বেন-_তাদের অনিচ্ছায়, নিরুপায় হ”য়ে”_দে হততাঁগ! নিতাস্ত 
অর্থপিশীচ বলে। মহারাজ । আপনারা সম্পর্কহীন সুন্দরী যুবতীর 
সর্ধাঙ্গে ভাত দিয়ে শুদ্ধ মনে ফির্ভে পারেন? আমরা প্রত্যহ ফিরি, 
প্রায় প্রতাহই আমরা সুন্দরী যুবতীর গ1 হ'তে অলঙ্কার খুলে নিই ; কেমন 
ভাবে নিই-_মায়ের কাছ হতে সন্তানের স্তন্ত শোষণ করার মত। দ্যুর 
ধন্মও বড় কম ধর্ম নয়, মহারাজ ! বিশ্বাস করুন- ধর্ম সাক্ষ্য, সত্য বল্ছি 
-_ আমার হাত দিয়ে আজ পর্য্যন্ত একটী প্রাণীও মরে নাই! 

অজাত | মিথ্যাবাদী! প্রবঞ্চক ! ধর্ম দেখাতে এসেছ ? 

কলম্ব। সত্য বলছি, মহারাজ! আমার হাত দিয়ে আজ পর্য্স্ত 
একটা প্রীনীও মরে নাই। 


২৩৬. 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক |] অআবজাতিস্শ ত্র 


অজাত। [ আজীবকের পৌল্রকে দেখাইয়া ] এ প্রা্মীটা জীবিত না 
মৃত? [ কলম্ব একদৃষ্টে শিশুটাকে দেখিতে লাগিল ] কে আছ? 


জনৈক সশস্ত্র প্রহরী উপস্থিত হইল । 


দাড়াও! [ কলম্বের প্রতি] কি দেখছ? 

কলম্ব । শিশ্ত-_মৃত। 

অজাত । আজীবক ব্রাঙ্গণের বাড়ীতে কাঁল রাত্রে ডাকাতি করেছিলে ? 

কলম্ব। করেছিলাম । 

অজাত | প্রহরী-_ 

কলম্ব। এ শিশুকে ত আমরা চক্ষে দেখি নাই, মহারাজ ! 

অজাত | [ প্রহরীর প্রতি ] শৃঙ্খল__ 

[ প্রহরী শৃঙ্খল ঠিন্ত করিল ] 

কলম্ব। দেখুন, মহারাজ ! এর দেহের কৌনস্তানে একটা আ্াচড় 
পর্যন্ত নাই ! আমাদের হাতে মর্লে, নিশ্চয় কোথাও না কোথাও আঘাত- 
চিহ্ন থাকৃত। 

অজাত। কিসে মর্লো ? 

কলম্ব। [ শিশুকে নিরীক্ষণ করিয়া | আমার অন্্মান-__এ সর্পাঘাত। 

সকলে । | স্বশ্ব ভাবে] সর্পাঘাত। 


ধনু উপস্থিত হইল । 


ধন্গু। কোথায়--কোথায় সর্পাঘাত ? 
: কাশ্তপ। ধনু! দেখ, দেখ এই শিশুটাকে-_[ ধনু পরীক্ষা করিতে 
লাগিল] কি দেখছ? 
১৪৭ 


"তব ভাষণ [ ৩য় অঙ্ক; 


ধন্থ। সর্পাঘাত। 

কাশ্তপ | তারপর-_ 

বন্থু! বন্ুক্ষণ হ/য়ে গেছে প্রভু - 

কাশ্তপ ৷ একটু চেষ্টা কর্তে ক্ষতি কি ছিল? 

আজী। [ ক্রোধ, অভিমান ও আত্মপ্লানি-সমবায়ে | থাক্‌ -পাক্‌, 
আর তোমাদের চেষ্টার দরকার নাই; আমার অদুষ্টে যা ছিল-_হ/রে 
গেছে ; আর আত্মীয়তা কেন? দাঁও--শ্মশানঘাটে নিয়ে ফাই | 

কাশ্তপ | চেষ্টার ক্রুটী হবে না, আজীবক ! তুমি আমাদের যে চক্ষেই 
দেখ, আমাদের ধর্ম্মে শত্রু মিত্র নাই । ধন্দু-- 

[ ধনু শিশুকে স্পর্শ করিতে উদ্যত হইল ] 

'আঙ্গী| | অভিমান ও আত্মগ্লানি-সমবায়ে ] ছুঁয়ে নাছুয়ো না, 
ব্রাঙ্দণের শব । পর 

কাশ্ঠপ। শবেও ব্রাঙ্ণ মাখান” আছে আজীবক ? তাতেই বা 
ক্ষতি কি? চগ্ালে দেবতা স্পর্শ করলে, তাকে পবিত্র ক'রে নেবার 
প্রক্রিয়া, মন্ত্র আছে যখন তোমাদের-_-তখন আর শব শুদ্ধ ভবে না? দাও 
আমাঁদের একটু চেষ্টা কর্তে। 

আজী। [আত্মগ্লানিপূর্ণ অন্ুতপ্তভাবে ] বৃথা চেষ্টা বৃথা চেষ্টা ! 
কোন ফল হবে না; আমি বুঝ.তে পেরেছি__এ সাপে খাওয়। নয়। 

কাশ্তপ। সাপে খাওয়াই, অভিশাপে নয় ; ধনু ! চেষ্টা কর। 

ধন্ধু। আমার একার চেষ্টায় আর তেমন সুবিধ? হবে বলে বিবেচনা 
হর না, প্রভু! আমার শিষ্যদের সকলকে স্মরণ করুন, তারা মন্ত্রগাঁন 
করুক, আমি ফুক ঝাড়ি। [ ঝাড়িতে আরম্ভ করিল ] 

কাশ্থাপ। [ ভিক্ষুদের ম্মরণ করিলেন । ] 


ভষ্ঠ গর্ভাঙ্ক | ] তে জাত শত 
মন্ত্রগান করিতে করিতে ভিক্ষুগণ উপস্থিত হইল । 
ভিক্ষুগণ ।__ 
গীত। 


ভেসে যায় ভেনে যায় গে! আমার সোণার লখিন্দর। 
স'(তালি পর্বতের মঝে গে! এমন লোহ।র ব।সর ঘর, 
তাঁর ভেতবেও বাছ।ধে তুই বিষে জর জর ॥ 

ভেসে যায়_-ভেসে যায় গে! ইতাদি-_ 
করিলে কি_-কহে রাণী গো-_বিষহরিরে ন। মেনে । 
গাল পাড়ে চেঙমুড়ি কামী তখনও চাদবেণে ॥ 

ভেসে যায়- ভেসে যায় গো ইন্তাদি__ 
তখন দাড়াল দুয়ারে এসে গো সেই বেহুলা-হন্দরী, 
বলে- _জীয়াব পতিরে আমি বিদীয় ভিক্ষা! করি ;-_- 
ন্খন কলার ভেল। তৈরী হলো গো ভাঁসলো। অগাধ জলে । 
উঠলে! সন্তী বেহুলা সেই মরা পতি কোলে ॥ 

ভেসে যায়__ভেসে যায়-_গো ইতাদি-_ 


কাশ্তপ। | আনন্দে ] বুদ্ধং মে শরণং ! শিশুর শ্বাস-সঞ্চার হয়েছে ; 
ঝাড ধনু! গাও--গাও তোমরা । 


ভিক্ষগণ | পুনঃ গীত। 


ভেসে ভেসে চললো ভেল। গে! এ পৃথিবীট! ছেড়ে, ৷ 
লাগ লো ভেলা! শেষকালে সেই ধরগের দুয়ারে ॥ 
ভেসে যায়__ভেসে যায় গো--ইত্যাদি__ 
বেছলার চ।দ মুখটী দেখে গৌ- হ'লে! দেবত। সর অজ্ঞান, . 
বলে, কার নারী গো ফোধথার বাড়ী, কি হেতু এখান /-- 


“অবজাগস্পশ্র [ ৩য় অঙ্ক; 


ওগো. বেছুল। যে নামটী আমার গে।, বলে--আ[সি পতির*লাগি । 
দেখ, বিষতরি খেয়েছে মাথা -পন্তির জীবন মাগি £ 
ভেদে যাঁয়- ভেসে যায় গো ইতাদি-_ 


গন, ইন্দ্র বলে নাঁচনীর মণি তুমি গো আমর! দেখিব আজ চোখে, 
যদ্দি পার কর্তে খুলী বেচে যাঁবে ল'খে 7 
তণন কিশোরা বেল] ধনি গে, সেকি আরম্তিল নাচ। 


দেবতারা সব অবাক হলে! দেখে নাচের ধাঁচ॥ 
ভেসে যায়_-ভেসে যায় গে! ইতাদি-- 


কাশ্ঠুপ | [ আনন্দাতিশষ্যে] ধর্শং মে শরণং দেখ__দেখ 
আজীবক ! তোমার বালক চক্ষু মিলেছে--আর ভয় নাই! তোমরা 
বিরাম দিয়ো না-_এখনও বিষ আছে। 


ভিক্ষুগণ পুনঃ গীত, 
তথন খুসী হ'য়ে দ্রেবতার! সব মনসায় দিল ডাঁক, 
আর মনস! বলে না রাখিব চাদবেণের জণক ;-- 
যদি অনাদরেও একদিন তরে গো, সে আমার পূজা করে । 
তখনই জীয়াব গো তার যত ছেলে মরে ॥ 
ভেসে যায়-_ভেসে যায় শো_-ইতাদি-- 
তখন দেবতার! সব দলে দলে গো, গেল চাদবেণের কাছে, 
বলে বা হাতে ফুল দাওনা ফেলে ইথে কি দোষ আছে ;-- 
খন, পিছু ফিরে গাল পেড়ে চাদ গো, সেই বা হাতে ফুল দিল। 
আর মরা লখিন্দর অমনি উঠিয়া বসিল ॥ 
ফিরে এলো--ফিরে এলে৷ রে-_-আমার সোগার লখিন্দর। 
[ শিশু বিষমুক্ত হইয়! উন্নিয়া বসিল ] 
কাণ্তপ। [ আত্মহারাবৎ ] সঙ্ঘ মে শরণং! [শিশুকে তুলিয়া ] 
'নীও আজীবক, তোমার পৌত্র। [আজীবকের হস্তে দিলেন। ] 


১১৪ 


৬ষ্ঠ গর্ভাঙ্ক | ] অনতশীতষ্শল 


আজী। [ক্ষণেক বিশ্মিত থাকিয়া ] কাশ্যপ ! তোমার মঠে আগুন 
দিয়েছে কে-_জান ? 


কাশ্তুপ। জানি। 
আজী। কে বলদেখি? 
কাশ্যপ। তুমি। 


'আজী। আমার বংশরক্ষা করলে? 

কাশ্যপ। বৌদ্ধধন্ম | 

আজী | [ ঈষৎ চিন্তা করির গর্ধভরে] নেব না, নেব না--কাশ্যপ ' 
তোমার দান আমি প্রাণান্তেও নেব ন'; আমি বৈদিক ব্রাঙ্গণ আজীবক 
_জীবনের পরপারে দাঁড়িয়েও পরাজর স্বীকার ক'্রবো না। নাও 
কাশ্যপ ! তোমার দান ফিরিয়ে নাও,আমার যা স্বত্ব ছিল এতে- তা পধান্থ 
তোমায় দিচ্ছি। তুমি এর জীবন দান করেছ-৬আমি এর জীবন, দে, 
ধন, কন্ম, সাধন, তপস্তা সব তোমাতে অর্পণ করলাম । আজ হতে 
এ আর আমার নয়, সর্ধপ্রকারে তোমার; আজীবকের পৌল্র 
কাশ্যপের দাস। 

[ শিশুকে কাশ্যপের হস্তে দিয়া প্রস্থান । 

কাশ্যপ। তোমার দান আমি আদরে বুকে নিলাম, আজীবক ! 
[ বালকের প্রতি | প্রিয় বন্ধ আমার । তোমার নাম কি? 

বালক । হুন্দুভি। 

কাশ্যপ। আজ হতে তোমার নাম রইলো! জয়মাল্য । | অজাতশক্রর 
প্রতি ] ধর্ম আছে, রাজা ! 

কলম্ব। ধর্ম সাক্ষ্য মহারাজ ! আমরা মানুষ মারি না। 

উন্কা উপস্থিত হইল । 


উক্কা। ধশ্খ_প্রতারণা | তোমরা মানুষ মার না? আমার সি'থীর 
৯১১ 


অনা ভিস্পতত | ৩য় অঙ্ক; 
সিদূর কি হলো? চুপ করে যে? ধর্ম দেখাতে এসেছ? নালন্দার 
মাঠ বুঝি আজ ধর্ম-মঠ হয়েছে? রত্বাকরের দল বাল্মীকি সেজ বসেছ-_ 
ভুলে গেছ অমশি সব? আমি কিন্তু ভুলি নাই, ভূল্‌তে কি পারি ? 
'আমি যে উক্কা_সেই উক্কাই আছি যে! উদ্ভ্রান্ত গতি, অস্থির জালা, 
'অগ্নিমুখী | মহারাজ ! ধর্ম দেখছেন? আমি কে জানেন ত? এই 
দন্্যদ্রে ভগ্রী, দুদের কন্ঠ]; তার! মান্য মারে না। এমন মারে-_নিজের 
পাঁজর বলেও লক্ষ্য রাখে না। ধর্ম নাই, ধন্ম-_প্রতারণ] । 

অজাত। কাশ্যপ ! বৃদ্ধ, শিথিল আজীবক ব্রাঙ্গণের কাছ হতে 
ক্য়মাল্য নিয়েছ বলে অজাতশক্রকে ধর্ম দেখাও? আজীবক তোমার 
ঘরে আগুন দিয়েছে, তুমি তার পৌল্রের জীবন দিলে-_-এই বুঝি তোমার 
মানবধন্ম ? এ ধারা ত+ উদ্ভিদ, পণ্ড, পক্ষীর। গাভীর সম্মুখে বৎস 
নির্যাতন করছে সে ছুধ দিচ্ছে) পক্ষীর স্বাধীনতা হরণ ক”রে পিঞ্জরাবদ্ধ 
করছো-_সে বুলি বল্ছে; বৃক্ষের মূল ছেদন কর্ছো_সে ছায়া দিচ্ছে, 
ফল দিচ্ছে; মান্ুষ-_ প্রকৃতির সারস্থষ্টি-_উত্ভিদ, পণ্ড, পক্ষীর দেবাদিদেব__ 
তাকেও তুমি এই দলে ফেল্তে চাও? পশুর এই অক্ষমতা, পক্ষীর এই 
পরাধীনতা, উদ্ভিদের এই নির্জীবতা-_তার ধর্ম? সাবধান কাশ্যপ! 
মান্থুষকে নামিয়ে নিয়ে যেয়ো না) মান্ুষ-মালুষ ; সক্ষম, স্বাধীন, 
সজীব | মানুষ ধর্্াধর্মের বাইরে_ মানুষের ধর্ম আবিষ্কার হয় নাই, 


মানুষের ধর্ম নাই | 
উক্কা। ধর্ম প্রভারণা-_-জীবন উপভোগের | 


অভ্রনীল উপস্থিত হইল। 


অভ্র। সৈল্ঠ প্রন্তত, ষহণরাজ ! 


অজাত। অগ্রসর হও | 
৯১২ 


৬ষ্ট গর্ভাঙ্ক । ] অজাভিস্পতর 


অভ্র। প্রথম অভিযান ? 
অজাত | কোশল । [ অভ্র অভিবাদন করিরা প্রস্থান করিল । 


শিঞ্জন উপস্থিত হইল। 


শিঞজন। সামন্তরাজগণ সাহাষ্যার্থে সসৈম্তে উপস্থিত, মহারাজ ! 
অজাত। অনুসরণ কর। 

শিঞ্জন। সেনাপতির ? 

অজাত। সেনাপতির । 

] শিঞ্জন অভিবাদন করিয়। প্রস্থান করিল | 
কাশ্যপ ! যে দস্থ্য আজীবক ব্রাহ্গণকে সর্বস্বাস্ত করেছে, সেই দস্যু 
তোমায় অগ্নিদীহ হ'তে উদ্ধার ক'রে গেছে__এই বুঝি তোমার ধর্মে 
আস্তত্বের প্রত্যক্ষ প্রমাণ? এ ত প্রকৃতির রুহস্তময়ী বিচিত্রত1-_নিত্যই 
হয়। এক ঝড় বয়__-আশ্রমের আলো নিবে যায়, শ্মশীনের নিবন্ত চুললী 
জেগে ওঠে) এক বন্তা আদে-_-শস্তক্ষেত্র বালুকাস্তুপে তলিয়ে দেয়, 
পতিত উর উর্বর করে; এক তারা_ দেবগুরু বৃহস্পতির করে অপমান, 
কলম্কী চন্দ্রকে দেয় বুধ ;__ধর্ম্ম? এর ভিতর? সাবধান কাশ্ঠপ ! মানুষকে 
প্রত্যক্ষ দেখা ছাড়িয়ে__কল্পনায় নিয়ে এসো না। মানুষ-_মানুষ; 
প্রতাক্ষ, পূর্ণ ; ধন্মাধর্মের অতীত | ধর্ম নাই। 

[ প্রস্থান, পশ্চাৎ পশ্চাঁৎ প্রহরীর প্রস্থান । 

উন্কা | ধন নাই- ধর্ম প্রতারণা; জীবন উপভোগের | 
[ প্রস্থান। 
বৌদ্ধগণ। [সুরে] বুদ্ধং মে শরণং, ধন্ং মে শরণং, সঙ্ঘ মে শরণং । 
[ নিক্কান্ত।] 


১১৯৩ 


চতুর্থ অস্ক 
প্রশমন গর্ভাহ্। 
বণস্থল। 

কোশল-সৈম্তগণসহ বীব্যশ্রেত ও প্রসেনজিৎ দ্রাড়াইয়াছিলেন । 

বীর্য । এ কিরূপ ভাব যুদ্ধ মহারাজ ? 

প্রসেন। এখনও তোমার সেই কথা! যেরূপ ভাবই হোক্‌-_যুদ্ধ 
দাও | 

বীর্ধ্য। এ যুদ্ধ না করলেই হতো, মহারাজ ! 

প্রসেন। আবার ! সেনাপতি ৷ তুমি আচার ব্যবহার জান না। 

বীধ্য। কেন মহারাজ? 

প্রসেন। যুদ্ধ না কর্লে হতো! । জামাতা__যাকে সেধে কন্! দান 
কর্ছি, যার তুল্য দীন আর পৃথিবীতে নাই-_-আজ দ্বারস্থ__-সসৈন্যে, যুদ্ধ- 
প্রার্থনায় ;_ দেব না? পাচ্ছ অর্থ দিয়ে যুদ্ধ দাও | 

বীধ্য। মহারাজ-_ 

প্রসেন। তুমি মর্তে ভয় পাও? 

বীধ্য ৷ মরবার ভয়ে ইতস্ততঃ করি নাই, মহারাজ ! ইতস্ততঃ কর্ছি- 
আপনার কোন দিকেই লাভ নাই ; মগধ যায়-__কন্তার শ্লান মুখ, কোশল 
ষায়__নিজে সর্বন্বাস্ত | 

প্রসেন। কোন দিকেই লোকসান নাই, সেনাপতি ! নিজে সর্বস্বান্ত 
হই-_জামাতায় দান করে সর্বন্বান্ত__ব্যবহারিক জগতে সে গৌরখের ; 


১9৪ 


১ম গভভাঙ্ক | ] অনজাতভিস্ণত্র 


কন্তা বিধবা হয়--আমি ধুমাবতী-প্রতিম! প্রতিষ্ঠা করবে! বাঁড়ীতে | 
যুদ্ধ দাও | 


টঙ্কার উপস্থিত হইল । 


ট্কার। আমার প্রণাম, আমার আন্তরিকতা, আমার ধন্যবাদ নাও, 
কোশলেশ্বর ৷ ্‌ 

প্রসেন। মগধ-দূত ! কোথায় ছিলে এতদিন ? 

টক্কার! রাজা খুজছিলাম একজন, সাঁজানো৷ নয়-_সঠিক রাজা । 
স্তার হোক্‌, অন্তার হোক্‌, তার উপর বল্বার কেউ নাই; পেলাম্‌ না। 
সবাই পরের কাণে শোনে, পরের হাতে কাজ করে, পরের মুখে কথা৷ 
কয়; সবারই মাথার ওপর গুক্ত আছে । ক্ষোভে, ছুঃখে, দ্বণায়__-আস্ছি- 
লাম আমি অজাতশক্রর কাছে-_অপরাধ স্বীকার করে শরণ নিতে; 
আর যাই হোক-_পে একজন রাজা) নিজের বিচারে চলে, কারও শাসন 
মানে না) তার মাথার ওপর গুরু নাই। অকস্মাৎ আপনার একটা 
রাজার স্ম্বর কাণে গেল-_“ুদ্ধ দাও__আর যেতে পার্লাম না, ফিরলাম ; 
_আর একবার দেখতে হলো আপনাকে | এযুদ্ধে আমি আপনার 
কি সাহায্য কর্বে! কোশলরাজ ? 

প্রসেন। হাহাহা]! তুমি আর অন্ত কি সাহায্য কর্বে, মগধদূত ! 
তুমিই ত এ কুরুক্ষেত্রের কষ্ণ-_তুমি রথ চালাও, আর শ'ীখ বাজাও | 

মগধ সৈম্তগণ | [ নেপথ্যে] জয় পৃথ্ধীশ্বর অজাতশক্রর জয় ! 

প্রসেন। যুদ্ধ দাও, যুদ্ধ দাও সেনাপতি ! পপৃষ্বীস্বর অজাতশক্র-_ 
দ্ধ দাও । 

' বীর্য । সৈম্তগণ 1! সাবধান; এ সংঘর্ষ শক্রর সঙ্গে নয়, শুদ্ধ 

আত্মরক্ষ! করে চল; আক্রমণ কেউ ক'রে] ন|। 
১১৫ 


অব ভ্তশ্গও্রত | ৪র্থ অঙ্ক; 


গীতকণ্ে মদ্গালি উপস্থিত হইল । 


মদ্গালি ।-_ 
নী 


চা । 
যতে !ধশ্মস্ততে। জয় । 
শিক্ষায় বাজাও,-_দাও--+কোশলের পরিচয় । 
দেখাও মানব রণ. হও হৃদয়-অপহারী, 
করো ন1! শকনি প্রায় শব লয়ে কাঁড়াক।ড়ি-__ 
ভেসো ন। রুধির ধরে 
ডাব বে।ধি-পার।বারে ; 


পরার্থে আত্মদ।ন-_সেই জয় আপ্রলয় । 
] প্রস্থান । 


কোশল-সৈম্তগণ । যতে। ধন্মস্ততে৷ জয় । 
সৈম্ভগণসহ অন্রনীল উপস্থিত হইল। 
অভ্র। প্রস্তত-_-কোশল-সেনানী ? 
বীধ্য। প্রস্তত। 
অভ্র। আজ সেই অতকিত আক্রমণের প্রতিশোধ | 
বীর্যা। তা” হলে আজ সেই অসম্পূর্ণ যজ্ঞের পূর্ণাহুতি ! 
অভ্র। আত্মরক্ষা! কর [ অস্ত্রধারণ ] 
বী্ধ্য' আক্রমণ কর | [ অন্ত্রধারণ ] 
[ প্রসেনজিৎ ও টঙ্কার ব্যতীত যুধ্যমান সকলের প্রস্থান । 
প্রসেন। [ টহ্কারের প্রতি ] শখ বাজাও, শখ বাজাও, শ্রীকৃষ্ণ । 
পাঞ্চজন্য নয়__সর্বনাশী শঙ্খ! এ হূর্য্যোধন আমার অন্বেষণ কর্ছে__ 
চক্ষে বিশ্বদাহী উহ্থা, হস্তে ধর্ননানা গদা ; আমি চল্লাম__সন্মুখীন হই। তুষি 
শাখ বাজাও ; শাঁখ বাজাও, জানিয়ে দাও-_-আমি আছি; লুকিয়ে নাই । 
[ প্রস্থান ! 


১১৬ 


১ম গভভাঙ্ক। ] তমা শত স্পত 


টক্কার। অজাতশক্র ! অভিমানান্ধ হূর্য্যোধন! এইবার তোমার 
উরুভঙ্গ ; আমি এই কুরুক্ষেত্রের কৃষ্ণ । [ গমনোগ্ত ] 


শিশ্জন উপস্থিত হইল । 


শিঞ্জন | নমস্কার কুষ্ণ মশাই | 

টঙ্কার। কে! অজাতশক্রর চর? 

শিঞ্জন। কুরুক্ষেত্রের শকুনি | 

টক্কার। এখানে কেন? সহদেবকে খুঁজে পাওনি? 

শিপ্তন। সে আমি খুজে নেব এখন, আগে অভিমন্যু বধ করি ! 

টঙ্কার। নারকী ! পরিণাম প্রত্যক্ষ দেখেও ব্যাভিচারের পৌষকণ্ত। ? 

শিঞ্জন | চ”টো না দাদা, কৃষ্জ-চরিত্র অভিনয় করতে নেমেছ। 
পরিণাম দেখাচ্ছ কি? পরিণাম মৃত্যু.-জগতের । শকুনির মৃত্যু 
সহদেবের খজ্ো, তোমার কৃষ্ণ-লীলাও সমাপ্ত-_-জরা ব্যাধের শরে; 
বাদ দাও পরিণাম। ব্যাভিচারের পৌষকতা -কোনখানটায় দেখলে 
আমার, বল? ধর্ম নাই, জীবন উপভোগের__এর মধ্যে ব্যাভিচারটা 
কোথায় পেলে তুমি_-গোঁপী-বল্লভ ! আমি ভ্ত দেখছি-ব্যাভিচাঁর 
তোমার । 

টগ্কার। দূর হও, দূর হও স্বেচ্ছাচারী, যথেচ্ছভাষী ! 

শিপ্পন। দূর হতে বল্লেই দূর হবো না, দাদ! এ রণস্থল-_ারিয়ে 
দাও--্টাদ পান! মুখে চলে যাচ্ছি। 

টঙ্কার। বাঁভিচার আমার ? 

শিঞ্জম। একশে! বার; স্বভীব-চিন্তা, স্বেচ্ছাভোজন, স্বীধীন-বিহাঁর 
__ব্যাঁভিচার নর; আসল ব্যাভিচার--পরমুখাপেক্ষী কর্ম, আত্মহারা 
গতিবিধি, কল্পনাময় জীবন-যাত্র৷ | ব্যাভিচার তোমার । 
১৯১৭ 


অতনভা৩৮শ তত 7 [৪র্থ অঙ্ক; 


টক্কার। আমি পরাজিত, পরাজিত শকুনি ! বিদায়__[ গমনোগ্ভত 
ও পুনরায় ফিরিয়া! ] পামর! বিশ্বাসার-ধর্মরাজের উদ্ধার করে ধর্মবরাঁজ্য- 
স্কাপন যাঁর একমাত্র লক্ষ্য-_-তার জীবন-যাত্র! কল্পনাময়! অজাতশক্র- 
দুর্য্যোধনের উরুভঙ্গ যার পরম উদ্দেশ্য, তাঁর গতিবিধি আত্মহারা, 
উদ্ভ্রান্ত ? প্রসেনজিৎ-ভীমসেনে তর্জনী-সঙ্কেত যাঁর কর্ম, তার কর্ম 
পরমুখাপেক্ষী ? কষুদ্রদৃষ্টি, স্বেচ্ছাচারী! তোমার বাক্য-শ্রবণ পাঁপ, 
তোমার ছায়াম্পর্শ পাপ ; তোমার মুখদর্শন মহাপাপ । 
 প্রস্থান। 
শিঞ্জন। পালিয়ে না-_পালিয়ে! না, দাঁদা! দাড়াও ; শুধু গোবর্ধন- 
ধারণ শুনিয়ে গেলেই আসর ভাঙ্গবে না_মাঁমি তোমার বন্ত্রঁহরণ 
গাইবো--শুনে যাও। দাঁড়ালে না? যাবে কোথা তুমি? শকুনি 
তোমায় ছাড়বে না ভাই । [আত্মানন্দে] ধর্ম নাই__জীবন উপভোগের 
_কচে বারো । 
| প্রস্থান । 
প্রসেনজিও ও অজাতশক্র উপস্থিত হইলেন । 
অজাত। আপনি পুত্রকে অবরোধ করেছেন কেন- আজ আমি 
জাঁন্তে চাই । 
প্রসেন। যুদ্ধ কর-_যুদ্ধ কর। 
অজাত। উত্তর দেন-_-আপনি পুত্রকে অবরোধ করেছেন কি 
কারণ? 
প্রসেন। তুমি পিতাকে অবরোধ করেছ কি কারণ ? 
অজাত। যে কারণেই হোক্‌-.আমি যদি আমার দেবালয় রুদ্ধ 
রাখি, আপনি কি সেই দৃষ্টান্তে আপনার অতিথিশালা বন্ধ কর্বেন ? 
প্রসেন। যুদ্ধ কর- যুদ্ধ কর! 
১১৮ 


১ম গর্ভাঙ্ক। ] অজা-্তপ্ণত্রত 


অজাত। উত্তর চাই। 

প্রসেন। দেব না। 

অজাত। বলুন__অকারণ ! 

প্রসেন। যুদ্ধ কর--কোন কথা শুন্তে চাই না, কোন কথার উত্তর 
নাই। 

অজাত। আপনি পরাজিত । 

প্রসেন। উত্তর না দেওয়ার যদি প্রতিপন্ন হয়-_পরাজয়, আমি 
পরাজিত-_বাক-যুদ্ধে । 

মজাত | তা হ'লে অসি-যুদ্ধই আপনার অভিপ্রেত একান্ত ? 

প্রসেন। একান্ত। 

মজাত। পরিণতি চিন্তা করেছেন ? 

প্রসেন। সুক্্সভাবে। আমি যাই-_-তোমাঁধ একট! চিরস্থায়ী মধ্যাদ। 
দেব? তুমি যাঁও-_বিধবা কন্ঠাকে শখ ঘণ্টা বাজিয়ে বাড়ীতে এনে আমি 
ধূমাব তী-প্রতিম' প্রতিষ্ঠা কর্বো । ॥ 

অজাত। এতদূর! 

প্রসেন। কেন, তৃমি কি মনে করেছিলে__প্রাণভয়ে না হলেও, 
'অন্ততঃ কন্ঠার মুখ চেয়েও প্রসেনজিৎ অস্ত্র ধর্তে পার্বে না? ভুল করেছ, 
যে পুত্রকে অবরোধ কর্তে পারে, সে কন্তার বৈধব্য ঈীড়িয়ে দেখ বে। 

অজাত। তা” হলে আর আমারও ইতস্ততং নাই; আমারও এ 
সিদ্ধান্ত__হুর আপনার ধুমীবতী প্রতিষ্ঠা, নয় আমার চিরস্থারী মর্ধ্যাদ? 
লাভ । যে জন্মদ্াতার গতিরোধ করতে পারে, কন্তাদাতার বাকরোধ; 
শ্বীসরোৌধ তার কাছে কিছুই নয়। চলুক অসিযুদ্ধই | [ অন্ত্রধারণ ] 

প্রসেন। আশীর্বাদ করি তোমায় | [ অন্ত্রধারণ ] 

[ উভয়ের যুদ্ধ ও প্রস্থান। 


১১৯ 


ন্িতীস্অ গর্ভাঙ্ক। 
উদ্ভান। 


গীতকণে পরিচারিকাগণ তরুমূলে জল ঢালিতেছিল । 
পরিচারিকাগণ-_ 
গীত । 


ওলো॥ জল ঢাল গাছে ফুটবে ফুল। 
সাস ন। শ্রধু রসিয়ে ওপর, ভাসিয়ে দেলে। আসল মূল । 

কানায় কানায় কলসী ভর।, 
বশে বশে কোমর নড়া ) 

ধ'রে ধ'রে ছিটিযে ছড়।, পড়বে না ফাক একটা চুল। 
ধরবে কড়ি বেলাবেলি 
ফুটুবে বেলি জুই চামেলি; 

মালঞ্চে ঢুকবে মালী-_কোন্টী তুলি কব্বে ভুল । 


| প্রস্তান। 


অবাবস্থভাবে উষাদেবী উপস্থিত হইল, পশ্চাঁ পশ্চা উদয় । 


উষা। [কৃত্রিম কোপে] যাও,__বুঝতে পেরেছি,_-তোমার সব 
ছট্ুমি » ফুল দেবার ছু তো৷ ক'রে তুমি আমার চুল খুলে দিলে । 

উদয়। হা-হা-হা-হাঁ_ধরেছ ! তাঁমন্দ করেছি কি? 'মাল্গা চুল 
যদি কারও ভাল লাগে__ | 

উষা। ওমা! আল্গ! চুল আবার ভাল লাগে বুঝি! তা? হলে 
আমাদের এত যত্ব ক'রে বাধবার দরকার ? 


১২০ 


২য় গ্ভাঙ্ক। ] তব জাতিশ্পতত 


উদয়। তোমাদের চাতুরী! তোমরা মুখে বল-_ আমাদের ভালো 
লাগার জন্ত দেহ পাল্টাতে পার, কাজে কিন্তু ঠিক তাঁর উল্টো! তোমরা 
মুখ ঢাক কেন? পাছে আমরা আহার নিদ্রা ছেড়ে দিয়ে দিন রাত 
দেখি, _এই ত? 

উষা। দৃর-_তুই বুঝি । 

উদয়। তা'নয় তকি! খাবার জিনিষ নয় ত-_যে মাছি লাগবে? 

উবী। আমরা মুখ ঢাকি কেন জান? তোমাদিকে দেখবার 
স্থবিধা হয় কলে। 

উদয়। তাই নাকি । তা হ'লে ত তোমর। আরও ভরানক দেখ তে 
পাই । তোমরা নিজেদের স্তবিধার জন্ত--তোমাদের দেখবার যা কিছু, শব 
গোপন করে রাঁখ বে__আর আমর। ব্যগ্র, উন্মাদ হয়ে চেয়ে থাঁকৃবো_ 
কতক্ষণে একটু আবরণ সরে যায়,__বটে ! থাম, আমি রাজা হই__সব 
ছেড়ে আগে আমি তোমাদের নিয়ে পড় বে! ১ সৌন্দর্য্য পাধারণের জিনিষ, 
কেন তাকে আমার বলে আঁডাল দিয়ে রাখা হয়? 

উষা। আমিও রাণী হই, তোমাদেরও ছেড়ে কথা কইবো না) 
তোমরা হচ্ছ_সকল রকমে আমাদের, কেন আমরা ইচ্ছামত পাই না 
তোমর! সাধারণের হ'তে যাও ? 

উদয় | [ ইতস্তত; করিরী মস্তক কওুয়ন করিতে করিজ্তে ] 
তা-ই-তো।! হারিয়ে দেবে নাকি! বাক্‌__আপোষ করে রাখি এস! 

উষা। কি রকম? 

উদয়| তোমরাও নখচন্দ্র হ'তে মুখপন্ম পর্যন্ত তোমাদের সর্বালের 
শিল্প-নৈপুণ্যের আল্গ! ছবি আমাদের চোখের ওপর ধরে দাও,_-আমরাও 
ধর্ম, কর্ম্ম, সংসার, স্বর্গ__সকল সাধারণ হতে পিছলে পড়ে সেই স্বভাব- 
সৌন্দর্য্যের তৃপ্তি-তুফানে ভেসে যাই, ডুবে যাই, মিশে যাই । 


১২৯ 


তজা তপ্পত্রু [৪র্থ অঙ্ক, 


উষা।-_ 
গীত । 


ঢাকাই ভালো, বধু ঢাকাই ভালো । 
মধুর কলস বধু ঢাকাই ভালে! । 
পদ্ম পত্রে ঢাক! সরসীর জল 
দেখ প্রাণবধু কেমন শীতল, 
ঢাঁক।_-কণ্টকে কেতকা, ভ্রমর পাগল, 
ধোপে ঢাক। কোকিল ডাঁকাই ভালো। 
বধু, ভালো নয় রসকূপ আলুগ! খে।ল! 
অবাধ সাতারে হয় সাগর ঘোল। ; 


আলোয় আলোয় করে পথ-ভোল। 
অসি--উলঙ্গ, ন। থ।কাই ভালে।। 


উদয়। [তন্ময় হইয়া] উষা! 
উধ্া। [ ভাবাবেশে ] উদয়! 

অদূরে ক্ষেমাদেবী আসিতেছিলেন । 
উদয়। [ চমকিত হইয়া] ঠাকৃ-মা আস্ছে! আমি-যাই | 

[ অনিচ্ছাপূর্বক প্রস্থান । 
উষা। [ঈষৎ বিরক্তভাবে ] ঠাকুমায়েরও আমাদের সময় 
অসময় নাই। 
ক্ষেমাদেবী উপস্থিত হইলেন । 


ক্ষেমা। এইবার আমার সেই বিদেয়টা দে ত, উ্ী! 
উষা। সেই বদ্দি-বিদেয়? 
ক্ষেমা। মনে আছে তা হলে? 


উষা। এই দেখ এখনও চুলের গেরে! খুলি নি। কি চাও বল? 
৯২২ 


২য় গর্ভাঙ্ক | ] তনজ্াশপ্ণত্র 


ক্ষেমা। স্বীকার? 

উধা। আবার! 

ক্ষেমা। [দৃঢ়ন্বরে ] তুই মগধেশ্বরী হ* ! 

উষা। [ সবিশ্ময়ে ] মগধেশ্বরী হবে ! আমি ! বেণুদেবী বর্তমানে | 

ক্ষেমা। নীতি আছে-_নীতি আছে ; বেণুদেবী লো কি ক'রে? 
ক্ষেমাদেবী ত মরে নাই ! চম্কে উঠিস্‌ না; মগধেশ্বরী হ”, উদয়কে দিয়ে 
সিংহাসন অধিকার কর্‌; এমন স্থুযোগ আর জীবনে পাবি না শন 
কোশলে । ূ 

উষী। সর্বনাশ ! সিংহাসন অধিকার! কি ভয়ানক কথা। কি 
ক'রে তবে গাকু-ম? | 

ক্ষেমা। কিছু ভাবতে হবে না তৌকে, তু কেবল উদয়কে হাত কর ; 
বা কিছু করবার, আমি সব ঠিক করেছি । কোলাহল শুনছিস্? কাশী, 
কৌশামী, কনোজ-_তিন শক্তি সসেন্টে মগধে উপস্থিত-_আমার 
আহবানে; কেবল উদয়ের একবাঁর বলবাঁর অপেক্ষা-_তাঁরা তাকে সিংহাসনে 
বসিয়ে দিয়ে যাঁচ্ছে। সিংহাসন অধিকার কর, মগধেশ্বরী হ? ; কথা রাখ | 
চুপ ক'রে যে! ভাবছিস কি? 

উষ্বী। ভাবছি-_ঠাকু-মা, তোমার এ ষড়যন্ত্রের কারণ কি ? 

ক্ষেমী। আমাদের সিংহাসন কেড়ে নিয়েছে-ঠিক এইভাবে-- 
অজাতশক্র, বেণুদেবী-_এরা দ্ু'জনে.__জানিস্‌? তোরাও উদয় উষা দু'জনে 
মিলে চোরের ওপর বাটপারি কর; দেখুক্‌_ ধর্ম আছে । আমরা ত তবু 
ঘর পেয়েছি + শক্র এ পথে পথেই থাকুক । 


বেণুদেবী উপস্থিত হইলেন । 


বেন! কেন তুমি আমার পুত্রবধূর অস্তঃপুরে এসেছ ? 
১৯১০) 


অমঅভ্ীতস্ণত্র রর্থ অঙ্ক) 


ক্ষেমা। তোমার পুক্রবধূর দুয়ারে ত লেখা নাই-_সাঁধারণের প্রবেশ 
নিষেধ । আর তাই বা পাকে কেন? তোমার পুক্রবধূ, আমারও 
পৌন্রবধু। 

বেণু। আর সম্বন্ধ গোছাঁতে হবে না মা, যাও তুমি এখান হ'তে । 

ক্ষেমা। হুকুম ফিরিয়ে নাও; তোমার রাণীগিরি ইতি । মগধের 
রাজা আজ হতে উদয়, রাণী-_-উষাদেবী | 

বেণু। বৌ-মা! ভাবছে কি? কি বিষ ঢাল্তে এসেছে বিষধরী, 
বুঝতে পারছে! না? ফণা নুইয়ে দাঁও। 

ক্ষেমা। নীতি দেখ ছিস্ব-নীতি দেখছিস উষী? বেখুদেবী--ফণা 
নোয়াতে আসে__আমার--এই নীতি | বেণুদেবী আমার যাঁ-তুইও 
বেণুদেবীর তাই; কিছু ভাবিস্‌ না, কোন কলঙ্ক নাই-+এ আমাদের 
কূলপ্রথা ;- রাণী হ» | 

বেণু। | ক্ষণেক স্তম্ভিত থাকিয়া! | বৌ-মা! রাণী হবে? 

ক্ষেমা। | দৃঢ়স্বরে | হয়েছে । 

বেণু। তুমি থামমা । রাণী হবে বৌমা? মুখ তোল, বল, লজ্জা কি? 

উষা। [ নীরবে অধোবদনে রহিল ] 

বেণু। ষড়যন্ত্রকারীদের যেতে বল) চল--আমি তোমাদের সিংভা- 
সনে বসিয়ে দিচ্ছি । 

ক্ষেমা। আজ আর ও দান সাঁজে না, বেণুদেবী ! ও রকম উদাসীনতা 
__জালে পণ্ড়লে-__সবাই দেখিয়ে থাকে । এ করুণা-আমি যে দিন 
সিংহাঁসনচ্যুতা হয়েছিলাম-_কোৌথাঁয় ছিল তোমার করুণাময়? 

বেণু। রক্ষা কর মা, রক্ষা কর; তোমার সিংহাঁসন-চ্যুতির মধ্যে আমি 
ভাছি কি না ধর্শ জানেন 3) সে তুর্ণাম মোছবার চেষ্টা আমি করি না, 
আমার প্রার্থন-_-আর আগুন জেলো না; তৃমি আমি জল্ছি-_সেই ভাল; 

১০৪ 


২য় গ্ভাঙ্ক! | তঙ্গাত শত 


ওরা ছুধের ছেলে-_ধুলো! খেলার সময়__হাসি ছাড়া জানে না--ওদের 
প্রাণে আর এ বীজ দিয়ো না-__আমি তোমার পায়ে ধর্ছি। 

ক্ষেমা। খুব__ খুব খেল! খেল্ছো, বেণুদেবী ! চোখ, রাঙ্গিয়ে হলো 
না ত পারে ধরা! যাঁই কর-__মরুভূমে ফুল ফুটবে না_-যাও ! উষা! 
উদয় কোথা? . 

বেণু। বৌ-মা! হাতে ধর্ছি মা। রাজা নেবে__নাও, কলঙ্ক 
নিয়ো না! 


উদয় উপস্থিত হইলেন । 


উদয় | কিমা! কিমা! তৃমি হাতে ধর্ছে! কার? 

বেণু। অন্ত কারও নয়, বাবা! আমারই পুত্রবধূর । 

উদয়। পুত্রবধূর ! হাতে ধর্ছে! পুত্রবধূর ! তোমারই কিন্করী, দাসীর ! 
কেন মা! কি হয়েছে? 

বেণু। কিছু হয় নি, বাবা! তুমি এখান হতে ষাও। 

উদয়। নামা, আমি আড়ালে ছিলুম__সব শুনেছি । পিতীমহী 
তোমার পুভ্রবধূকে দিয়ে আমায় হস্তগত ক”রে, তোমাদের রাজ্যচ্যুত কর্তে 
চান,_সেই আশঙ্কায় কাতর হয়ে তুমি যাঁর তার পায়ে পড় ছো, হাতে 
ধর্ছে',_এই ত? 

বেণু। আমি রাজোর জন্ত কাতর হই নি, উদয় ! তোমাদেরই কলঙ্কের 
ভয়ে, তোমাদের অশীস্তির ভয়ে ! 

উদয়। নিশ্চিন্ত হও, মা! গীতামুখামৃতসিক্ত বেণুদেবী তুমি, তোমার 
সুস্বরমুগ্ধ, স্নেহ-আকধিত--পবিত্র আমি, কলঙ্ক আমার ছায়! স্পর্শ করতে 
পার্বে না; সর্ব-নিয়মাতীত, নিব্বিকার অজাতশক্রর আত্মজ হ/তে 
অশান্তির গন্ধ বহুদূরে । কেন পুক্রবধূর হাত ধরে কীদ্ছো, ম!! তার 
১২৫ 


অজ ভ্্ণ৩্ত [ ৪র্থ মঙ্ক; 


পরামর্শে আমি তোমাদের পথে বসাব? এতে থে তুমি কলস্িতা চচ্ছ, 
অপরাধিনী ধরা দিচ্ছ! পিত! যদি তোমার পরামর্শে, তোমার যন্ত্-পুত্তলিক' 
হ/য়ে তার পিতামাতাঁব আসন অধিকার করে থাকৃতেন,_-একদিন তোমার 
এ আশঙ্কা হ'তে পার্তে| ; তা যখন নর-_মনে প্রাণে খাঁটা তৃমি,__অসীম 
শক্তিশীলিনী মহাপ্রক্ৃতির স্বেচ্ছাসেবক তিনি, প্রয়োজন বুঝেছেন-_রাজা 
হাতে নিয়েছেন) ভুল ক'রেছ মা তোমার বোঝ! উচিত ছিল সেই 
স্বাধীন, স্বভাবী, পুরুষশ্রেষ্টের পুত্র আমি, প্রয়োজন বুঝি-_স্বেছায় 
সশস্্ তোমাদের সম্মুখীন হবো; কারও প্ররোচনার নয় । 

বেণু। | সন্নেহে |] বাবা বাবা আমার ! 

উদর | [ ভক্তি-গদগদ কণ্ঠে] মা! মা আমার । 

ক্ষেমা। [ ত্রুদ্ধনেত্রে, বঙ্কিম গ্রীবায়, করকশম্বরে ] উদয়-_ 

উদর | [সদর্পে] পিতামহী ! শত চেষ্টাতেও মহারাজ বিশ্বাসারকে 
তোমার বড়যন্ত্র মধ্যে নামাতে পার নাই-_-তাই আজ উদয়কে ধরেছে ? 
তুমিও ভুল করেছ; তোমারও বোঝা উচিত ছিল_সেই জিতাত্মা, 
জিতেন্দ্রির়, পরম পুরুষের পৌত্র আমি; তিনি যখন অবরোঁধকাঁরী পুন্রের 
অপরাধ গ্রহণ করেন নি, অকপটে রাজ্যের রশ্মি আশীর্বাদ সহ ছেড়ে 
দিয়েছেন ১ মার্জন1 করো আমায়_আমি পিতার যোগ্য পুত্র না হ”তে 
পারি-_তাঁতে আমি কুলাঙ্গার নই ;--আমি পিতামহের যোগ্য পৌন্র। 

বেধু। [ সগর্কে] ক্ষেমাদেবি! তোমার চেষ্টা নিক্ষল, তোমার 
উদ্দেন্ত আকাশ-কুস্থুম, তোমার রাবণের চিতা আমার বুকে যুধিষ্টিরের 
রাজসথয় | 

উদয় | প্রণাম নাও, পিতামহী ! আশীর্বাদ কর বা অভিশাপ দাও 
_যেন বিশ্বাসারের পৌল্র হই | চল মা» এখান হতে 

বেণু। [আনন্দে ]বৌ-মা! এস ত মা! আমার অনেক দিনের 

১২৬ 


৩য় গর্ভাঙ্ক | ] এনজাাজ্িস্ণঙজত 


সাধ-_-আজ আমি তোমাদের ছুটীকে নিয়ে একটু পুতুল-খেল! করবো | 
রাজা রাণী হবে? এ রাজ্যে কেন? তোমরা ষেআমার স্নেহ-রাজ্যের 
রাজা-রাণী। 
[ উভয়কে লইয়া! প্রস্থান ৷ 
ক্ষেমী। [দণগ্ডাবমর্ণ করিতে করিতে ] ধর্ম! কই তুমি? এই 
বুঝি তোমার সুক্গতি? উদয়! পিতামহের পথ ধরলি, পাগল! 
দুর্বদ্ধি তোর ) বুঝ লি না? পিতামহের যখন অবরোধ--তোর ভাগ্যেও 
ষে নির্বাসন! যা, অপদার্থ! আর যেন আমার অপবাদ দিস না) 
আমার দৌষ নাই । আমি নিজেই এ সিংহাসন অধিকার করবো, ভোদের 
মুখ পুড়িয়ে দেব। বেণুদেবি! আমার আজকের এ বড়যন্ত্র বিফল হবে 
না; তোমার মগধের ঈশ্বর, ঈশ্বরী, সর্ধ্বময়ী- _ক্ষেম | 
[ প্রস্তান। 


ক্ততীল্ব গভ্ডা্ক ৷ 
রণস্থল-সান্রিধ্য | 
বেশভূবায় স্থসভ্জিতা উদ্ধা | 
উন্ধা। জীবন উপভোগেরই বটে । ফুলের স্বভাবে হাস্ছি, কুরঙ্গিনীর 
তালে নাঁচছি, বিহঙ্গিনীর সুরে গাচ্ছি ; লজ্জ] নাই, সঙ্কোচ নাই, বাধা নাই, 
বিচার নাই। এ হতে স্থখ আর কি? ইচ্ছামত খাই, প্রয়োজনমত 
সাঁজি, স্বাধীনভাবে বেড়াই ; উপভোগের প্রার শেষ | বাকী কেবল-_ 
একটা । [ ক্ষণেক চিন্ত। করিয়| ] কেন বাকী রাখি? দিই শেষ করে। 


ধন্মন নাই; জীবন উপভৌগেরই বটে। [ক্ষণেক বিচার করির়। | কিসের 
১২২৭ 


তভজাভস্পপ্র [ হর্থ অঙ্ক; 


বিচার? কে তুমি বাধা দাঁও, অন্ধ! কারও কথা মানি না) রক্ত মাংসে 
আমার দেহ গঠিত নয়? কেন থাকৃবো-_-স্থষ্টির একটা পরম তৃপ্তিতে 
বাঞ্চত হ*য়ে? দূর হও বাঁধা, বিপ্ন, বিচার, তর্ক; জীবন উপভোগের | 
[ সহস৷ যুদ্ধস্থল প্রতি দৃষ্টি পড়ায় আপন ভাবে ] উঃ কি তুমুল যুদ্ধ! 
তুলা পরাক্রমী মগধ- কোশল। রক্তের নদী ছুটছে, আর্তনাদে আকাশ 
ফাটছে-_কেউ পরাজর মানছে না । আশ্চর্য্য ৷ [উদাসভাবে চাহিয়া রহিল] 


শিঞ্জন আপিয়! উদ্ধার হাত ধরিল। 


[ চমকিতা হইর1! ] কে? 

শিঞ্জন। উপভোগ | 

উদ্কা। [ শিঞ্জনের রূপ ক্ষণেক নিরীক্ষণ করির। মুগ্ধস্থবরে ] সুন্দর ! 

শিঞ্জন। কি দেখছো সুন্দরী? 

উন্ধা। উপভোগ ! 

শিঞ্জন। মনোমত ? 

উন্কা। মনোমত, উপভোগের চরম | 

শিঞ্জন। উপভোগ কর। 

উন্কা। [ ক্ষণেক চিন্ত। করিরা স্বগত ] নাদিই শেষ করে; এ 
উপভোগ রতিরও বাঞ্চনীয় । তবে-- [ চিন্তা ] 

শিঞ্জন। কি ভাবছে! বাল? 

উক্কা। ভাবছি-_জীবন উপভোগেরই বটে ত? 

শিঞ্জন। এভাবনা আর ত তোমার সাজে না, ষোড়শী! তুমি ত 
সব দেখে শুনেই এই উপভোগের পথেই চলে আস্ছে। 

উন্ধা। আসছি; তবে এতদিন আমি যে উপভোগ গুলে করে 
এসেছি-_খাঁওয়া, পরা, বেড়ান,_তাতে তেমন কিছু যায় আসে নাই,_- 

১২৮ 


ওয় গর্ভাঙ্ক | ] অজ তস্পত্রুত 


তত ভাববার কিছু ছিল না) কিন্তু আজকের এটা উপভোগের শেষ 
আর ফের্বার পথ থাকৃবে না) তাই একটু বেশী ভাবতে হচ্ছে-_-ষদি 
ক্রীবন উপভোগের ন!' হয়__ 

শিঞ্জন। জীবন উপভোগের নিঃসন্দেহ-_নিশ্চয় | কোন্‌ দিক 
দিয়ে দেখতে চাও তুমি? বাহ্প্রকৃতি দেখ--মেঘের উদয় না হ'লে 
বিজলীর হাসি ফোটে না; রবির কোল না পেলে ভার ঘুম হয় না» 
বাতাম বদি বোটা না দৌলাব__ফুল ফোটাই বৃথা । অস্তঃপ্রকৃতি 
দেখবে? শক্তি সেধে গিয়ে কর্মের হাত ধর্ছে, ভক্তি জ্ঞানের গলা 
সরে চুমো খাচ্ছে ? জীবাত্মা পরমাত্মীর সঙ্গে মিলিত হুবার জন্য প্রতি- 
মহুর্ত বিরহ-সঙ্গীত গাচ্ছে--সথি ! শ্তাম নী এলো ।' উপভোগ-__ 
উপভোগ ) কিছু নাই, বিশ্বব্যাপী উপভোগ $ জীবন_-উপভোগের । 

উক্কা। [ দৃঢ় হইয়| ] সত্য-_সত্য। যুগলভাবই ভাবের শ্রেষ্ঠ * 
শঙ্গার রসই জগতের আদি রস; আমি উপভোগ করবো । যুবক ! 
| বাহুপাশে শিঞ্জনের গ্রীবা ধারণোদ্যত ও পুনরায় সঙ্কুচিত হইল | ] 

শিঞ্জন। একি! সম্কুচিত। কেন আবার সুন্দরী ? 

উন্কা। [ অব্যবস্থভীবে অস্ফুটম্বরে ] বিধবার উপভোগ-_ 

শিঞ্জন। কে বল্লে তুমি বিধবা? জগতে বিধবা নাই। এক পৃথিবী 
--কত রাজা পরিবর্তন হচ্ছে; এক চিস্তা_কত মুখী, কত বিষজ্কে 
অনুরক্তা হচ্ছে 3 বিধবা নাই । মহাসতী দময়স্তী_-সেও শুন্তে পাঁই_- 
পুনঃ স্বয়ন্বরীর ঘোষণ| দিয়ে গেছে কোথায় বিধবা? তুমি ষে বিধবা 
-_ সে শুদ্ধ স্বার্থপর বর্তমান কালের সাজানো! । 

উক্কা। [ দৃ়ভাবে ] সত্য--সত্য, কিসের বিধবা? আমি যদি 
বিধবাঁ_এ উপভোগের অনুমান আসে কোথা হ'তে? বালিকা ছিলাষ 
-_ভাই থাকলেই ত হ'তো,_যৌবন না ঝীপিয়ে ছাড়লো কই? গাছে 
১২৪টি 


অ-.. 


"ভবভা তম্পত্রত [ ৪র্থ অঙ্ক; 


ফুল যদি নিয়মিত ভাবে ফুটে যায়, তার ফল রোখে কে? কেন তবে 
আমি হৃষ্টির অধিকারিণী হব না? মানি না, আমি উপভোগ কর্বো। 
যুবক! এক কাজ কর,--তুমি আমায় বিবাহ কর। 

শিঞ্জন। হাহাহা! জীবনটাকে আবার বন্ধনের যধ্যে ফেল্বে, 
বালী! সেটা ঠিক উপভোগ হবে শ। বিধবা থাকার চেয়ে বিবাহ 
উচ্চ বটে, কিন্তু উপভোগের জীবন হ'তে বিবাহিত জীবন অনেক নীচে । 
উপভোগ-_উপভোগ ; বন্ধনহীন, অবাধ, স্বাধীন, মুক্ত ; বিবাহ- বন্ধন, 
'গণ্ডিবেষ্টিত, সম্কীর্ণ। বিবাহের পবিত্রতা আর কিছুই নয়-_কেবল 
. গ্রাসাচ্ছাদনের ভারটা একজনের ঘাড়ে নির্দিষ্টভাবে চাপানে। | 

উন্ধ।। থাক্‌, আর বল্‌্তে হবে না_আমি বুঝতে পেরেছি ; চাই না 
বিবাহের পবিত্রতা | গ্রাসাচ্ছাদন ?__জুটে যাবেই, প্রক্কৃতির রাজ্য ; সন্তান 
শয়__অবিবাহিতার সন্তান বলে স্তনে ছুধ আস্তে থাকৃবে না। আমি 
বীধ! দেব না, উপভোগই কর্বে! ! চল যুবক, তোমার উপবনে। 

শিঞ্জন। এগ তপস্বিনি! আমার তপোবনে । 

উন্কী। [ উচ্চকণ্ঠে ] সংহিতা! রইলে! তোমার বিধান, সমাজ! 
রুক্তচক্ষু রাখ; কাল! ছিড়লো তোমার জাল। | হস্ত ধরিয়া! শিঞ্জনসহ 
'গমনোদ্যত ও পুনঃ চমকিত হইয়া | ও-_[ পশ্চাতে ফিরিল | 

শিঞ্জন। একি! পশ্চাৎগামিনী কেন আবার প্রিয়তমে ? 

উদ্ধ/। হাত ছাড়; একটা কাজ আমার বাকী আছে-_ম“ন পড়ে 
গেছে। 

শিঞ্জন। হাহা হাহা! র 

উন্কা। হাত ছাড় ; মনে পড়েছে যখন, সেটার একটু না দেখে আর 
টার শেষ করা হয়না 

' শিঞ্। কি কাজটাই তোমার শুনি ? 


১৩০ 


ওয় গভাঙ্ক |] আভা ভ ৩ 


উ্ধা। শুন্বে? আমি ব্রাঙ্গণদের আদেশ মত ব্রহ্গচধ্ট ক+রে- 
ছিলাম-_-ফল পাই নাই 7 শ্রীমন্তাগবতের সারাংশ শুনেছিলাম__তৃপ্তি হয় 
নাই; শেষ বৌদ্ধমঠে উপস্থিত হয়েছিলাম, বৌদ্ধগুরু আমায় কন্ম 
দিয়েছিল__শক্র মিত্র ভেদভাব ছেড়ে আহত, আর্ত, পীড়িত সর্ব জীবের 
সেবা; আমি উপেক্ষায় উড়িরে দিয়ে এমে এই পথ ধরেছিলাম, সেটা ত 
আমার ক'রে দেখা হয় নি। 

শিপন | মঙ্গলই হয়েছে, জীবনের আর দিন কতক অনর্থক অপবার 
হয় নি। বিধবা । ব্রহ্মচর্যে ফল পাও নি, শ্রীমপ্ভাগবতে তৃপ্তি হর নি,_- 
বুঝ তে পারছে] না এখনও ? তোমার জীবসেবাঁও যে এঁ পথেরই একটা 
শাখা মাত্র! 

উক্কা। আঁহাঁহাঁহা! এ পথত আমার পালিয়ে যায় নি, এ ত 
ধরাই; তুমিও রইলে_ আঁমও রইলুম, কেবল ছুটে! দিনের এদিক 
ওাদক,__-একটু ক”রেই দেখি না? 

শিঞ্জন | জ্ঞানহীনা-- 

উক্কা। তর্ক করো! না, আমি স্বীকার করি--ওতেও কিছু নাই, 
তবু আমি নিঃসন্দেহ হতে চাই-_আমায় সময় দাও । 

শিগ্তুন। তোমার অভিরুচি ! আমি উপভোগী, লম্পট নই যে আমার 
পাপ-বাসনার যে কোন প্রকারে তোমায় প্রবৃত্ত করাতে ষাবো। "আমি 
দুঃখিত নই তোমার এ প্রতাখানে, দুঃখ এই--সময়ের সদ্যবহার বুঝ লে 
না! হুটোদিন যেন দিনের মধ্যেই নয়! যৌবনের ছুটো মুহুর্তও 
অমূল্য, দুপ্রাপ্য | 

[ প্রস্কান। 

উক্কা। যাক্‌ মুহূর্ত, যাক দিন, যাঁক্‌ বর্ষ, যাঁক্‌ যুগ, আমি একবার 

জীবসেব। করবো) ব্রাহ্মণ দেখেছি, বৈষ্ণব দেখেছি, দেখবো _বৌদ্ধের 


১৩১ 


তবত্াভ শত [৪র্থ অঙ্ক) 


অভ্যন্তর। স্মুখেই মহা সুযোগ-__ভুমুল যুদ্ধ ; বহু আহত, বহু আর্ত, বহু 
মৃত্যু । জীবসেবাঁ -জীবসেবা! এঁ কে জল জল ঝলে ডাকে না? স্থির 
হও আর্ত! বাঁচ্ছি মামি জীবসেবায়, তোমার তৃষ্ণ। হ'তে আমার তৃষ্ণ। কম 
নয়, ভূমি ডাক মৃত্যৃতৃষ্ণায়,_আমি ছুটি জীবন পিপাসায়। 

[ প্রস্থান। 


চতর্্ধথ গর্ডাঙ্ক। 


রণস্থল ! 
যুধামান অজ্রনীল ও অবসন বীধ্যশেত। 

অন্র। ছিঃ, কোশল-সেনাপতি ! এই বীর তুমি ? সারা যুদ্ধটার মধ্যে 
আমায় একবার আক্রমণের অবসর পেলে না? আত্মরক্ষা করতে 
কর্তেই মর্লে? 

বীর্য | মর্লুম- -পার্লুম না ভাই-_আক্রমণ করতে পার্লুম না। 

অভ্র। আচ্ছা, আমি তোমায় সুযোগ দিচ্ছি, আক্রমণ কর। 

বীর্ধ্য। দয়া? যুদ্ধস্থলে ? 

অভ্র। দয়া নয় এ, কোশল-সেনানী ! কোন প্রকারে রণ-পিপাসার 
কতকট! নিবারণ ! আঘাত না পেলে প্রতিঘাতে উত্তেজনা আসে কই? 

বীর্ধ্য। যুদ্ধ কর- হৃদ্ধ কর, বথেষ্ট উত্তেজন! পাবে । 

অভ্র। এ যুদ্ধ আর কতক্ষণ চল্বে? রক্তে তোমার সর্ধাঙ্গ ভেসে 
যাল্তছ-__হস্তের খড্ঞা মুহুমুহুঃ কেপে উঠ ছে-_ 

বীধ্য। রক্তে সর্ববাঙ্গ ভেসে যাচ্ছে, এখনও ভিতর হু”তে যোগাচ্ছে ত? 
হাতের খড়গ কাপছে, এখনও ত খসে পড়ে নাই ? যুদ্ধ কর। 

১৩ 


5র্থ গভাঙ্ক |] শঅনজাীজিল্পত্র 


অত্র। যুদ্ধ রাখ, কোশল-সেনীপতি ৷ আর এ যুদ্ধ আমি করতে চাই 
শা মৃত্যু তোমার নিকট । 

বীধ্য। অজ্ঞ! বীর-জীবনে মৃত্য যে প্রতিমুহূর্ত নিকট। 

অভ্র। তা জানি, কিন্তু এ যে তোমার অক্ষম-মৃত্যু, পাগল ! 

বীর্্য। শুধু আমার নয়, অন্ধ! এ মৃত্যু আজ কোশলের কেশরী 
কু”তে কাঁটাণুটার পর্য্যস্ত। এঁ দেখ, আমার শিক্ষিত সৈম্তগণেরও ঠিক 
এই অন্ুকরণ-_এই রণ-প্রণালী। এনা হলে আমাদের রাজ-জামাতার 
দিখ্বিজর হয় কই? 

অভ্র। | চমকিত হইয়া | তোমাদের উদ্দেশ্য কি? উদ্দেশ্য কি 
কোশল-সেনাপতি ? 

বী্ধ্য। মৃত্যু; যুদ্ধকর। 

অভ্র। অপেক্ষ৷ কর, আমায় বুঝ তে দাও । 

তুমি বোঝবার কে? বুঝুক তোমাদের মহারাজ | 

অভ্র। দীড়াও, তবে আমি একবার মহারাজের কাছ হতে আসি । 


[ গমনোগ্ত | 
বাধ্য। | বাধা দিয়া ] সাবধান ! 
অভ্র। তাহলে আমার অপরাধ নাই? 
বীর্যা। নির্ভয়। 
[ যুদ্ধ ও উভয়ের প্রস্থান । 


টক্কার উপস্থিত হইল । 


টক্কার। এ আবার কোন্‌ যুদ্ধ? একটী কোশল-সেনাও আক্রমণে 
অগ্রসর নয়,__সবাই দেখ ছি-_-শক্রর খক্ো ঘাড় পেতে দিযে আছে! এ। 
কি সেনাপতির কোন ষড়যন্ত্র? না, সেনাপতিও « তারিন লবন 


১৩৩ 





অভ ত্র ৪র্থ অস্ক 


উদাসীন! এ ছূর্বলতা; রাঁজ-জামাতার অপমান ভয়ে এ জঘন্য আত্ম- 
বলি। কুরুযুদ্ধে সম্দুখীন হঃয়ে জ্ঞাতিবধ ভয়ে অজ্জুনেরও ঠিক এই 
অবস্থা ঘটেছিল। কি .করি আমি? গীতা শোনাই-_[ উচ্চকণে ] 
ক্লৈবং মাম্মগমঃ পার্থ নৈততত্বযুযুপপগ্তে, 
কুদ্রং হৃদয়দৌর্ধ্বল্যং তক্তোততিষ্ঠ পরস্তপ | 
কই, কোন উত্তেজনাই ত দেখি না! এঁ সেনাপতি পতিত প্রায়! যাও 
হতভাগ্য, মান-অপমানের বোঝাই নিয়ে অন্ধকৃপ নরকে | নিক্ষল গীতা ; 
অস্ত্র ধরতে হলো আমায়। | অসি ধরির1] সৈশম্তগণ। যুদ্ধ কর, নির্ভয় ; 
আমি তোমাদের নেত। | [ গমনোগ্ত ] 


শিগ্ুন উপস্থিত হইল । 


শিপন | কি দাদা! বাঁশী ছেড়ে আবার অসি ধরলে যে? 

টম্কার। রথরজ্জু ছেড়ে রথচক্র শ্রীরুষ্ণও ধরেছিলেন। [গমনোগ্যতা] 

শিঞ্জন|। [বাধা দিয়া] দাড়াও । 

টক্কার। স+রে যাও, বাধা দিয়ে! না) এ বাকৃ-যুদ্ধ নর-_ অস্ত্র যুদ্ধ । 

শিঞ্জন। [অস্ত্র খুলিয়া ] ওতেও আমি আছি ভাই! শকুনি শুধু 
পাশা খেলেই বেড়ায় নাই, রথী-মহলেও তার নাম আছে। 

টম্কার | তা হলে উপস্থিত আর আমি কৃষ্ণ নই; বর্তমানে আমার 
অভিনয়--সহদেবের ভূমিক1 | 

শিঞ্জন | ম্বম্তি_ন্বত্তি। [ উভয়ের যুদ্ধ ] বুঝ তে পার্ছে। সহদেব । 
আমিও আর শকুনি নই? 

টঙ্কার | যুদ্ধ কর। 

শিঞ্ন। তোমার মৃত্যু-_ 


১৩৪ 


৪র্থ গর্ভাঙ্ক | ] আনঙীত্তপ্ণপ্রি্ 


শিঞ্জন। মর তবে মূর্খ । [মস্তকে আঘাত করিল ] 

টক্কার। ওঃ__ মুচ্ছিত হইয়! পতন ] 

শিপন । কি দাদা। আছ-_না গেলে? [ পরীক্ষা! করিয়া] আছ" 
--আছ, মৃচ্ছিত ! 


উদ্ধ! ছুটিয়। আসিল । 


উক্কা। কোথায় মুচ্ছিত? কে মুচ্ছিত ? [টক্কারকে তদবস্থায় দেখিয়া] 
এস ম্ছিত । আমি তোমার সেবা করি। [টঙ্কারের মস্তক ক্রোড়ে লইয়া 
স্শদবা করিতে লাগিল ] 

শিঞ্জন | সুন্দরী-_ 

উন্কা। যাও); এ আঁমাঁর জীব সেবার সময় | 

শিঞ্জন | চল্লাম ; দেখ ছু+ দিন জীবসেবাটাই । 

[ প্রস্থান । 

উন্ধা। জীবসেবার আনন্দ ত মন্দ নয় ! লালসা নাই, লিগ্ততা নাই, 
উত্তেজনা! নাই, অবসাদ নাই; কি যেন একটা তৃপ্তিময়, মন্থর, ধীর, 
অবিরাম প্রবাহ ! এ আমায় ধীরে ধীরে নৃতন জগতে নিয়ে আসছে! 
বাঁ_বৌদ্ধধর্ম! [ টঙ্কারের প্রতি ] মুচ্ছিত ! চক্ষু মেল__-ওঠে।! 

টঙ্কার। [ মুচ্ছাভঙ্গে ক্ষণেক এদিক ওদিক চাহিয়া ] একি ! কোথায় 
আমি । কই আমার অস্ত্র? কোথায় গেল সে নরকের দূত? [ অন্তর 
লইয়া! টলিতে টলিতে উঠিয়া! উত্তেজিতভাবে ] পাপিষ্ঠ । আমি মুচ্ছিত 
হয়েছিলাম, পরাস্ত হই নি। [ বেগে গমনোগ্ত ] 

উস্কা। [হাত ধরিয়! ] দীড়াও__গীড়াও, উত্তেজিত হয়ে না_তুষি 
এখনও হূর্ববল। 

টম্কার। [ সবিশ্মিয়ে] কে তুমি বালা? 


১৩১৫ 


তম জী ক্তশত্র ৪র্থ অঙ্ক 


উন্কা। আমি মুচ্ছিতের শুশ্রধাকারিণী | 

টঙ্কার। তুমিই আমার চৈতন্য ছিলে? আশ্চর্য্য । এ হিংসামর 
রণস্থলে এ অযাচিত অন্গ্রহ্নের উদ্দেশ্ত কি দেবি। 

উ্কা। শাত্বক্তয, শান্তি-অন্থেষণ। 

টক্কার। ভোমার নীমটী আমি শুন্তে পাই সাধিব? 

উক্কা। প্রয়োজন ? 

টকঙ্কার। জীবনদাযিনী তুমি-_-জপ কর্বে৷ যতদিন বাঁচ.বো। 

উন্কা। "আমার নাম উক্!। 

টঙ্কার। উক্কা। [ সম্মুখে সর্প দর্শনের স্তাষ লাফাইয় পিছাইল | 

উক্কা। ওকি । অমন করে উঠলে কেন_-নাম শুনে? নামটা 
আমার বড প্রখর-_-ন]? কি কর্বে। বল-_ডাকাঁতের ঘরে জন্ম কি না। 

টঙ্কার। | পুর্বভাবে | ডাকাতের ঘরে জন্ম। তবে কি--তবেকি 
--তুমি ধন্থু ডাকাতের কন্ত।__উক্কা ? 

উক্কা। ধনু ডাকাতকে তুমি জান? তার সামনে পড়েছিলে বুঝি 
কোন দিন ? তা না হয় হ'লে!) কিন্তু তার যে উক্কা বলে কন্ত! আছে-__ 
তুমি কি ক'রে জানলে? ওকি ! অমন ধার! কটমটিয়ে তাকাচ্ছে! কেন ” 

টক্কার | [ রুক্ষভাবে ] বাও__যাঁও_ 

উক্কা। কেন-_-কেন ? এই আমার নাম জপ-মাল। করছিলে, দক্থার 
কন্ত1 শুনেই সব ভেসে গেল? তাতে আমার দোষ কি? জন্সটা ত আর 
মানুষের হাত ধরা নয়? 

টঙ্কার। তুমি সধবা ন1 বিধবা ? 

উক্ধা। | সলজ্জভাবে |] বিধবা । 

টক্কার। তোমার স্বামীর মৃত্যু হয় কিসে? 

উক্কা।.[ ইতন্ততঃ করিয়া ] এ সব প্রসঙ্গের আবশ্তক কি বীর ? 


১৩১৬ 


ধর্থ গর্ভাঙ্ক | | অনঙ্াতিস্পত্র 


টক্কার। বল-_উত্তর দাঁও | 
উন্ধা। ওকি ! তোমার স্বর অত কর্কশ কেন? থাম-_ভাবতে দাও । 
টঙ্গার। ভাববে কি? কচিটা ছিলে না ত তখন! 
উদ্ধা । আমার স্বামীর মৃত হর--দন্্যর লাঠিতে | 
ক্ষার | সে দশ্য বোধ হয় তোমারই পিতা! ? 
উত্কা! [ নীরবে 'অধোমুখে রহিল ] 

টম্কার। পাপিষ্ঠা! জন্মের জন্ঠ তুমি দোমী নও, তোমার কম্মই ব1 
কই? তুমি এর কি প্রতীকার করেছ ? 

উদ্ধা। করেছিলাম- সাধ্যমত ; ধরিরে দিয়েছিলাম _রাজার হাতে ; 
ফল হয নি। 

টঙ্কার। বিষ পাও নি- খাওয়াতে ? ছুরী ছিল না_-গলায় বসাতে ? 

উন্ধা। | সবিম্ময়ে ] এ আবার কি ! তুমি তার জন্য অত উত্তেজিত 
ভগ কেন? | 

টঙ্কীর। তোমার আজকের এই সেবা-যত্বে গলে গেছি বলে! 
পদাঘাতের পর পুজা বড় মিষ্টি যে! 

উদ্কা। | ব্যগ্রভাবে ] তুমি কে? তুমি কে? তুমি কি আমাদের 
কোন আত্মীয়? 

টক্ষার। [ রূঢ়কণ্ঠে] শক্র । দস্য-জীতের আবার আত্মীয় থাকে 
বুঝি? ত' হলে তুমি আজ এ সুখে ভাস ? স্বামীহস্ঞার সর্বনাশ না ক'রে 
সেবাব্রত নাও ? 

উক্ধা। তুমি কে- তুমি কে? পরিচয় দাও-_তুমি কে ? 

টঙ্কার ! তোমার স্বামীকে তোমার মনে পড়ে ? 
_ উন্ধ/। নী; মুহুর্তের দেখা- মাত্র বিবাহ-রাত্রে ; তাও অতি সঙ্ষোচে, 
অবগুষ্ঠনের ভিতর দিয়ে ! 


১৩৭ 


11 


অসভবাজস্ণতহ [ ৪র্থ অঙ্ক; 


ট্কার। অনুতাপ কর--অন্ুতাপ কর; জন্মের জন্- কর্মের জন্তয। 
সেবাব্রতে এ পাপের শীস্তি হবে না, _বড় মর্মছেদ-_-ভীষণ অভিশাপ! 
অনুতাপ কর - অনুতাপ কর. জীবন-ভোর ;+_-এ জন্মে আশা নাই-ই-_ 
পরজন্মে যদি হয়| [ প্রস্থান । 

উক্ধা। [ ব্যাকুলকণ্ঠে ] দাড়াও__একটাবার প্লাডাও; আমি তোমার 
পায়ে ধরি-__-তোমার পরিচয়টা দাও--পরিচয়টী-_ 


| পশ্চাদ্ধাবন । 
গশশএ৩স্ম গর্ডাহ্ | 
পথ; 
গীতকণ্ে তিক্ষু-ভিক্ষুণীগণ, ধনু ও কাশ্যপ যাইতেছিল। 
গীতি ] 


ভিক্ষুগণ । সবুজ ছায়া শ।তল হাঁওয়। বটের তলায় আয় বে পথিক। 
ভিক্ষণীগণ | কপালের ঘাম যাবে না কোথাও গেলে 
মিছে করিস এদিক ওদিক । 
তিক্ষুগণ । এর দীর্ঘ-গপ্রার বিশ।ল শাখ। 
স্বতঃই পিতার ন্বেহমাগ! 
ড(কছে পথিক আয়; 
ভিক্ষণীগণ । এর ন্বভাব-দোছুল প্রতি পাতা 
মাথার গোড়ায় সজাগ মাত। 
মধুর শুত্ধায়,- 
ভিক্ষুগণ | এর মূল হ'তে ত্বক আত্মহীর! ক্ষিপ্ত জীব সেবায় ;-_ 
ভিক্ুণীগণ। এখানে নাউ রে কেবল ফলের বড়াই, 
ন।ইরে সেবার পারিশ্রমিক । 
১৩৮ 


৫ম দৃপ্ত | ] অনভজাতস্শত্র 


কাগ্তপ | থাক্‌; উপস্থিত তোমাদের অগ্রসর হওয়া হবে না, ভিক্ষুগণ ! 
রণস্তল নিকটেই; তোমরা এই বৃক্ষচ্ছায়ায় বিশ্রাম কর, আমি যুদ্ধের 
সংবাঁদটা নিয়ে আপি । 

ধন্স! আমি সঙ্গে যাব, প্রভূ । 

কাশ্তপ | | সহাস্যে | কেন ধনু? 

ধন্য | দধস্থল__ 

কাশ্তপ | হ,লোই বা, তাতে মামার কি? আমি ত যোদ্ধা নই! 

ধন্চ। শত্রুর অস্্ এখন আর সে বিচার কর্বে না, প্রভূ ! রণোন্মীদনা-_ 

কাশ্তপ | না, ধন্থ! অজাতশকব্র বড় যা তা শক্ু নয়; এমন কত 
উন্মাদনা চলে গেছে; তাঁর ষদি সে উদ্দেশ্ত থাঁকতো, এ কাশ্ঠপের 
অস্তিত্ব কোন্‌ দিন লুপ্ত হয়ে যেতে) তোমরা কেউ আমায় রক্ষা করতে 
পারতে না। সে আমায় হত্যা কর্তে চায় নী_দেখতে চায়। ভশমি 
চললাম ধন্থু। নিশ্চিন্ত থাক__দীড়াবো না সেখানে- মাত্র সংবাদটা নিতে 
যতক্ষণ | 

কলম্ব উপস্থিত হইল । 

কলম্ব। স্বাদ অশ্তুভ, ঠাকুর! আর যেতে হবে না তোমায়; কি 
শুন্তে চাও বল? 

কাশ্তপ। কলম্ম! তৃমি এখানে কি ক'রে £ 

কলম্ব। ক্ষত্রিয় হ'তে ৷ 

কাণ্তপ। [ ভ্রকুঞ্চিত করিলেন ] যাকৃ, সংবাদট] কি? 

কলম্ব। সংবাদ আর ছাই; কোঁশল ধ্বংসপ্রায়' জানি না কার 
বড়যন্ত্র-_একটী কোশল-সেনাও আক্রমণে অগ্রসর নর, সবাই আত্মরক্ষায় 
বিব্রত ₹ অনেকে তাতেও উদাসীন শক্রর জরনাদে রণস্থল কম্পিত ; 
কোঁশল তোমার গেল বলে ! 


১৩৪ 


আজািস্ণপ্রত | ওর অঙ্গ; 


কাশ্ঠপ | | সানন্দে | সংবাদ শুভ-_সংবাদ শুভ, এ আমারই ষডবন্থ 
কল, আমাদেএহই অহিংসা-ধশম্মের উজ্জল চিত্র। একটা কোশল 
সেনাও আঞ্মণে অগঞ্রসব শখ, অনেকে আত্মরক্ষাতেও উদীসীন-_কে বললে 
তোমা এ অশুভ সংখা? ? আমি কি প্রিষ শিষ্য প্রসেনজিতের হত্যাকাণ্ড, 
প্রেত-নত্ন দেখতে কোশপে ছুটে এসেছি, কলম্ব ? আমি দেখতে 
এসেছি অজাতিশক্র খম্ম দেখুক,_-আক্রমণ করে না__আত্মবলি দেষ। এ 

বাদ হ'তে শুভ সংখাদ 'অভিংসা-ব্রতাবলম্বী, বুদ্ধের দাস কাশ্প চাষ শা, 

আমি এই শ্ুসংবাদে জন্যই উদ্গ্রীব হয়েছিলাম | কলম্ব। ভাই আমাব। 
তোমার সেদিনকাঁর সে অগ্রিদাহে উদ্ধার হতেও আজকের এ উপস্থিতি 
আমার কাছে আরও আদরের। শ্রীভগবানের দূত তুমি--তোমায 'ামি 
আশীর্বা” কৰ্বো নাঁ, তুমি 'আমার কাছে পুরস্কার নাও ' | বক্ষে ধরিন্দেন | 

কলম্ব। | ক্ষণেক স্তম্ভিত থাকিযা] কিন্ত তোমার এ পুরস্কারে 
আমার আশা ঠিক মিটলো না» গাকুব। 

কাশ্ঠপ | 'মাব কি চাও ? 

কলম্ব। তুমি 'আমার বাবাকে ছেডে দাও-_-একট! দিনের জন্য 

কাশ্তপ। কি কর্বে? 

কলম্ব। আমরা ক্ষাত্রি হবো। দোহাই ঠাকুর, আমাৰ বনুদিশ্বে 
সাধ । এতদিন স্মযোগ করে উঠতে পারি নাই,আজ আমি আমার দশ্্াব 
দল, আমার সমস্ত স্বজাতিকে সম্মুখ যুদ্ধের সাজে দাজিয়ে নিযে এসেছি , 
আমার আশ ভঙ্গ ক”রো৷ না, বাবাকে ছেড়ে দাও । জাতি ক্ষত্রিয় হবেও 
আমর! জীবন-ভোর চোরামি ক'রে এসেছি , আজ ঢ”বাঁপ বেটায মিলে 
একবার সাম্না সাম্‌নি লডি, বুকের বল দেখাই; ক্ষত্রিয় হই। 

কাম্তপ। ধনু! ক্ষত্রিয় হতে পার্বে ? 

ধনূ। [ঃঅুুভঙ্গী করিয। | আর হয় না, কলন্ব। হাত আর উঠতে 


১৪৩ 


৫ম গভাঙ্ক। ] অঅজাতিস্ণ৩ু্র 


চার শা; বুকে বল আছে এখনও ষথেষ্ট, কিন্থু মনে মর্চে ধ'রে গেছে, 
বাবা। ক্ষত্রিয়ের মাথা তোলার আর আমার আবশ্তক দেখি না পুক্র, 
আমার এই গৌরবই যথেষ্ট-_মামি এ প্রভুর দাস। 

কলম্ব। | ক্ষণেক চিন্তা করিয়া ] বেশ, তুমি প্রভুর দাসই থাক, তবে 
মামাকে তোমার দাস ক'রে না হুকম দীও__আমি একাই পিতৃদ্রোহী 
অক্তাতশক্রর চোখে আঙ্গুল দিয়ে আসি । 

কাগ্তপ। তুমি পিতার আদেশ মান? 

কলম্ব। আমি 'মজাতশত্র নই ঠাকুর__বে জীবের জন্মদাতা, জন্ম- 
দয়িনী সব একমাত্র প্রকৃতি । 

কাশ্তপ| তাহলে তোমার পিতার আদেশ আমার মুখেই শোন-__ 
হিংসা ত্যাগ কর কলম্ব, তোমার সজ্জিত স্বজাতিদের বিদায় দাও । 
অজাতশক্রকে শিক্ষা দিতে চাও? মান্ষের শিক্ষার প্রণালী ও নয়। যুদ্ধব-_ 
পশুর বৃ্ভি; প্রেমের প্রতিষ্ঠা, মন্থুষ্যত্বের প্রতিষ্ঠা, অস্ত্রমুখে রক্তপ্রবাহে ভয় 
শ1; কামুকের সাধ্য নাই, কুলটার গতি ফেরাই ; ধন্ুকে দস্্যুবৃত্তি ছাড়াতে 
কন্যার বৈধব্যও হেরে গেছে, তাকে দল্যুবৃত্তি ছাড়িয়েছে-__মহারাজ 
বিশ্বাসারের ক্ষমা। পিতৃদ্রোহীকে শিক্ষা দিতে চাও-_পিতৃভক্ত হও ) 
খন্মপ্রোহীকে শিক্ষা দিতে চাঁও- ধার্মিক হও; হৃদয়হীনকে হৃদয়বান্‌ 
কর্তে চাও- -হদয় দেখাও | 

কলম্ব। [ মুগ্ধ হইয়া |ঠাকুর! ঠাকুর ! 

কাশ্তপ। কত্রিয় হবে কলম্ব? ক্ষত্রির়ের অর্থ জান তো৷ ? কার ত্রাণে 
বদ্ধ ক"রে ক্ষত্রিয় হবে বালক? আগে নিজের ত্রাণ কর; হিংসা, চৌর্য্য, 
পিশুনতা, প্রাণী-বধাদি দশবিধ মহাশক্রর আক্রমণে আক্রান্ত তুমি--এদের 
দমন করে শুদবদৃষ্টি, সত্যবাক্য, সুসংকল্প, সত্যধ্যানাদি অষ্টধাতুময় তোমায় 
উদ্ধার কর- ক্ষত্রিয় হও | বিপন্ন, শরপাগত, দুর্ধলের পৌোষকতাকে 


১৪১ 


অঙ্াতিস্শ প্র [ ৪থ অঙ্ক 
আমি ঠিক ক্ষত্রিরত্ব বলি না, কলম্ব! যথার্থ ক্ষত্রিযত্ব তার--যে কামনার 
কুদ্মাটিক৷ হ”তে প্রচ্ছন্ন আত্মার উদ্ধার কর্তে পারে। 

কলম্ব। [ অস্ত্র ফেলিয়। | অস্ত্র পরিত্যাগ । দেব! দেব! আমি 
ধর্মের দা, আমি পিতার দাস, আমি তোমার দাসানুদাস। 
[ পদতলে পড়িল | 

ব্গ্রভাবে উদ্কী উপাস্থত হইল । 

উ্কা। আমিও ধর্মের দাঁসী হব, পিতার দাসী হব; জগতের দাসী 
হব। কই পিতা? কোথায় পিত।? 

ধনু । [ সাশ্চর্যোে ] উক্কা! উল্কা ! 

উন্ধা। বাবা! বাব1! আমি তোমার দীসী হব-_-একটা কথা বল-_ 
অনেক দিনের কথা-_বেশ ভেবে চিন্তে আমার স্বামীকে কি তুমি ঠিক 
হত্যা করেছিলে ? 

ধন। কেন? কেন? . 

উদ্কা | বল- বল, লাঠির ঘায়ে ত মাটাতে পেড়েছিলে, কিন্ত শ্বাস 
আছে কি না বেশ পরীক্ষা করে দেখেছিলে ? 

ধন্থু। না মা, ততটা দেখবার স্থযোগ হয় নি) চিন্তে পেরেই আমরা 
নির্ধাক, মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়েছিলাম) তারপর দেখ তে যাব -- 
বেচে আছে কি নাঁ_অম্নি মহারাজ বিষ্বাপার কোথা হতে সসৈম্তে সেই 
পথে এসে পড়লেন_-আর দেখা হ*লো না, আমরা যে যেদিকে পার্লুম-_ 
পালিয়ে নিজের প্রাণ বাচালুম্‌। 

উদ্ধা!। [ কাশ্ঠপের প্রতি ] ধর্ম আছে, ধর্্ আছে ঠাকুর। তোমার 
'সেবাবত নিয়ে আমি স্বামী পেয়েছি | বাবা! আমি বিধবা নই, আমার 
স্বামী জীরিত। 

ধ্গ | [ বিম্মিত আনন্দে | জীরিত! আমার জামাতা! আমি তা, 


১৪৭. 


€ম গর্ভীঙ্ক ৷ ] ভতজা তি -শতত 


হলে কন্তাঘাতী নর-রাক্ষদ নই? যতই আত্মজয়ী হই, এ অনুতাপ 
আজও মআামাঞ বুকে পাথর হ/য়ে সে আছে । পাথর সরিয়ে দে,ম! ! পাথর 
সরিয়ে দে ; বল্‌ মাঁ_জীবিত আমার জামাতা ; বল্‌ মাসে কোথায়? 

উ্কা। রণস্থলে, বাবা! এই রণস্লে । 

ধন্থ। পরিচর দিলে? পরিচয় দিলে ? বল্লে-_-স আমার জামাত ? 
সে এখনও আমার জামাত? তোর প্রতি কিরূপ ব্যবহার করলে? স্ব 
হলেও তুই ত তার জীবনঘাতী জন্মব্যর্থকারী ক্রুর জল্লাদের কন্তা_ 
তোকে আদর করলে, না -দুর দূর ক”রে তাঙিয়ে দিলে ? 

উক্কা। না বাবা, আদরও করে নাই ত্তাডিয়েও দেয় শাই ; ক্ষোভে, 
অভিমানে নিজেই উধাও হ”য়ে চলে গেল! আমি ত ঠিক চিনতুম্‌ না 
সাহস করে ধরতে পার্লুম না। পর্চর জিজ্ঞাসা কর্লুম্‌ বারবার-_ 
কিছুতেই খুল্লে ন/,-কেবল পেই অভিমান, সেই ক্রোথ। আমি সনোহ 
নিয়ে ছুটোছুটা কর্তে লাগ লুম্‌; একজন সৈনিককে জিজ্ঞাসা কর্লুম্‌, 
সে বল্লে__মহারাজ বিশ্বাসারের প্রতিপালিত। সন্দেহ আরও ঘোর হরে 
উঠলো, তোমার কাছে ছুটে এলুম; তোমারও এ কথা,- আর কোন 
সন্দেহ নাই, আঁমার স্বামী জীবিত ! তোমরা তাকে মার্তে পার নাই-_ 
মৃত্যুর মুখে দিয়ে এসেছিলে | মহারাজ বিদ্বাসার--জয় হোক তার 
আমার ইভকাঁল, আমার পরকাল, আমার সর্বস্ব রক্ষা করেছেন এস 
বাঁবা, দেখবে এস। [ কাগ্তপের প্রতি] গাকুর! ধন্ম আছে, তোমার 
সেবাত্রত নিরে আমি স্বামী পেয়েছি ! [ প্রস্থান। 

ধন্ু। প্রভু! প্রভু! অনুমতি দিন__-আমি নিশ্বাসটা সরল ক'রে 
আসি | হাত দুটো ধরে বলে আমি তাঁর-_আমার সেদিন আর এদিনের 
ব্যবধান-_একটা জন্মান্তর ; আমার কন্ত! আর দঙ্ু-কন্তা নর, ভগবান 
বুদ্ধদেবের দীস-কন্তা!। [প্রস্থান 
১৪৩ 





অতঅভাাভস্ণতত [ ৪র্থ অঙ্গ; 


কলম্ব। আমাকেও এ অনুমতি, প্রভু । সেদিন আমি বড় অপ্রতিভ 
হয়েছিলাম ; আজ আমি বুক ফুলিয়ে কলে আসি--আমাদের হাত দিয়ে 
আজ পর্যন্ত একটী প্রাণীও মরে নাই, _দম্ারও ধর্ম আছে । 
| প্রস্তান। 
কাশ্যপ | চল ধনু, চল কলম্ব! আমিও যাব তোমাদের সঙ্গে । ধ্ন্ম 
আছে--আমার সেবাব্রত নিয়ে স্বামী পেয়েছে-_আমি নিজে দেখ বো, 
আর জগতকে দেখাব+ সে মঙ্গলময় মধুর প্রেমের যহামিলন। তোমরাও 
পশ্চাতে এস, ভিক্ষুগণ ! আহতের শুভ্রা কর-_মর্ভে আশ্বাস দাও-__ 


শবের সৎকার কর। 


| প্রস্থান। 
ভিক্ষু ও ভিক্ষুণীগণ | 
পূর্ব গীতাংশ 
ভিক্ষুগণ । কোথায় তোর আম্ব আহত, 
আয়রে যোডাই বুফের ক্ষত, 
কোল্‌ নে কানে; 
ভিক্ষুণীগণ । তোরাই মোদের কম্্ভৃূমি, 
আয়রে তোদের বদন চুমি 
কন্তার আদরে /-- 
ভিক্ষুগণ । ওরে বুগ্ধনদেবের মানব-ধন্ তেদেরহ তরে ;-- 
তিক্ষুণীগণ | সেষে মরম-গল। প্রেমের ধার। 
সাগর মওয়। সুধার অধিক । 
| সকলের প্রস্থান । 


১৪৪. 


৯৪৫ 


উভয়ে । 


নারী। 
পুরুষ । 
নারী। 


পুরুষ। 


নারী। 
পুরুষ । 
নারী । 
পুরুষ । 
উভয়ে । 


অআ-_১০ 


বন্ট গঙ্ডাক্ক। 
গৃহাশ্রম | 

সংপার-দম্পতি । 
শীত । 


ংসার-ধন্মা আমর। পুরুষ নারী । 
আমাদের ধন্ম-কথ। আমরাও কেন সত ছাড়ি। 
চতুর্থে চৌদ্দ পোর।_ 
করি অন্ধকারে গল। ধ'রে গহনার ফদ্দ, 
আমর তখন হাত প। ছেড়ে নমিকশব্দ ; 
অমনি আমার ফিরে শো ওয়া, 
উঠ লে। মুখের কথা কওয়া, 
এ ভূতের বোঝ। য্যয় ন! বওয়[, কোথায় রে তুই যম; 
অমৃনি মুঞ্চময়ি মানমনিদ।নম্‌ _অয়ি চারুশীলে ! 
দেহি পদপল্লবমুদারমূ ;-- 
কি করি, হাসি আবার, সে আট নয় যে যাবার, 
বাঙ্গি মাৎ_কেলা কাবার ; 
ছুইলো। তখন রুদ্ধ তুফান, হাল ধর প্রেম-কাগারী__ 
এই সংসারের সত্য ধর্ম, কে বলে কেলেঙ্কারী॥ 
ইত্ি, সংসার-ধর্দে আমদের নির্বাণ পদ । 
[ প্রস্থান 


শপ্তম্ম গভ্ডাঙ্ক। 
রণস্থল। 
যুধযমান শিঞ্তন ও টক্কার। 

শিপ্জন। আবার এ ছুর্ধদ্ধি কেন তোমার? 

টক্কার। দ্বরাচার ! আমি তোমার কপটতার জন্ত প্রস্তত ছিলাম নাঁ_ 
অন্তায় আঘাতে মুচ্ছিত করে চ”লে এসেছ, তার এত অহঙ্কার? 

শিঞ্জন। এবার তা হ'লে আর যা তা মুর্ছা নয়,_এবারকার মুর্ঘঠা-_ 
শত ষোড়ণী বিদ্যাধরীর শুশ্রষাতেও ভাঙ্গবে না। 

টকঙ্কার। মনেও তা স্থান দিয়ে! না, পামর ! এবার চাঁকা উল্টো দিকে 
ঘোরাব' | 

শিঞ্জন | চত্রধারীর অদ্ভুত ক্ষমতা! বোধ হয় নৃতন শক্তির উন্মেষ 
হয়েছে প্রাণে ! 

টহ্কার। নূতন নয় অন্ধ, এ নিত্যশক্তির সত্যরূপ | 

শিগ্তন। ও শক্তির পূজার উদ্দেশে আমার থুৎকার নাও। 

টঙ্কার। জীবন অঞ্জলি দাও। [ ভীষণ আঘাত করিল ] 

শিঞ্জন। ওঃ! মৃত্যু-মৃত্যু-মৃত্যু-_[ পতন] 

টক্কার। মৃত্যু নিশ্চয়ই; তবে অত ন্ুখ-ৃত্যু তোর নম্ম পাপী! 
আহত, পতিত, মুমূর্যু-কোন বিচার নাই, আমার অস্ত্রসালন।-তোর 
চিতারোহণ পধ্যস্ত । সে অন্তায় মুচ্ছার চৈতন্য নিয়ে যেতে হ'বে তোকে; 
নরকে পড়েও পরিত্রাণ নাই__-আমি নরকেই যাব। 

[ অন্ত্রাঘাতে উদ্যত ] 


১৪৬ 


৬ষ্ঠ গর্ভীঙ্ক। ] অতবজাতিপ্পত্রত 


উন্মুক্ত অসি হস্তে অজাতশত্র আসিয়া 


বাধ। দিলেন | 


টক্কার। এঃ! [দ্বণীর মুখ ফিরাইল ] 

অজাত। মুমুযুর উপর অন্ত্রাঘাত ! 

টক্কার|। [ শিঞ্নের প্রতি ] নরকের আড়ালেই দাড়ালি নারকি ? 

অজাত | সাবধান ! 

টক্কার। কিসের সাবধান! এজ্বাল! হ'তে নরক-জালা শান্তির | 
[ অস্ত্র ধারণ 1 

অজাত। পাষণ্ড [যুদ্ধ] 

শিঞ্জন | মহারাজ ! বিদার-_ [মৃত্যু ] 

অজাত। [টঙ্কারের প্রতি ] স্বর্গ! আমার শিঞ্জনের মৃত্যু মার্জনা 
কর্ছি, এখনও মঙ্গল চাও ত আমার পায়ে লোটাও | 

টক্কার। তুমি মঙ্গল চাও ত অত পা! বাড়িয়ো না; আমার জীবন- 
দাতাকে অবরুদ্ধ ক'রে গায়ের জোরে আমার প্রণাম নিলে-__তুমি কল্মাষ- 
পাদ হবে, তোমার পা! পুড়ে যাবে। 

অজাত! সাবধান! এই শেষবার !. 

টকঙ্কার। আর উত্তর পাবে না, আমি নীরব । 

অজাত। নীরব হও অনন্তকালের জন্য | [ ভীষণ আঘাত করিলেন ] 

টঙ্কার। [বজ্বাহতবৎ] ওঃ ! [অস্ত্র'ত্যাগ করিয়া অবসন্নভাবে]:মহারাজ 
বিশ্বাসার! এই পর্যন্ত; প্রণাম । তুমি আমায় জীবন খণ দিয়ে 
ছিলে__তোমার আত্মজ, তোমার উত্তরাধিকারীর হাতে আমি সে খণ 
শোধ দিলাম । রাজ।! রাজা ! [ পতনোদ্যত ] 


৯৪৭ 


তমা তস্পশ্রুত [ ৪র্থ অন্ক; 


উদ্ধ! ছুটিয়া আসিয়৷ ধরিয়া ফেলিল। 
উক্কা। স্বামী! স্বামী! 
টঙ্কার। উক্কা? 
উদ্ধা। দাঁপী। 


টক্কার। আবার কেন হতভাঁগিনি ? 

উক্কা। আমার সেব! করে সাধ মেটে নি! সেদিনকার গে সেবা 
আমার অন্ধকারে ঘটে গেছে--অনেক ক্রটী হয়েছে | আজ আমি 
আলোর জোয়ারে ভেসে আস্ছি ; কিন্ত করলে কি-_কর্লে কি! আমি 
যে স্বামী-সেবার জন্য--কত অনুতাপ, কত আত্মগ্লানি, কত কাকুতি, কত 
নীরব রোদনের পবিত্র নৈবেছ্য প্রীণের থালে থরে থরে সাজিয়ে এনেছি; 
দেখলে না? নিলে না? অভিমানে করলে কি? 

টক্কার। অভাগিনি! আর যে আমার সময় নাই! তোমার অমন 
প্রাণভর! নৈবে্চ উপভোগ কর্তে আর ত আমার রসন| খেল্বে না! 
পুজাপাত্র রেখে দাঁও-_বিনা পুজাতেই আমি তৃপ্ত; বুঝতে পেরেছি 

। উদ্ধী-_তোমার কোন অপরাধ নাই; আমি তোমায় মার্জনা করে 

চল্লাম। 

উন্ধা। চাই না_চাই না) তোমার মার্জনা-_-আমার বুকে বজ্বাঘাতের 
চেয়েও । তিরস্কার কর, তিরস্কার কর--অভিশাপ দিয়ে যাও-_-আমি অনেক 
অপরাধে অপরাধিনী ; আমি স্বামী চিনি নাই, উদ্ভ্রান্ত ছুটেছি। _নরকের 
দ্বার পর্যন্ত দেখেছি; অভিশাপ দাও--আমার কামাসক্ত মন অন্গু- 
ভাপানলে পুড়ে খাক্‌, আমার লালসাময় দেহ--মহাব্যাধিতে গলে যাক্‌) 
আমার পরফাঁলের সকল পথ কণ্টকারণে) ভরে যাঁক্‌। 

টক্কার। তোষার কল্যাণ হোক্‌, ফল্যাণি ! তুষি মত অপরাধ ক'রে 


+১ 8৬ 


৭ম গঞ্ভাঙ্ক। ] তক্কাতিপ্ণক্র 


থাক- নির্ভয়-__ আমি তোমায় মার্জন! ক'রে যাচ্ছি, আমি তোমায় গ্রহণ 
ক'রে যাচ্ছি) সরলপ্রাণে পবিভ্রকণ্ঠে বলে যাচ্ছি_উহ্কা! তুমি আমার 
স্ী। [মৃত্যু] 

উন্কা। স্বামী! স্বামী! ও-হোঁহো_[ বক্ষে ঝাপাইর! পড়িল ] 


ধলু উপস্থিত হইল । 


ধন্থ। কইমা? কইমা? কোথায় মা তোর স্বামী? 

উক্কা। বাবা__বাঁবা_-[ ব্যাকুলভাবে কীদিয়! উঠিল ] 

ধনু. [ টঙ্কারকে দেখিয়া] এই যে! এই ত বটে! [নিকটে 
গিয়া শবদেহ দেখিয়া লাফাইয়া লঠিল ] একি! এ আবার কোন্‌ 
দন্্যুর লাঠিবাজি ! ধনু হতে বড় দন্থ্য জগতে আবার কে? তার 
লাঠিতে তবু শ্বাস থাকে-_এ যে নিষ্পন্দ, অসার, শুন্য । ৪-হোহো_ 
[ মস্তকে করাঘাত করিতে লাগিল ] 


কলম্ব উপস্থিত হইল । 


কলম্ব। কি হয়েছে, বাবা! কি হয়েছে? 

ধন্থু। কলম্ব! কলম্ব! দেখ. ত বাবা! একটু আগে গিয়ে-_মহারাজ 
বিশ্বাসার এ পথে আসছেন কি না ?_-সসৈম্তে--সেই রকম--সেই দিন 
কার মত? আজ আবার আর একবার তার আসবার বড় দরকার 
হয়েছে, বাব! এই দেখ-__দুর্য্যোধনের হর্ষে বিষাদ ! 

কলম্ব। [ টগ্কারকে মুত ও অজাতশক্রকে অসি হস্তে দণ্ডারমান 
দেখিয়া] মহারাজ ! প্রণাম; ভালই হয়েছে; আমি জগতকে একটা 
কথা বলতে এসেছিলাম, আপনার দর্শন পেয়েছি--আপনি জগতের 
শিরোমণি__-আর আমায় কোথাও যেতে হলে! না। আমার কথ 
১৪৭৯ 


অভ্াাতিল্পত্র [ ধর্থ অঙ্ক; 


সেই কথা-_-আমাদের হাত দিয়ে আজ পর্য্যন্ত একটা প্রাণীও মরে নাই) 
একটা সন্দেহে সেদিন আপনার সম্মুখ হ'তে অবন্ত ম্তকে চ?লে 
এসেছিলাম ; আজ আমর! নিঃসন্দেহ-_-আজ আমরা মুক্তক্ঠ_-আমাদের 
হাত দিয়ে আজ পর্ধ্যস্ত একটা প্রাণীও মরে নাই। ডাকাতদের ধর্ম 
মানুষ মার! নয়, মাঁনুষ-মারা ধর্ম রাজাদেরই | 

উন্ধা। [স্থির হইয়া] বৃথা দোষারোপ ক”রো না, দাদা! কারও 
ধর্ম মানুষ মার! নয়, মানুষেরই ধর্শ-__মরা। বাবা! কাদছো? কেন 
কাদছো? আমি ত বিধবাই ছিলাম, বাবা! মহারাজ! আনুন 
আজকের এ ঘটনার জন্ত আমি আপনার ওপর অভিমানিনী নই; 
আপনাকে দ্বণ! হচ্ছে__আপনি সেদিন একট! নিঃসহায়া, বৃদ্ধিহীনা 
নারীকে বড় উল্টো বুঝিয়ে দিয়েছিলেন_ ধর্ম নাই, জীবন উপভোগের । 
যান-_জেনে যাঁন ধর্ম আছে, জীবন উপভোগের নয়; আমি সেবাব্রতে 
স্বামী পেয়েছি । 

অজাত | বিধবা! আমি বিস্মিত হচ্ছি--তুমি সেই বিধবা? 

উন্কা। না মহারাজ! আমি সে বিধবা নই; সে বিধবা ছিল-_ 
সধবা-অজ্ঞাতা! বিধবা, এ বিধবা__-সঠিক বিধবা । 

অজাত। তুমিই না ব+লেছিলে__স্বামীসেবা আবরণ, নিজের 
সম্ভোগে ব্যাঘাতই বিধবার দ্রঃখের মুখ্য কারণ ? 

উ্ধা। প্রলাপ বলেছিলাম । সেদিন আমি স্বামী চিনি নাই, 
স্বামীর মুখ কখনও চক্ষে দেখি নাই, তাই ওরূপ অকথ্য জঘন্য বঃলে, 
ছিলাম। আপনি বুঝি আমার সেই ছুূর্ধলতার সুযোগ নিয়ে এই 
সর্বনাশ ক.রে দিয়েছেন? আজ কই কতদূর তার্কিক আপনি, আমায় 
নিরস্ত করুন দেখি? আজ আমি সে কথ! আমার ফিরিয়ে নিচ্ছি, আজ 


আধি দিব্যচক্ষে দেখছি-আর মুক্তকষ্ঠে বলছি--নিজের সম্ভোগের 
৯৫৬ 


৭ম গর্ভাঙ্ক।] অআবতাস্ত্শত 


জন্য নয়, স্বামী-সেবার জন্যই নারী-জন্ম;) তার মধ্যে যেটুকু 
সম্ভোগ- সে সম্ভোগ নয়- স্থষ্টির্ষায় ছুটী প্রাণীর পবিত্র মধুর 
আত্মত্যাগ | 

অজাত। এ তোমার শ্বশান-বৈরাগ্য, বিধবা! এ ক্ষণিক; স্বামীর 
শব চক্ষের ওপর দেখছে, তাই উপস্থিত তোমার স্বামী-স্বামী মোহ; 
এ মোহ থাঁকে না, থাকৃবে না। দিনের পর দিন চ”লে যাবে, চেনা স্বীমী 
অপরিচিত হয়ে দীড়াবে, দেখা মুখ আবছায়ার মত কখনও ভেসে 
আসবে-__মিলিয়ে যাবে । এ সম্বন্ধে তর্ক নাই এ জগতের ধারা-দেখ|। 
বিধবা! স্বামী চেন নাই, স্বামীর মুখ চক্ষে দেখ নাই, সেই শ্থাত্রে 
যদি অমন ধার! প্রলাপ বল্তে পেরে থাক, চেনা স্বামী যখন অচেনা 
হ+য়ে উঠবে, স্বামীর মুখ যখন স্থৃতি হ'তে মুছে যাবে, তখন যে আবার 
এঁ প্রলাপ বল্বে নী-_তার প্রমাণ ? 

উক্কা। [ ক্ষণেক নীরব থাকিয়া ] তার প্রমাণ নাই, মহারাজ ! 
ভাষায় তার প্রমাণ নাই। তবে অন্তরের অন্তঃস্থল পর্য্যন্ত যতদূর দেখছি, 
তাতে এই বুঝছি-আমার সেদিনকাঁর সে প্রলাপ উক্তি, নিশ্চয় আমি 
বিধবা ছিলুম ন1 ব+লে ? তা না হ”লে, বিধবার মুখ হতে সে জছন্ত কাহিনী, 
বিধবার সে নির্লজ্জতা, বিধবার সে কদর্য্য ইচ্ছা কখনও আসেনা, আস্তে 
পারে না; এর প্রমাণ নাই, উপমায় বোঝাবার নয়; এ শুদ্ধ আজ 
আমি বিধবা_আমার কথায় বিশ্বাস করতে হবে আপনাকে | বিশ্বাস 
করুন, মহারাজ-_আমার মধ্যে সে প্ররত্তি কখনও জাগবে না, আমি 
সঠিক বিধবা; বিশ্বীন করুন_-আমি আর উন্কা নই, আমি জ্যোন্স]। 


কাশ্যপ উপস্থিত হইলেন । 
কাঁশ্যপ। এ অভিনয়ের এই খানেই যবনিক। পড়ে যাক, রাজ! ! 


১৫১ 


ববজশুস্পশ্ু [ ৪র্থ অঙ্ক; 


অজাত। তোমার ধর্ম দেখলাম কই কাশ্তপ? তোমার সেবা-ব্রত 
নিয়ে স্বামী পেয়েছে-_-এই বুঝি ধর্ম নাটকের উপসংহার ? ভূমি-কর্ষণ 
করতে করতে ও লোকে অর্থ পায়, কন্তা পায়; বেশ্তা-সংসর্গেও শুনতে 
পাই জ্ঞান চক্ষু ফোটে; সে গুলো কি তোমার ধর্ম বলতে হবে ? 

কাশ্তপ | ধর্ম না বল -কি বলতে হবে? ভাগ্য? 

অজাত। প্রকৃতির খেল! । 

কাশ্তপ। মানি, কিন্তু ভূমি কর্ষণ করতে করতে পরমার্থ-রূপিনা 
পরম! কন্ঠ পাঁয় রাজন্ব জনক, আর মেনক1 অগ্গরীর সংসর্ে জ্ঞান চক্ষু 
লাভ করে ব্রহ্মধি বিশ্বামিত্র ; এ ছাড়া তোমার প্রকৃতি এ খেল৷ খেলাবার 
স্থান পেয়েছে কোথাও? যদি পেয়ে থাকে--তারাও দ্বিতীয় জনক, 
দ্বিতীয় বিশ্বামিত্র | আমি তোমার কথা অস্বীকার করি না, রাজ! প্রকৃতির 
খেল। নিশ্চয়ই ; তবে আমি বলি-_-এতে তোমার প্রকৃতির কর্তৃত্ব নাই, 
এদের ভাগ্য তোমার প্রকৃতিকে এই খেলা খেলতে বাধ্য করিয়েছে ! 

অজাত। আচ্ছা, তারপর ? 

কাস্তপ। তারপর ভাগ্য মানলেই তোমায় মানতে হবে__ভাঁগা 
পূর্ব্ব জন্মের কর্মফল । 

অজাত। আবার পুর্বজন্ম পরজন্ম সেই জন্মান্তর-বাদ নিয়ে এসে 
ফেললে ক্কান্ঠপ ? 

কাশ্রুপ। জন্মান্তর বাদই যে ধর্মম-রাজ্যের ভিত্তি, রাজ! জন্মান্তরে 
বিশ্বাস না এলে ধর্মে বিশ্বাস কিছুতেই আসবে না; আর জন্মান্তর স্থির 
হলেই কারও তর্জনী সক্কেতের আবশ্তক হবে না, কর্ম আপনা হতে 
সম্মুখে দাড়াবে; কর্ম এসে দীড়ালেই আর জীবন উপভোগের থাকবে না, 
জীবন হুবে ত্যাগের ) আর সেই ত্যাগের শিরোভাগে,আঁপনিই জাজ্জল্যমান 
দেখতে পাধে--ধর্ছের সচ্চিদানন্দময় মোহন মুর্তি। 


১৫২ 


৭ম গরভাঙ্ক | | এন জাজ্িল্পতক 


অজাত | জন্মান্তর নাই, কাশ্ঠপ ! ভ্রমে আচ্ছন্ন তোমরা । বৃথা তর্ক 
করো না। 

কাশ্তপ। জন্মান্তর আছে, রাজ! ভ্রম নর, অতি সত্য; আমি তার 
প্রকুষ্ট প্রমাণ দিতে পারি। 

জাত। আমিও প্রমাণ দিতে পারি__জন্মান্তর নাই ; দেহ ধবংপেই 
জন্ম, কর্ম সব জঙঞ্জালের শেষ । 

কাশ্সপ। পারবে না, রাজী! তোমার নীরব হ'তে হবে আমি 
তোমায় প্রত্যক্ষ দেখাব । 

অজাত। [ চমকিত হইলেন ] 


মুক্ত অসিহস্তে প্রসেনছিত উপস্থিত হইলেন । 


প্রসেন । এখানে তুমি অজাতণক্ক? আমি রণস্থলটা তন্ন তন্ন 
ক'রে খুঁজছি! তোমার জয় হয় নি, পাগল! -আমি যতই দৃঢ় হই-__ 
তুমি বড় হতভাগ্য-_আমার এই ছুঃখ দৌর্ধল্যের ফাঁকে আমায় অক্্রহীন, 
মুচ্ছিত ক'রে চলে এসেছ । এস, আর আমার কোন দুর্বলতা নাঈ, 
তোমার নির্ব,দ্ধিতার শেষ দেখি | 
অজাত। কাশ্ঠপ! তোমার জন্মান্তর আমি দেখবো, উপস্তিত 
কোঁশল-রাজের রণ-মত্ততার চির শান্তি করে আনি! 
[ উভয়ের যুদ্ধ ও প্রস্থান । 
কাশ্তপ | উক্কা! এখন তোমার কার্য কি? সহ্মরণ না 


সেবাব্রত ? 
উক্কা। সেবাত্রত ; আমি নিক্ষল-জীবন মাত্রী হ'তে চাইন! প্রভূ; 
আমি ব্রতাচারিণী কুস্তী | 


কাশ্তুপ। [ আশীর্বাদ করিয়া প্রস্থান ] 


১৫৩ 


তব জা ভ্স্শজরত 


| ৪র্থ অঙ্ক; 


গীতকণ্ঠে ভিক্ষু ও ভিক্ষুণীগণ উপস্থিত হইল। 
ভিক্ষু ও ভিক্ষুণীগণ ।-_ 


ভিক্ষুগণ | 
ভিক্ুণীগণ | 
ভিক্ষগণ | 
ভিক্ষুণীগণ | 
ভিঙ্কুগণ । 
ভিক্ষুণীগণ । 
ভিক্ষগণ । 
ভিহ্ৃ্ীগণ | 
ভিক্ষুগণ | 
ভিক্ষুণীগণ । 
ভিক্ষাগণ ৷ 
ভিত্ষণীগণ | 
ভিক্ষুগণ | 
ভিঙ্ষার্গীগণ । 
ভিক্ষগণ। 
ভিন্ষুণীগণ ! 


গীত । 


সেবাত্রত | 
সেবাব্রত। 
নাই আর মানবের অন্য ব্রত। 
সব বত এ ব্রতের পদানত || 
সেবা নয়__ধন মান গর্ধিবত কামুকের 
সেবা-নয় জপ রস গন্ধিত নরকের ;-- 
সে সেবা স্বার্থ সেব! 
সে সেব। বার্থ সেবা; 


সে সেবার ফুল তলে সর্প শত। 
সেসেবার পরিণাম বক্ষ ক্ষত || 


পসেব। কর শোকাকুল নেত্র-ধ।র'র 
সেবা কর দীন হীন সর্ধ্ব হার।র-_ 
সেই সেব! সাত্বিক 
সে সেবা অপাধিব, 
সে সেবায় শাস্তি জাগ্রত। 
সেই সেব। সত্য শাশ্বত |) 


[ শিগ্রন ও টক্কারের মৃত দেহ লইয়া! ভিক্ষুগণ অগ্রসর হইল পশ্চাৎ 


পশ্চাৎ সকলের প্রস্থান ] 


১৫৪ 


পঞ্চম অহ । 


প্রথম লভ্ডাহ্। 
রণস্তল। 


মগধসৈম্তগণ কোশল-বিজয় উত্সবে নৃত্য করিতেচিল। 
অনুতপ্ত, অব্যবস্থভাবে অভ্রনীল উপস্থিত হইল । 


অন্র। নাচো, নাচো সৈম্তগণ ! বড আনন্দ। বুদ্ধ জর হয়েছে, 
কোঁশল ধ্বংস, অজীতশক্রর দিখ্িজয়ের প্রথম অভিযান পুর্ণভাবে সিদ্ধ । 
নাচো, নাচে! ! আমিও নাচি তোমাদের সঙ্গে__রাঞ্ষসের নাচ, জল্লাদের 
নাঁচ। হতভাগ্যগণ ! কি যুদ্ধ করলে আজ জান? একটা বিন্দু শক্তি ক্ষয় 
হলে! না, এক ফৌটা ঘাঁম পর্য্যন্ত কারও কপাল হতে পড়লে না; 
কোশল--অমন একটা বিরাট শক্তি__মন্ত্রের মত উড়ে গেল! বাহবা 
জর | বুঝতে পার্ছে। না নির্কবোধগণ__কোঁশল যুদ্ধ করতে আমে নাই, 
আত্মবলি দিতে এসেছিলো ? তোমরাও যুদ্ধ করতে এম নাই__হত্যা 
করতে এসেছিলে? নাচছে! কি পাষগুগণ ! পালিয়ে চল রণস্থল ছেড়ে ; 
ইতিহাস তোমাদের এ বিজয়বার্তী শুনেছে, আর এ নৃত্যোৎসবটা যেন 
ন1 দেখে ! পালিয়ে চল, পালিয়ে চল, লুকিয়ে পড়-যে যেদিকে পার। 
| প্রস্থানোগ্ভত ] 


অজাতশক্র উপস্থিত হইলেন। 


অজাত। কোথা যাও--কোথ1 যাঁও সেনাপতি ? 
১৫৫ 


ঘবতভজ্কাভতস্পত্নত ৫ম তান ১ 


অভ্র। মহারাজ! কেন? কেন? এখনও কি হত্য। করতে বাকী 
আছে কাকেও ? 

অজাত। যুদ্ধ কর-_স্বয়ং কোশলেশ্বরের সঙ্গে । 

অভ্র। অতখানি সম্মানের সাহস--মামি ভূত্য-_আমাঁর রাখা! উচিৎ 
নয়, প্রভু! ও হত্যাটা আপনিই সাঁরুন-নিজের হাতে ;) শেষ আহুতি 
আপনারই | 

অজাত। আমার ভুল হচ্ছে, সেনাপতি-_আহুতির মন্ত্র! জানি 
নাকি কারণ আমি অন্তমনস্ক হচ্ছি প্রতিপদে, আমার অস্ত্রচালন' 
যথাষথ হরে উঠেছে না। 

অন্র। আমার দশা আবার ও হতেও শোচনীয়, মহারাজ ! আপনার 
মন্ত্র ভূল হচ্ছে, আমার পুঁথি পর্য্যন্ত পুড়ে গেছে ; আপনি অন্যমনস্ক হচ্ছেন, 
আমার মনই আমাতে নাই; আপনার অস্ত্রচালনা যথাযথ হ”য়ে উঠছে 
না, আমার অস্ত হাতে করলে ইচ্ছ! হচ্ছে__নিজের বুকে বসাই! রক্ষা 
করুন, মহারাজ ! আমি আর হৃত্যা করতে পার্বে! না! যাঁ হত্যা ক'রেছি, 
জানি নাঁ_তার পীপক্ষয়ের ব্যবস্থা কত কোটা-কল্প নরক ! আমি আর 
কিছু দেখছি না মহারাজ-_সুরথ রাজার লক্ষবলির মত লক্ষ নির্দোষ 
বীরের খড়গ আমার জন্মান্তরের পথে । 

অজাত। [নীরব ] 


কাশ্বপ উপস্থিত হইলেন। 


কাশ্তপ। প্রমাণ নাও, রাজ! ! জন্মান্তর আছে-_না_নাই? 
অজাঁত। আমি কোনটাতেই স্থির নিশ্চয় হতে পারি নাই, কাশ্ঠপ ! 
তার পরও আমি-_এই যুদ্ধ কর্‌তে কর্তেই__অনেক যুক্তি, প্রমাণ, বিচার, 
তর্ক উভয় দিক হতেই করেছি; দেখেছি--কোনপক্ষের জয় পরাজয় 
১৫৬ 


১ম গর্ভাঙ্ক। ] অজ জিস্ণক্র 
নাই; কেউ কাকেও নিরস্ত করতে পাবে না; যা অজ্ঞাত-_উভয়কেই 
তার জন্ত অনি্দিষ্টের আশ্রয় নিতে হয়) এ তর্ক অন্ত, এ সন্দেহের নিরাশ 
নাই, এ যুদ্ধের শেষ নাই ; তাই উপস্থিত আমি একটা সন্ধির মনস্থ কর্ছি, 
তোমার কথাও থাক-_জন্মাস্তর আছে, আর আমার কথাও থাক-_ে 
জন্মান্তর 'আর কিছুই নয়্-_-পূর্বজন্ম পিতা মাতা, আর পরজম্ম 
পুত্র-কন্তা । 

কাশ্যপ। আমি তোমার সন্ধির প্রস্তাবে সম্মত ; ষদিও ঠিক সঙ্গত 
সন্ধি নয়__কেন না পূর্বজন্ম পিত। মাতা হোক্‌, কিন্তু পরজন্ম পুত্র-কন্তা 
কি প্রকারে হয়? যাঁর পুত্র-কন্ত| নাই-_বংশহীন, সে কি তাস্হ”লে 
মুক্ত ? যাক আমি আর তর্ক কর্তে চাই না, তোমার সন্ধিতেই সম্মত; 
তবে শুধু জন্ম সম্বন্ধেই সন্ধি করলে ত” হবে না, কর্ম স্ন্ধেও কর্‌তে 
হবে, এ রকম-_তোমার কথাও থাকে আমার কথাও থাকে ? 

অজাত। কিরূপ? 

কাশ্যপ। কর্শও আছে। তবে বল্তে পার সে কর্ম উভভোগ, 
ব। ভোগেচ্ছার নিবৃত্তি | 

অজাত। স্বীকার । 

কাশ্যপ। তা”হ”লে আর কেন রাজ।! সন্ধির শেষ করি এস না? 
স্বীকার কর না র্্মও আছে ! ধর্ম আর কিছু নয়-এঁ ভোগ নিবৃত্তির 
প্রকৃত পন্থাই ধর্ম ! 

অজাত। [ নীরব ] 

অসিহস্তে প্রসেনজিৎ উপস্থিত হইলেন । 

প্রসেন। কি অজাতশক্র ! জরাসন্ধের বংশ বলে পরিচয় দাওঁ_এই 
বীর তুমি? দ্বৈরথ রণে ভঙ্গ দিয়ে সেনাপতির সাহাষ্য ণিতে এসেছ? 
এস, যুদ্ধ দাও | 
১৫৭ 


আভা ভপ্ণঞ্ | ৫ম অঙ্ক; 
অজাত। থাক্‌, আর যুদ্ধে প্রয়োজন নাই, কোশলেশ্বর ! আস্ুন, 
সন্ধি করি। 
প্রসেন। সন্ধি! এ সময়! ব্যঙ্গ কর্ছে! অজাতশক্র ? আর তা! হয় 
না; সন্ধির সময় বয়ে গেছে-আমার কোশল ধ্বংশ। সাব্ধান-__-আর 
সন্ধির কথা মুখে এনে না, যুদ্ধ কর ; আমার মহাঁশয়ন-_কিন্ব' তোমার 
উরুভঙ্গ । [ অস্ত্র তুলিলেন ] 
অজাত। উত্তম) কাশ্যপ! তুমি উপস্থিত আর আমার সম্মুখীন 
হয়ো না; ছুয়ের এক দিক হ+য়ে যাঁক-_কোশলেশ্বরের অনন্ত নিদ্রা, 
কিম্বা অজাতশব্রর শরশধ্য1 | 
[ যুদ্ধ ও উভয়ের প্রস্তান। 
কাশ্যপ। শাস্তি শাস্তি শান্তি 
| প্রস্থান । 
অভ্র। [ক্ষিপ্তভাবে] পালিয়ে চল-_-পালিয়ে চল, সৈম্তগণ ! ঘরে 
গিয়ে দেখবে চল-ঘর আছে ন! পুড়ে গেছে! স্ত্রী পুত্র জীবিত-_না 


সর্পাঘাতে, বজ্বাঘাতে শেষ ! 
[ সৈম্তগণ সহ মগধ প্রর্তাবর্তন | 


১৫৮ 


দ্রিতীস্ত্ব গন্ভ?স্কক। 
রণস্থল সান্নিধ্য শ্মশান । 


সৃতসতকারান্তে ভিক্ষুগণ ফিরিতেছিল । 
ভিক্ষুগণ ।-_ 
গীত 7 


ম(নবের পরিণাম গাওরে শশান । 
কাল ঘুম ভঙ্গিবে না তার-_ 
বিনা তোমার বিষাঁণ। 

কত স্থির যোগী খষি, কত বীর দশ।নন, 
ও মরু জঠর তলে একাঁকারে অচেতন ; 
তোমার কোলেতে শুয়ে কত যেবারাঙ্ন। 
তোমার ককলে লীন যতেক সাবিত্রী 
শিবাকুল পরিবৃত--তব তৃণ শয্য। 

সাম্যের বিজয় নিশ।ন। 
জননীর শত ধার। ডুবায় ভম্ম দেহ 
অ।কাশ ফাটায় সত্তী “ওগো! আর নাই কেহ”, 
নীরব বধির তুমি, চিন্ন ধ্যান মগ্ন 
সন্কেতে বল শুধু সকলই অনিত্য-- 
কি মহাঁসাধক তুমি, কি ধীর উদার তুমি 

কি মহা! কঠিন পাষাণ । 


প্রস্থান! 


১৫৯ 


তভীম্র গঙ্ডান্। 


প্রাসাদ শিখর । 

[অজাতশক্রর আগমন প্রতীক্ষায় পতাক! হস্তে ক্ষেমাদেবী দীড়াইয়াছিলেন, 
নিয়ে শ্রেণীবদ্ধ সৈম্ত ; দূরে মগধ সৈন্ত সহ অভ্রনীল আদিতেছিল ) 
ক্ষেমাদেবী অজাতশক্রর প্রর্তাবর্তন ভাবিয়া! লোলুপ-দৃষ্টি বাঁঘিনীর 
ন্তায় ফিরিতেছিলেন। ] 
ক্ষেমা। আম্ছে-_মাস্ছে ! মগধ সৈন্তই বটে! এ নীল উষ্কীষ- 

ধারী পদাতিকের দল! এ স্ৃর্য্যা্কিত নিশীন হস্তে অশ্বারোহী শ্রেণী, 

মগধ সৈন্যই বটে ! এস, এস অজীতশক্র ! আমি তোমার জন্য জাল রচন' 
ক”রে রেখেছি ; কাণী, কৌশাম্বী, কনোজ-_তিন শক্তি নিয়ে দীড়িয়ে 
আছি--তোমার আগমন প্রতীক্ষায়! [ উচ্চকণে শিখর নিয়স্থ সৈন্তা- 
ধাক্ষগণ প্রতি ] সৈল্টাধ্যক্ষগণ ! মগধ-বাহিনী নিয়ে অজাতশক্রই বটে! 
প্রস্তুত হও) যুদ্ধের জন্ত নর-_হত্যাকাণ্ডের জন্ত | নীতি নাই, শৃঙ্খলা নাই,_ 
হত্যা) নিরস্ত্র, আত্ম-সমর্পণ__কিছু বিচার নাই-_রক্তজোত; ন্নেহ নাই, 
দয়া নাই, _প্রতিশোধ | 

অজাতশক্রর অকল্যাণ ভয়ে আলুলায়িত কুন্তুলা 


বেপুদেবী উপস্থিত হইলেন। 
বেধু। রাক্ষসী! পিশীচী ! প্রতিশোধ নিবি? আমায় হত্যা কর, 


আমার রক্ত আগে দেখ। 
ক্ষেমা! ও প্রতিশোধে আমার শধ্যাকণ্টক যাবে না, বেণু! হত্যা 
করবো ন| তোমায়, তিলে তিলে দণ্ধে মারবো; রক্ত দেখবে! কি? 


দেখ বো-_তোমার লোলুপ চক্ষে অশ্রুর বন্ঠা। 


১৬৩. 


ওয় গর্ভীঙ্ক । ] অতবজ্াভ০্পত্র 


বেধু। অশ্রু নাই_অশ্র নাই,_-কি দেখবি, যাছুকরী! তোর 
ষাছুদণ্ড স্পর্শে নয়নের অশ্রু, হৃদয়ের কোমলতা, নারীর বৃত্তি সব শুকৃনে! 
কাঠ ভয়ে গেছে। 

ক্ষেমা। ঠিক হয়েছে! আমিও দানবী, তুইও নাগিনী--আর কেন 
তবে গাঁঢাকা দিয়ে আড়ালে আড়ালে ফিরিস ? আয় ছুজনে সাম্না 
সামনি দীড়াই --পিসী আর ভাই ঝি, অগ্নিবাঁণ আর বরুণান্ত্র ; মগধের 
মাটি চষে দিই। 

বেণু। তুই একাই পার্বি-__একাই পার্বি, সর্বনাশা ! মগধ-রাজ্য 
তলিয়ে দিতে আর কারও সাহায্যের দরকার হবে না; প্রতিহিংসা 
সাধন, আর আত্মহত্যাঁ_-এক সঙ্গে তুই একাই পার্বি; ঘর জালিয়ে 
আগ্তন পৌহানো! তোতেই সম্ভব । 

ক্ষেম1!। চুপ-_চুপ, জিব খ+সে যাবে ! ঘর জালিয়ে আগুন পোহান, 
তোদের-__ আমার নয় । আমি ত এসেছি শীতের কামোড়ে জড় সড় হয়ে 
সেই পোঁড়। ঘরের ছাই মাখতে । স্থখের পায়রা তোমরা সরে পড়লে 
_-পড়ো। ভিটের ঘুঘু আমি, ডাকবো না? [ উদ্দেশে ] সৈম্তগণ ! সতর্ক 
5ও 1 শক্র নিকটে ! 

বেণু। রক্ষা কর- রক্ষা কর, রাক্ষসপী। আমি তোর কোন দৌৰ 
করি নাই-_আমাঁর মুখ পানে চা; মনে করে দেখ. আমি তোর কে? 

ক্ষেমী। তুমি আমার ভাইঝি, তুমি আমার বড় আদরের; তোমার 
মুখ পানে চাইবো বই কি ! তোমার সাদা সি'থী আমি রক্ত দিয়ে রঙিয়ে 
রাখ বো, তোমার শীর্ণ গলা জড়িয়ে মলিন মুখে মা হয়ে চুমো খাব 3 
তোমার বিরহ যন্ত্রণা_আমি যেথা পাই__বিশ্বপ্রেম এনে ভুলিয়ে দেব? 
আর কি চাও ? | উদ্দেশে ] সৈম্ভগণ-_ 

বেগু। একট| দিন--একট1 দিন, মায়াবিনী ! এই একটা দিনের 
৯৬১ 

অ-_-১১ 


ভব জা ভিশশতত [৫ম অঙ্ক; 


মত তাঁকে ঘরে আস্তে দে, আমাকে তার সাম্নে ঈীড়াতে দে, আমি 
যেমন ক'রে পারি তাঁর হাত ধ'রে বনে, গিরি গুহায়, যেখানে হোক্‌ 
তোর নিশ্বাস হ'তে দূরে, বহুদূরে টেনে নিয়ে যাব । 

ক্ষেমা। আমারও এই একটা দিন_-একটা দিন, বেখু! একটা 
দিনের জন্ত আমি তাকে গৃহ-ছাড়া» বিতাড়িত, পথের ভিখারী করি, 
তারপর আর কাকেও কোথাও যেতে হবে না_অবরুদ্ধ স্বামীর পাশে 
বসে আমি সারাজীবন অন্ধকৃপেই কাটাব। | উদ্দেশে ] সৈম্তগণ ৷ ঝাপ 
দাও । 

সৈশ্ভগণ | [ নেপথ্যে ] জয় মগধেশ্বরী ক্ষেমাদেবীর জয় । 
[ মগধ সৈন্তের উপর ঝম্প প্রদান ] 
মগধ সৈম্তগণ। [ নেপথ্যে ] সেনাপতি ! হুকুম দাও__হুকুমদাও | 
অভ্রনীল। [ নেপথ্যে] দীড়িয়ে মর-_দীড়িয়ে মর, অভিশপ্ত গণ ! 
অস্ত্র ধরো না, ঠিক কোশলের মত দাড়িয়ে মর। 

বেণু। ওঃ [ উচ্চকণ্ে ] উদয় । উদয়! 

উদয় ছুটিয়া আমিতেছিলেন, উাদেবী তাহার হাত ধরিয়া 
পশ্চাতে টানিতেছিল। 

উদয়। ছেড়ে দাও-_ছেড়ে দাও, উষা ! আমি বুঝতে পেরেছি-_ 
পিতামহীর ষড়যন্ত্রজালের মোহন বয়ন তুমি; তুমি আমায় একেবারে 
হস্তগত কর্তে পার নাই, স্বামী সেবার ভাণে-_বিলাসিতায় ডুবিয়ে, 
ধীরে ধীরে গ্রাস কর্ছো৷! ছেড়ে দাও ! [ উধার হাত ছাড়াইয়া ক্ষেমার 
সন্ুখীন হইয়া ] পিতামহী! এ কি? 

ক্ষেম। [ কঠোর কণ্ঠে ] প্রতিশোধ ! 

উদর। এ প্রতিশোধ কি আমার পিতামহের ইচ্ছা ? 

ক্ষেমা। ষোল আন না হ”লেও অর্ধেক রকম বটে। 


১৬২ 


ওয় গভাঙ্ক | ] অতজািস্পতত 

উদয়। অর্ধেক রকম ! 

ক্ষেমা। আমার ইচ্ছাঁ_-আমি তার অদ্বাঙ্গিনী | 

উদয়। কখনও না--কখনও না; তুমি তার-_-তুমি তীর-_ 
| বঢ়ভাষা বলিতে গিয়া সংযত ভাবে ] পিতামহী ! আমার সন্দেহ 
হয়েছে, তুমি প্রমাণ দিতে পীর- মহারাজ বিশ্বাসারের সঙ্গে তোমার 
যথারীতি বিবাহ হয়েছিল ? 

ক্ষেমা। [ সক্রোধে ] উদয়-_- 

উদয়। চোখ রাঙাচ্ছ কাকে, পিতামহী ! আমি মহারাজ বিম্বাসারের 
পৌন্র--বিচার করবে! ; প্রমাণ দাও- তুমি মহারাজ বিশ্বাসারের বিবাহিত) 
নতুবা তোমার এ ইচ্ছা টিকবে না! 

ক্ষেমা। আমার প্রমীণ? [ বেণুদেবীর প্রতি তর্জনী নির্দেশে ] 
এঁ তোর সামনে; স্বামীর জন্ত কি কর্ছে দেখ । বেনুদেবী তোর ম|! 

উদয়। আমার মায়ের প্রমাণেই ত তোমার মাথা খাওয়া যাচ্ছে, 
মায়াবিনী! তুমি কখনও মহারাজ বিষ্বাসীরের বিবাহিত নও । আমার মা 
যথার্থই স্বামীর স্ত্রী, সহধর্মিনী অর্ধাঙ্গিনী ; পিতার ইচ্ছার বিরুদ্ধে দাড়ানো 
দূরে থাক, পাছে সে বিষয়ের কোন প্রসঙ্গ ওঠে, সেই ভয়ে শাস্তিময়ীর 
স্বামীর সঙ্গে সাক্ষাৎ পর্য্যস্তও নাই। পিতামহী ! আমার মায়ের দৃষ্টান্তে 
তুমি মহারাজ বিশ্বাসারকে স্বামী প্রমাণ করাবে ? তীয় সহধর্মিনী অদ্ধাজিনী 
হবে? তোমার কর্ম দেখ! দেখ-- নিয়ে কি ভীষণ হত্যাকাণ্ড ! মহারাজ 
বিশ্বাসারের আজ্ঞাতসারে তাঁর বুকের ওপর কি ভীষণ দানবী-তাগব ! কি 
খরজোতে নর-রক্তধারা! পিতামহী! এই তোমার পাতিত্রত্য? 
এই তুমি অর্দাঙ্গিনী ? 

সৈম্তগণ। [ মগধসেন! ধ্বংস করিয়। নেপথ্যে ] জয় মগধেশ্বরী ক্ষেমা- 
দেবীর জয়। 
১৬৩ 


অব ভা তি স্পওেত [ ৫ম অঙ্ক; 


উদয়। [ উদ্ত্রাস্তবৎ ] মগধ ধ্বংস! মগধ ধ্বংস! ও হো-হো 
মহারাজ বিম্বসারের পুজার বিগ্রহ, বুকের হাঁড় চুর্ণ! বিদ্বাসার মহিষী! 
কি করলে? কি করলে? 
রক্তাক্ত কলেবরে আসন্ন-ৃত্যু অভ্রনীল উপস্থিত । 
অভ্র। ঠিক করেছে, কুমার! ঠিক করেছে! মহারাজ বিশ্বাসারের 
মগধ ধ্বংস হয় নাই, ধ্বংস হয়েছে__মগধের মাংসাশী কুকুরের দল ; ধ্বংস 
হয়েছে-_-মগধরাজ্যের পাপ | ঠিক হয়েছে কুমার! কোশল ধ্বংস কি 
ভাবে করে এসেছি তোমরা জান না; সেকি উদাস আত্মবলি! : 
কি নিন্মম বজ্বাঘাত! সে কি অকথ্য মহাপাপ! ঠিক হয়েছে, আমি 
ছুর্ভাবনায় ছিলাম-_-এর ফল কত দূরে? নিশ্চিন্ত; প্রকৃতির পরিশোধ 
হাতে হাতেই । বাহবা মার! বাহবা শীস্তি! বাহবা প্রায়শ্চিত্ত । 
বিদায় [ গমনোগ্ত ] 
উদয় পিতা কই, সেনাপতি ! আমার পিতা ? 
অভ্র। তিনি কোশলে; মহারাজ প্রসেনজিতের সঙ্গে দ্বৈরথ যুদ্ধে : 
| প্রস্থান । 
বেণু। উদয়! আর ন1; স্থখে থাক তোমরা ; আমি চন্লুম বাবা: 
কোশল আমার পিতৃতৃমি, সেইথানেই আমার সমাধি । 
| প্রস্তান ! 
উদয়। মা! মা! 
[ পশ্চান্ধাবন 
ক্ষেমা। [ উষাকে ধরিয়া অনুতগ্তভাবে ] কি করলাম, উষা! কি 
করলাম! সত্যই কি তবে আমি মহারাজ বিষ্বাসারের বিবাহিতা নই ? 
উষা। কে বল্লে মা! তুমি মহারাজ বিশ্বাসারের সহ্ধন্সিনী না হ'তে 
পার, মহাশক্তি নিশ্চয়ই | আমার বিচারে--পতি-পরায়ণতায় তুমি 


১৯৬৩৪ 


৪র্ঘ গ্ভাঙ্ক | ] তবভ্াত্স্ণত্র 


বেণুদেবী হতে কোন অংশে কম নও) বেণুদেবীর স্বামীভক্তি_ নীরব, 
মন্থর; তোমার পাতিব্রত্য অবাধ, উদ্দীম। বেণুদেবী সহিষ্জ্ুতীমরী 
রামচন্দ্রের সীতা, তুমিও রণরঙ্গিণী দেবাদিদেবের দুর্গী । 
ক্ষেমা। চ* তবে উষী! আমাকেও কোশলে নিয়ে ৮৮; কোশল 
মামারও পিতৃভূমি, আমারও সমাধি মেই মাটীতেই। 
| উ্ধাকে টানিয়। লইয়া প্রস্থান । 


চতুর্থ গভ্ডাক্ক। 


রণস্থল। 
অজাতশক্র ও প্রসেনজিৎ । 

অজাত। সন্ধি করুন__সন্ধি করুন কোশলেশ্বর ! 

প্রসেন। পরাজয় স্বীকার কর ; পাপের ক্ষমা চাও, অজাতশক্র ৷ 

অজাত । কোশলেশ্বর! আমি কি নিজের অক্ষমতার জন্য সন্ধির 
প্রস্তাব কর্ছি__বুঝলেন ? | 

প্রসেন। অজাতশক্র ! আমিও কি আপনার বিজয় গৌরবের স্বার্ণে 
তোমায় অনুতপ্ত, অবনত হ”তে বল্ছি-_তোমার ধারণা ? 

অজাত। সন্ধি করুন, সন্ধি করুন। 

প্রসেন। পরাজয় মান, অধর্ম্ের দারী হও | 

অজাত। আমি এখনও ধর্ম্মাধর্ম্ের মন্দ্রভেদ করতে পারি নাই, 
কোশলেশ্বর! পরাজয় মান্বো কি? 

প্রসেন। আমিও এখনও আপনাকে ততটা অক্ষম বুঝ তে পারি নাই, 
অজাতশক্র ! সন্ধি করবো কি? 


১৬৫ 


তবজাজিস্পতেত [ ৫ম অঙ্ক) 


অজাত। থাক্‌; আমারও সন্ধির প্রস্তাব বাতুলতা, আপনারও ধর্ম 
দেখানো! স্বপ্ন; তবে যুদ্ধই যখন নিশ্চিত, একটা কথা__আপনার 
অবর্তমানে আপনার রাজ্যের উত্তরাধিকারী কে? 

প্রসেন। কেন, আমার পুত্র! 

অজাত। পুত্র ত অবরুদ্ধ; আপনারই দ্বারা; নির্দোধী হ'লেও 
সাধারণ প্রজায় সে বিচার কর্তে যাবে না; তারা৷ দেখ বে-_আপনার 
দণ্ডিত। আপনি একটা লিখে দেন__সে নিরপরাধ, কোশলরাজ্য তারই ! 

প্রপেন। ভাল কথা; তা*হলে আমারও জেনে নেওয়। দরকার-__- 
মগধরাজ্য কার? যুদ্ধে যে আমারই পতন হবে--তার এমন কি কথ? 

অজাত। বল্তে পারেন। মগধ-রাঁজ্য মহারাজ বিশ্বাসারের ; আমি 
রাজ্য কর্তে নামি নাই-_ধন্দ্ন দেখতে দীড়িয়েছি। 

প্রসেন। তুমিও লিখে দীও) কেন না মগধ-প্রজাদের মধ্যেও 
মতদ্বৈধ ঘটতে পারে- ধর্ম দেখাবার জন্য হলেও, বহুদিন তিনি অধিকার- 
চাত হয়ে আছেন । 

অজাত। উত্বম__আমি স্বীকার । 

প্রসেন। কিসে লেখা,হবে? 

অজাঁত। বৃক্ষপত্রে, বক্ষের রক্তে, অসির অগ্রভাগে । 

প্রসেন। উত্তম! 

মগধ দূত উপস্থিত হইল। 

মগধ দূত | [ অজাতশত্রকে অভিবাদন করিয়! ] মহারাজ ! 

অজাত। কি? 

দূত | মগধ হ*তে আস্ছি__ 

অজাত। সংবাদ ? 


দূত। মহারাজ বিশ্বাসারের নির্বাণ হয়েছে । 
১৬৬ 


৪র্থ গর্ভাঙ্ক | ] আভা ভিস্পত্র 


অজাঁত! [ ক্ষণেক বিচলিত হইয়া ] যাও, শব দেহ রক্ষা করগে । 
[ অভিবাদন পূর্বক দূতের প্রস্তান। 
প্রসেন। করলে কি? করলে কি অজাতশক্র ! বাদ্ধক্যে কারামৃত্যু-_ 
জন্মদাত! পিতার ; তোমার ধম্ম দেখ! যে নরকের আগ্নেয় অক্ষরে অক্ষয় 


রইলো! ! 
কোশল দূত উপস্থিত হইল। 


কো: দূত। | গ্রসেনজিৎকে অভিবাদন করিয়া ] মহারাজ । 

প্রসেন। কি সংবাদ? 

কোঃ দূত। যুবরাজ সন্ন্যাস গ্রহণ ক'রে রাজ-প্রাসাদ পরিত্যাগ 
করেছেন; -আর তাকে অবরোধে রাখ তে কেউ সাহস পেলে না। 

প্রসেন। যাও, আর অবরোধের আবশ্তক নাই। 

অজাত। কি কর্লেন? আপনি কি করলেন কোশলেশ্বর ৷ 
যৌবনে সর্বস্থখে বঞ্চিত যোগী-_ওরসজাত-পুক্র ! আমার কীর্তি পিতার 
কারামৃত্যু ; আপনার কীন্তি যে পুত্রের জীবন্মত্যু ! 

প্রসেন। যুদ্ধ কর, যুদ্ধ কর, অজাতশক্র ! আর লেখালেখির প্রয়োজন 
নাই ; আমি এবার শৃঙ্খলবিহীন মুক্ত । 

অজাত। এবার তাঁ”হ”লে প্রকৃত যুদ্ধ আরম্ত হোক, কোশলেশ্বর ! 
আমিও র্ধবমায়াতীত- _জাগ্রত। আপনিও ভুলে যান-_ যগধ কুমার 
আপনার জামাতা, আমিও বিস্বৃত হই-_ কোশলেশ্বর আমার কন্তাপাতা ; 
আপনি প্রসেনজিৎ_-আমি অজাতশক্র | [ অস্ত ধরিলেন ] 

প্রসেন। আমি ধর্ম__তুমি পাপ। [যুদ্ধ আরম্ভ করিলেন ] 

অজাত। ধ্বংস কর্লাম_ধর্ম ! [ অন্ত্রাঘাত 4 

_ প্রসেন। [ প্রতিঘাতে বাধ! দিয়! ] ধর্ম অবিনশ্বর! 


১৬৭ 


ত্জজাতিম্ণজ্র [ ৫ম অঙ্ক; 

অজাত। [ কিছুক্ষণ যুদ্ধ করিয়! ] শেষ তোমার--ধর্্ম 1 [ অস্ত্রাঘাত ] 

প্রসেন। [ প্রতিঘাতে ব্যর্থ করিয়া ] ধর্মই ঈশ্বর, অনাদি, অশেষ । 

অজাত। [ কিছুক্ষণ যুদ্ধ করিয়! ] তবে প্রত্যক্ষ কর, বিশ্ব ! জ্ঞানচক্গে* 
দেখ, জগত ! অণু পরমাণুতে অনুভব কর, হৃষ্টি__ন্ম নাই । | বর্শা লক্ষ্য 
করিলে। ] 

ঠিক এই সময়ে বেণুদেবী ছুটিয়া আসিয়া প্রসেনকে 
সন্সেহে বেষ্টন করিলেন । 

বেণ। বাবা বাবা! [ অজাতশক্রর প্রক্ষিপ্ত বর্শা তাহার পৃষ্ঠ 
ভেদ করিল ] উঃ-_[ পতন ] 

প্রসেন। মা!মা! কিকরলি? কি করলি! বেণুর মস্তক ক্রোডে 
লইয়া! বসিয়া পড়িলেন ] 

সশস্ত্র উদয় উপস্থিত হইলেন। 

উদয়। কে! কে আমার মাতৃহত্যা করলে? কুস্ম-দামে এ 
ভীষণ বজ নিক্ষেপ কার? কে সে অবিচারী, নিষ্ঠুর, জ্ুর জল্লাদ ? 
| অজাতশক্রকে অপ্রতিভ দেখিয়। ] পিতা! পিতা । এ কীর্তি তোমার? 
এই অন্ধ ভল্লাঘাত? মাতুপ্রীণ বালকের এই মঙ্গল-স্তস্ত ধ্বংস? ওঃ-- 
মুর্খ আমি--কেন পিতামহীর পরামর্শ উপেক্ষা করেছিলাম! [ক্ষণেক 
ইতস্ততঃ করিয়া ] না সে ক্রটী আমি সংশোধন কর্বো_ উজ্জল ভাবে । 
আমি আমার মাতৃ হত্যার প্রতিশোধ নেব ; পিতা, দেবতা, মহাগুরু, যেই 
হোক সে। মুছে যাও-_পিতা ধর্ম? পিত। স্বর্গ: নীতিশ্লোক- দুর্বল 
মস্তিফের কলঙ্কিত স্মৃতি হ'তে ; প্রত্যক্ষ কর, বিশ্ব ! প্রত্যক্ষ কর, জাগত । 
প্রতাক্ষ কর স্যষ্টি--ধর্দ আছে; ধর্ম এই-_পিতৃ-অবরোধীর পুভ-_ 


পিতৃঘাতী। [ অজাতশক্রর প্রতি বর্শা লক্ষ্য করিলেন ] 
১৬৮ 


৪র্ঘ গর্ভাঙ্ক । ] জা তশক্র 


ঠিক এই সময়ে ক্ষেমাঁদেবী ছুটিয়া আসিয়া অজাত- 
শব্রকে সন্দেহে বেষ্টন করিলেন । 


ক্ষেমা। পুত্র! পুত্র! [উদয়ের প্রক্ষিপ্র বর্শা তাহার গষ্ঠ ভেদ 
করিল ] উঃ_-[ পতন ] 


উষাদেবী ছুটিয়া আসিল। 

উষ!। মা! মা! কি করলে? কি করলে? [ক্ষেমার মন্তক 
ক্রোড়ে লহয়। সলিয়। পড়িল ] 

ক্ষেম।। | জড়িত কে] বেণু' 

বেখু। [রুদ্ধ কে] ম।! 

ক্ষেমা। “তামারও ব গতি, আমারও তাই, একই নাবী-ধনম 
আমাদের । 

বেনু । চল মা, একসঙ্গে ; 'বথার হাক -- এক গে।কে। 

উভরে। ও: মুত | 

প্রসেন ও উধা। [উভয়ের বক্ষে পড়িয়া | মা! মা! 

জজাত। | রাক্ষমের হাব] ধন্ম কচ? ধন্ম কচ? ধন্ম আঅপন্মের 
নামান্তর । দুষোধন মিএঘ|তী, বুঁধষ্ঠিরও জ্ঞাতিভল্ঞ। | সমান, সমান-_ 
ধর্ম অধর্মম, প।প পুণ্য--সব এক তুল! দণ্ডে। উদয়! পুত! ধর্ম দেখতে 
এসেছিস? কই ধন্ম? কোথা ধর্ম? তুইও,যে, আমিও সে; আমি 
তোর মাতৃঘাতী, তুইও আমার মাতৃহন্ত।। আয় তোতে আমাতেই সান্ধি 
করি, ধর্মশ-অধন্মে আলিঙ্গন করি; সে আলিঙ্গন নয়,--তুইও বশ! ধর 
আমিও ভল্ল ধরি; তুই আমার বুক লক্ষ্য কর, আমিও "তোর বুক লক্ষ 
করি; আমিও বাই, তুইও চঃ;) একস্থলে একসঙ্গে এক তালে। 
| ভল্লপ ধরিলেন ] 
১৬৭৯ 


অজাভগক্রে | €ম অঙ্ক; 


উদয়। সেই ভাল--সেই ভাল. পিতা ! তা ছাড়। আর এ আগুন 
নেভাবার দ্বিতীয় উপায় নাই। এ যজ্ঞ জলেছে-_পিতা-পুত্রের প্রতি- 
যোগিঅয়, নির্বাণ হোক পিতা-পুত্রেরই রক্তে । যার যেমনি প্রস্তাবনা, 
তার তেমনি উপনংহার। [ ভল্ল ধরিলেন ] 


'মজাত। প্রস্তুত? 
উদয় । প্রস্তত | 
পজাত | ছাড। 


| উভয়ের প্রতি উভয়ের ভল্প নিক্ষেপ | 


ঠিক এই সময়ে কাশ্যপ মধ্যস্থলে আসিয়। পড়িলেন, 
উভয় ভল্প তাহার বক্ষেই বিদ্ধ হইল । 


বি 


কাহপ। শান্তি_ শান্তি । 
ভিক্ষুগণ ছুটিয়া আসিল । 
ভিক্ষুগণ । প্রভূ । প্রভূ । 
কাশ্প। শান্তি। [| নির্লাণ | 
ভিচ্ষুণ | 
গীত । 
শেষ শেষ শেষ । 
জীবন ক্ষণ জলবিম্ব বিশেষ । 
নিব্বাণ হ'লো দীপ দ্িনদেব গেল নেমে, 
নীরব মন্দির, শঙ্খ গেলরে থেমে।_ 
রহিল প্রেমের অনুভূতিমন়্ মুচ্ছ'না, 
রহিল নিতা আত্মত্যাগের উপদেশ | 


ববনিকা।